মৃত্যুর আগে যশ চোপড়ার রিং টোন কী ছিল, জানলে অবাক হবেন!

TV9 বাংলা ডিজিটাল: ২১ অক্টোবর, ২০১২। ৮০ বছর বয়সে প্রয়াত হন বলিউডের প্রথিতযশা প্রযোজক এবং পরিচালক যশরাজ চোপড়া (Yash Raj Chopra)। তাঁর কেরিয়ারে হিট ছবির সংখ্যা অসংখ্য। নিজের প্রযোজিত বা পরিচালিত ছবি ছিল যেন তাঁর সন্তান। তাঁর ছবির গানও (songs) হিট হত খুব। সে সব গানের মধ্যে থেকেই কোনও একটা বেছে নিয়ে মোবাইলের রিং টোন […]

মৃত্যুর আগে যশ চোপড়ার রিং টোন কী ছিল, জানলে অবাক হবেন!
যশরাজ চোপড়া।
স্বরলিপি ভট্টাচার্য

|

Nov 25, 2020 | 12:17 PM

TV9 বাংলা ডিজিটাল: ২১ অক্টোবর, ২০১২। ৮০ বছর বয়সে প্রয়াত হন বলিউডের প্রথিতযশা প্রযোজক এবং পরিচালক যশরাজ চোপড়া (Yash Raj Chopra)। তাঁর কেরিয়ারে হিট ছবির সংখ্যা অসংখ্য। নিজের প্রযোজিত বা পরিচালিত ছবি ছিল যেন তাঁর সন্তান। তাঁর ছবির গানও (songs) হিট হত খুব। সে সব গানের মধ্যে থেকেই কোনও একটা বেছে নিয়ে মোবাইলের রিং টোন হিসেবে ব্যবহার করতে যশরাজ। মৃত্যুর আগেও তাঁর পরিচালিত ছবি ‘বীর জারা’র (veer zaara) একটি গান ছিল তাঁর রিং টোন। সদ্য ছবিটি মুক্তির ১৬ বছর পূর্ণ করল। এই উপলক্ষ্যে এই তথ্য জানিয়েছেন প্রয়াত সুরকার মদনমোহনের ছেলে সঞ্জীব কোহলি।

‘বীর জারা’ বক্স অফিসে লাভের মুখ দেখেছিল। শাহরুখ খান এবং প্রীতি জিন্টার কেমিস্ট্রি পছন্দ করেছিলেন দর্শক। ‘তেরে লিয়ে’ বা ‘দো পল’-এর মতো এই ছবির বিভিন্ন গান তুমুল জনপ্রিয় হয়েছিল। ছবিটি প্রযোজনা করেছিলেন যশরাজ এবং তাঁর ছেলে আদিত্য চোপড়া। সে সময় যশরাজ ফিল্মের সিইও ছিলেন সঞ্জীব। তিনি জানিয়েছেন, ‘তেরে লিয়ে’ গানটি যশের ব্যক্তিগত পছন্দের তালিকার শীর্ষে ছিল। মৃত্যুর আগে পর্যন্ত তাঁর রিংটোনে ছিল সেই গান।

View this post on Instagram

A post shared by Yash Raj Films (@yrf)

সাংবাদিকদের সঞ্জীব বলেন, “২০০৩-এ একদিন যশজি আমাকে বলেন, ছয় বছর পর ফের একটি ছবি পরিচালনা করার কথা ভেবেছেন তিনি। সেখানে তিনি কিছু পুরনো দিনের মিউজিক চান। যার মধ্যে কোনও পাশ্চাত্য প্রভাব থাকবে না। আমি তখন বলেছিলাম, আমার কাছে টেপে রেকর্ড করা কিছু পুরনো মিউজিক রয়েছে। যা আমি গত ২৮ বছর শুনিনি। আদি স্ক্রিপ্ট করেছিল। ও আর যশজি জানতেন, ওঁরা কী চান। তখন ওই পুরনো মিউজিক ওঁরা ব্যবহার করেছিলেন।”

আরও পড়ুন, “মা বিশ্বাসঘাতক, মায়ের কথা বিশ্বাস করো না” প্রকাশ্যে কেন বললেন ঋতাভরী?

‘বীর জারা’র ১৬ বছর পূর্তিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন প্রীতি জিন্টাও। তিনি লিখেছেন, “আমার সিনেমার কেরিয়ারে যশ আঙ্কলের সঙ্গে কাজ করা সত্যিই ভাগ্যের বিষয়। আমি আজীবন কৃতজ্ঞ থাকব। মিস ইউ যশ আঙ্কেল।”

আরও পড়ুন, ‘বালিকা বধূ’র জীবনে নতুন মানুষ! তিনি কে জানেন?

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla