আনন্দ বর্মণের খুনিরাই হামলা চালায় আধাসেনার উপর, ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এনে দাবি বিজেপির

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আধাসেনাকে 'ঘেরাওয়ের' নিদানই এর জন্য দায়ী। সেই কারণে আপামর রাজ্যবাসীর কাছে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে দাবি করেছে বিজেপি।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 18:40 PM, 15 Apr 2021
আনন্দ বর্মণের খুনিরাই হামলা চালায় আধাসেনার উপর, ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এনে দাবি বিজেপির
ছবি- টুইটার

কলকাতা: শীতলকুচি কাণ্ডে রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে আক্রমণ ক্রমশ তীব্রতর করছে বিজেপি। জোড়পাটকির ১২৬ নম্বর বুথের বেশ কিছু ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এনে এ দিন গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, সে দিনের ঘটনা ছিল ‘পূর্বপরিকল্পিত’। এবং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আধাসেনাকে ‘ঘেরাওয়ের’ নিদানই এর জন্য দায়ী। সেই কারণে আপামর রাজ্যবাসীর কাছে মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে দাবি করেছে বিজেপি।

রাজ্য বিজেপির সহ সভাপতি জয়প্রকাশের মজুমদার অভিযোগের সুরে বলেছেন, শীতলকুচির পুরো ঘটনাই প্রতিহিংসার। প্রথমে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলিতে আনন্দ বর্মণ নামক রাজবংশী ছেলেটির মৃত্যু হয়। তারপর পরিকল্পনামাফিক আধাসেনা সদস্যদের উপরও হামলা চালানো হয়। এর জন্য পুরোপুরি তৃণমূল সুপ্রিমোর উস্কানিই দায়ী বলে দাবি বিজেপির।

বিজেপির আরও দাবি, “যারা প্রথমে আনন্দ বর্মণের ওপর হামলা চালিয়েছিল, তারাই পরবর্তী সময়ে আধাসেনাকে ঘিরে ধরে তাঁদের উপর হামলা চালায়। এ বার সম্প্রতি যে ভিডিয়ো উঠে এসেছে, তাতে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে যে আধাসেনার উপর হামলা হয়েছিল।” এমনটাই দাবি বিজেপির। একই সঙ্গে পুরো ঘটনার জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উস্কানি দায়ী বলে দাবি করেছে বিজেপি। বিগত লোকসভা নির্বাচনে এই শীতলকুচি এলাকায় বিজেপি বিরাট ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে ছিল। সেই প্রতিহিংসার থেকেই এই ঘটনা ঘটে থাকতে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে বিজেপির তরফে।

আরও পড়ুন: বঙ্গে শেষ তিন দফার ভোট কি একসঙ্গে? চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাল নির্বাচন কমিশন

পাশাপাশি অমিত মালব্য দাবি করেছেন, “যে দুষ্কৃতীরা আনন্দ বর্মণ গুলি করে আধাসেনার উপর হামলা চালিয়েছিল, এখন সেই দুষ্কৃতীদের সঙ্গেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে আগামী ২ মে তৃণমূলের তোষণের রাজনীতির অবসান হবে”, চ্যালেঞ্জের সুরে জানানো হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে।

ভিডিয়োর সত্য়তা যাচাই করেনি TV9 বাংলা

 

আরও পড়ুন: শীতলকুচি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জের, সায়ন্তন বসুর কাছে জবাব তলব কমিশনের