একসঙ্গে যক্ষ্মা-কোভিড, মাত্র ২৯ বছরে মারা গেলেন ‘বিগবস’ খ্যাত নিক্কি তাম্বোলির দাদা

এক বিবৃতিতে নিক্কি লিখেছেন, "আমার দাদার মাত্র ২৯ বছর বয়স হয়েছিল। বহু বছর ধরেই নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিল ও। দিন কুড়ি আগে ওকে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করি।"

  • TV9 Bangla
  • Published On - 21:00 PM, 4 May 2021
একসঙ্গে যক্ষ্মা-কোভিড, মাত্র ২৯ বছরে মারা গেলেন 'বিগবস' খ্যাত নিক্কি তাম্বোলির দাদা
নিক্কি তাম্বোলি। ইনসেটে তাঁর দাদা।

 

তিন দিন আগেও দাদার মঙ্গলকামনায় পুজো দিয়েছিলেন নিক্কি তাম্বোলি। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। কোভিড কেড়ে নিল তাঁর দাদাকে। মাত্র ২৯ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন যতীন তাম্বোলি। করোনা হয়েছিলন যতীন। হয়েছিল যক্ষ্মাও। ছিল কোমরবিডিটিও। হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসাও চলছিল তাঁর। কিন্তু তাঁকে সুস্থ করে আর বাড়ি ফেরানো হল না নিক্কির।

এক বিবৃতিতে নিক্কি লিখেছেন, “আমার দাদার মাত্র ২৯ বছর বয়স হয়েছিল। বহু বছর ধরেই নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিল ও। দিন কুড়ি আগে ওকে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করি। মাত্র একটি ফুসফুসের উপর নির্ভর করেই বেঁচেছিল দাদা। টিবি (যক্ষ্মা) হয়েছিল। হয়েছিল কোভিডও। একই সঙ্গে নিউমোনিয়াতেও আক্রান্ত হয়েছিল দাদা। আজ সকালে ওঁর হৃৎপিণ্ড স্তব্ধ হল।” নিক্কি আরও লেখেন, “ভগবান বহুবার আমাদের পরিবারের প্রতি সদয় হয়েছেন। কিন্তু ওই যে ভাগ্যে যা লেখা থাকে তা তো কেউ আর বদলাতে পারে না। যারা দাদার জন্য প্রার্থনা করেছিলেন তাঁদের সবাইকে ধন্যবাদ। এখন ও ভগবানের হেফাজতে।”

আরও পড়ুন- করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে প্রকাশ পাড়ুকোন, আক্রান্ত স্ত্রী-মেয়েও

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Nikki Tamboli (@nikki_tamboli)


ইনস্টাগ্রামেও দাদার সঙ্গে ছবি শেয়ার করে একটি লম্বা পোস্ট করেছেন নিক্কি। সেখানেও প্রিয়জন হারানো ব্যাকুল হাহাকার। ভালবাসা দিয়েই যদি তোমায় বাঁচানো যেত তবে তুমি চলে যেতে না– দাদাকে লিখেছেন নিক্কি। নিক্কির পোস্টে কমেন্ট করেছেন ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর সহকর্মীরা। সেই তালিকায় রয়েছেন রাহুল মহাজন থেকে শুরু করে আলি গোনি, জসমিন ভাসিন থেকে শুরু করে অনেকেই। এই কঠিন পরিস্থিতিতে নিক্কির পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন ওঁরা।