তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যকে কুপিয়ে ‘খুন’, অভিযোগের আঙুল বিজেপির বিরুদ্ধে

পাল্টা অভিযোগ, ভোটের ফল প্রকাশ হতেই বিজেপি (BJP) কর্মীরা ঘরছাড়া। তাই বিজেপি এই ঘটনায় জড়িত নয় বলেই দাবি।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 11:15 AM, 4 May 2021
তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যকে কুপিয়ে 'খুন', অভিযোগের আঙুল বিজেপির বিরুদ্ধে
নিজস্ব চিত্র।

পূর্ব বর্ধমান: তৃণমূলের (Trinamool Congress) পঞ্চায়েত সদস্যকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ। অভিযোগের আঙুল বিজেপির বিরুদ্ধে। ভোটের ফল প্রকাশের পরই এই ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কেতুগ্রাম। এই ঘটনায় পাঁচ বিজেপি কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই চূড়ান্ত হিংসার ছবি রাজ্যজুড়ে। মারামারি, বাড়ি ভাঙচুর এমনকী খুনের অভিযোগ পর্যন্ত উঠছে। রাজনৈতিক দলগুলি একে অপরকে কাঠগড়ায় তুলছে। কিন্তু এসবের মধ্যে আসলে বিঘ্নিত হচ্ছে শান্তি, রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা।

কেতুগ্রামের মাল গ্রাম। সেখানকার গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য ছিলেন তৃণমূলের শ্রীনিবাস (৫০)। শাসকদলের অভিযোগ, সোমবার রাতে তাঁর বাড়িতে বিজেপির একদল দুষ্কৃতী হামলা চালায়। বাড়ি থেকে বের করে শ্রীনিবাসকে লাঠি দিয়ে মারধর করা হয়। ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় বলেও অভিযোগ। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর জখম হন আরও দুই তৃণমূল কর্মী। আহতদের কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন: ভোটের ময়দানেই নেই শোভন, বেহালা পূর্বে জিতে রত্নার মনে এখন প্রশান্তির ‘বৈশাখী হাওয়া’

যদিও বিজেপি এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তারা কোনওভাবেই এই ঘটনায় জড়িত নয় বলে দাবি স্থানীয় নেতাদের। পাল্টা তাদের অভিযোগ, ভোটের ফল প্রকাশ হতেই বিজেপি কর্মীরা ঘরছাড়া। তাদের উপর তৃণমূলের লোকজন অত্যাচার করছে। যদিও শ্রীনিবাস খুনের ঘটনায় মাল গ্রামের পাঁচ বিজেপি কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।