গুজরাটের মোদী, শাহ, সিংদের পুলিশের দায়িত্ব দিচ্ছে কমিশন! মমতার আক্রমণে প্রাদেশিকতার খোঁচা

কোনও রাজ্যে নির্বাচনের সময় অন্য একটি বিশেষ রাজ্যের পুলিশকে দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে, এমন অভিযোগ ইতিপূর্বে ওঠেনি। যা এ বার তুললের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 23:55 PM, 4 Apr 2021
গুজরাটের মোদী, শাহ, সিংদের পুলিশের দায়িত্ব দিচ্ছে কমিশন! মমতার আক্রমণে প্রাদেশিকতার খোঁচা
ছবি- ফেসবুক

হুগলি: ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ এবং হেভিওয়েট পদে বেছে-বেছে গুজরাটিদের বসিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের শীর্ষতম নেতৃত্ব। বিগত কয়েক বছর ধরেই বিরোধীদের গলায় হামেশাই এই অভিযোগ শুনতে পাওয়া গিয়েছে। তবে কোনও রাজ্যে নির্বাচনের সময় অন্য একটি বিশেষ রাজ্যের পুলিশকে দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে, এমন অভিযোগ ইতিপূর্বে ওঠেনি। যা এ বার তুললেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার হুগলির পুরশুড়ায় এক জনসভা থেকে এই দাবি করেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই আদর্শ আচরণবিধি কার্যকর হয়ে গিয়েছে। একই সঙ্গে রাজ্যের প্রশাসনিক দায়ভারও কমিশনের অধীনেই চলে গিয়েছে। তারপর থেকেই বিভিন্ন প্রশাসনিক রদবদল নিয়মিত ঘটে চলেছে। যা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে একেবারেই খুশি নন তা সাফ করে দিয়েছেন নিজের বাচন ভঙ্গিতেই। তৃণমূল নেত্রীকে আজ বলতে শোনা গিয়েছে, “বাংলার পুলিশকে এখন দায়িত্ব দিচ্ছে না। দেখে দেখে বলছে, গুজরাটে কে মোদী রয়েছে? গুজরাটের কে সিং রয়েছে? কে শাহ আছে? তাদের দেখে দেখে পুলিশের দায়িত্ব দিচ্ছে, যাতে ভোটটা দখল করতে পারে।”

বর্তমানে কমিশনের নিয়ন্ত্রণে থাকা রাজ্য পুলিশের উপর থেকেও যে ক্রমশ তিনি আস্থা হারিয়ে ফেলেছেন, সেই সুরও কিছুটা শোনা গিয়ে মমতার গলায়। কখনও তিনি বলেছেন, ‘পুলিশের আচরণ’ বদলে গিয়েছে। কখনও বা তিনি গ্রামবাসীদের উদ্দেশ্য করে বলেছেন, পুলিশ এলে তাঁদের ছবি তুলে রাখতে।

আরও পড়ুন: অনুব্রত-গড়ে ভাঙন তৃণমূলে, দল ছাড়লেন জেলা সহ-সভাপতি আলি মোর্তাজা খান

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে, আজ কমিশনের বিরুদ্ধে তিনি যে ধরনের অভিযোগ তুলেছেন, তা এক প্রকার নজিরবিহীন। কেননা ইতিপূর্বে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কমিশন চালাচ্ছেন বলে মমতা দাবি করলেও এতে প্রাদেশিকতার রং মেশেনি। এ বার সরাসরি গুজরাটিদের দিকে আঙুল তুলে যেন ফের একবার সেই বাঙালি বনাম ‘বহিরাগত’ বিতর্ককেই উস্কে দিতে চাইলেন তিনি। এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক কারবারিদের একাংশ।

আরও পড়ুন: কয়লা পাচারের টাকা পুলিশের গাড়িতেই আসত কলকাতার প্রভাবশালীদের কাছে! কয়লাকাণ্ডে গ্রেফতার পুলিশ কর্তা