Ayurveda Tips: রোজ এই ভাবে জল খান, আর্থ্রাইটিস থেকে থাইরয়েড সব থাকবে নিয়ন্ত্রণে!

How much water do I need a day: শরীরের জন্য রোজ পর্যাপ্ত জলের প্রয়োজন। তবে এই ভাবে নিয়ম মেনে জল খেলে একাধিক সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন...

Ayurveda Tips: রোজ এই ভাবে জল খান, আর্থ্রাইটিস থেকে থাইরয়েড সব থাকবে নিয়ন্ত্রণে!
এই ভাবে জল খেলে সুস্থ থাকবেন
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Aug 03, 2022 | 9:21 AM

যে কোনও প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের শরীরের ৬০ শতাংশ জুড়েই থাকে জল। এর মধ্যে আমাদের মস্তিষ্ক, হার্ট, ফুসফুস, ত্বক, কিডনিতেই সবচেয়ে বেশি পরিমাণ জল থাকে। এমনকী হাড়ের মধ্যেও থাকে ফ্লুইড। তাই রোজ পর্যাপ্ত পরিমাণ জল খাওয়া শরীরের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। কারণ শরীরে জলের পরিমাণ কমে গেলে সেখান থেকে একাধিক সমস্যা হতে পারে। হঠাৎ মেজাজ হারানো, কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা, কিডনিতে স্টোন, প্রস্রাবের রং পরিবর্তন হয়ে যাওয়া একাধিক কিছু হতে পারে। প্রস্রাবের রং দেখেও অনেক সমস্যা সহজেই বোঝা যায়। যদি প্রস্রাবের রং হয় গাঢ় হলুদ তাহলে বুঝতে হবে শরীরে জলের পরিমাণ একেবারেই কম। এছাড়াও নিয়মিত ভাবে যাঁরা কার্বোনেটেড ড্রিংক খান, সোডা খান, মিষ্টি দেওয়া চা খান তাঁদের মধ্যেও কিন্তু দেখা যায় এই জল শূন্যতা। তাই আগে থেকেই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

জল আমাদের শরীরের স্বাভাবিক তাপমাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন জয়েন্টের মধ্যে ভারসাম্য রক্ষা, মেরুদণ্ড এবং অন্যান্য সংবেদনশীল টিস্যুকে রক্ষা করা, ঘাম, মল-সহ শরীরের স্বাভাবিক রেচনক্রিয়াতে ভূমিকা আছে জলের। আর তাই মেপে জল খেতেই হবে। জল ঠিকমতো না খেলে শরীরে একাধিক সমস্যা হতে পারে। শরীরে অতিরিক্ত টক্সিন জমে যায়। এভাবে জল খেতে পারলে শরীরের হাজারটা রোগ সেরে যাবে।

আজকাল অনেকেই থাইরয়েডের সমস্যায় ভুগছেন। শরীরে থাইরয়্ড হরমোনের তারতম্য হলে সেখান থেকে একাধিক অসুবিধে হতে পারে। এক্ষেত্রে দারুণ কার্যকরী তামার জল। থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে তামার পাত্রে জল রেখে খাওয়া অভ্যাস করুন। একঘটি তামার জল রোজ সকালে খালি পেটে খেলে উপকার পাবেন।

জয়েন্ট এবং আর্থ্রাইটিসের ব্যথাতেও কার্যকরী জল। তামা আমাদের শরীরে অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি হিসেবে কাজ করে। যে কারণে তামা আর্ত্রাইটিসে ভোগা ব্যক্তিদের জন্য খুবই উপকারী। যে কোনও রকম জয়েন্টের ব্যথা কমাতে এর জুড়ি মেলা ভার।

যাঁদের হজমের সমস্যা রয়েছে, প্রায়শই গ্যস অম্বল লেগে থাকে তাঁরাও খেতে পারেন এই জল। পেচের জ্বালা কমা, পেটের ক্ষতিকর জীবাণুর হাত থেকে রক্ষা করে। বিপাক ক্রিয়া ভাল করতে এই তামার জলের জুড়ি মেলা ভার। এছাড়াও তামার পাত্রে রাখা জল খেলে কমে হৃদরোগের ঝুঁকি। কারণ তামা আমাদের রক্তনালী প্রসারিত করতে সাহায্য করে।

এই খবরটিও পড়ুন

তামার জলের অন্যতম উপকারিতা হল এর মধ্যে রয়েছে ফ্রি র‌্যাডিক্যাল। যা বিভিন্ন ক্ষতিকারক প্রভাব থেকে আমাদের শরীরকে রক্ষা করে। যে কারণে বার্ধক্যজনিত সমস্যা অনেক কম আসে। সবথেকে ভাল, তামার পাত্রে রাখা জল আমাদের মেটাবলিজম বাড়িয়ে দেয়। এর ফলে ওজন কমে দ্রুত। পাশাপাশি শরীরে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বজায় রাখা, বিভিন্ন সংক্রমণ কমাতে এবং শরীরকে সার্বিক ভাবে সুস্থ রাখতে ভূমিকা রয়েছে এই তামার জলের।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla