ভোট পরবর্তীতে ঘাসফুল ধরবে হাত? অধীরের কথায় জোর জল্পনা

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য "পলিটিক্স ইজ দ্য আর্ট অব পসিবিলিটিস।'' অর্থাৎ, রাজনীতি আসলে সম্ভাবনার শিল্প।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 16:25 PM, 7 Apr 2021
ভোট পরবর্তীতে ঘাসফুল ধরবে হাত? অধীরের কথায় জোর জল্পনা
ফাইল চিত্র।

কলকাতা: একুশের ভোটে (West Bengal Assembly Election 2021) তাদের লড়াই তৃণমূল (TMC) ও বিজেপি (BJP) উভয় শক্তির বিরুদ্ধে। তবে ভোটের ফলাফল যদি ত্রিশঙ্কু হয় তবে তৃণমূলকে (TMC) সমর্থন করতে পারে কংগ্রেস (Congress)। বুধবার এমনই আভাস দিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Choudhury)। এদিন প্রেস ক্লাবে এক প্রশ্নের উত্তরে অধীরের ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য, রাজনীতি হল সম্ভাবনার শিল্প। ঠিক কোন প্রেক্ষিতে এই মন্তব্য করলেন তিনি?

সাংবাদিক বৈঠকে অধীর চৌধুরীকে প্রশ্ন করা হয়েছিল ভোটের পর কি প্রয়োজনে কংগ্রেস মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)-কে সমর্থন করবে? এর সরাসরি জবাব না দিয়ে অধীর বলেন,”কাল্পনিক প্রশ্নের সময় এটা নয়। আমরা সংযুক্ত মোর্চা নবান্ন দখলের লক্ষ্য এগোচ্ছি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হেরে গেলে কোথায় যাবেন বলতে পারব না।” তার পরে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য “পলিটিক্স ইজ দ্য আর্ট অব পসিবিলিটিস।” অর্থাৎ, রাজনীতি আসলে সম্ভাবনার শিল্প।

২০১১ সালে কংগ্রেসের সমর্থনে ক্ষমতায় আসে তৃণমূল। যদিও রাজনীতির পটভূমি পরিবর্তনে ‘১৬ সালের ভোটে একজোট হয়ে লড়ে বাম ও কংগ্রেস। একুশের ভোটেও বামেদের সঙ্গে নির্বাচনে লড়ছে তারা। পাশে রয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে যোগ দেওয়া নতুন দল আইএসএফ। তিন দলের জোটই তৃণমূল ও বিজেপি দু’দলকেই মূল প্রতিপক্ষ করে ভোট ময়দানে নেমেছে। তবে ভোটের পর প্রয়োজনে তৃণমূলকে সমর্থনের কথা উড়িয়ে দিলেন না খোদ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। পাশাপাশি সনিয়া গান্ধীকে মমতার চিঠি দেওয়ার বিষয়কে কংগ্রেসের নৈতিক জয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

অধীর চৌধুরীর এই মন্তব্য প্রসঙ্গে তৃণমূল মন্ত্রী তাপস রায়ের কটাক্ষ, “এখন এসব ভাববার অবকাশ নেই। কবে মাসির গোঁফ গজাবে তারপর তাকে মামা ডাকবে।” তিনি যোগ করেন, “আমরা সরকার গড়ার জন্য ২০০ আসনের লক্ষ্য নিয়েছি। আর অধীর বললে তো হবে না। সেই জোটের চিন্তা করবেন সনিয়া গান্ধী। তবে অধীররা যে সঙ্কটে পড়েছে তা পরিষ্কার।”

এনিয়ে বিজেপির জয়প্রকাশ মজুমদারের প্রতিক্রিয়া, অধীর চৌধুরীর এই মন্তব্য বুঝিয়ে দিল মানুষের কাছে দুটো বিকল্প। এক তৃণমূল এবং দুই বিজেপি। কংগ্রেস-সিপিএমকে ভোট দেওয়া মানে সেটা নষ্ট হবে। এরা গিয়ে ঠিক তৃণমূলের হাত ধরবে। কটাক্ষ জয়প্রকাশের।

আরও পড়ুন: Exclusive: ‘সিঙ্গুরে শিল্প হবে’, রবীন্দ্রনাথকে পাশে নিয়ে বললেন অমিত শাহ

এখন জোটসঙ্গী দলের সভাপতির এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে সিপিএম নেতৃত্ব কী বলেন সেটাই দেখার।