Osteoporosis: ঋতুবন্ধের দোরগোড়ায় পৌঁছে গিয়েছেন? বাতের ব্যথা অবহেলা করবেন না

Menopause: আপনি যতই মেনোপজের লক্ষণগুলো উপেক্ষা করুন না কেন, বাতের ব্যথা আপনার পিছু ছাড়ছে না। যদিও অস্টিওপোরোসিসের নেপথ্যে রয়েছে মেনোপজই।

Osteoporosis: ঋতুবন্ধের দোরগোড়ায় পৌঁছে গিয়েছেন? বাতের ব্যথা অবহেলা করবেন না
অস্টিওপোরোসিসের নেপথ্যে রয়েছে মেনোপজ।
Image Credit source: istockphoto.com
TV9 Bangla Digital

| Edited By: megha

May 06, 2022 | 8:57 AM

বয়স ৫০ পেরিয়েছে কিংবা ৫০ ছুঁই ছুঁই। ইতিমধ্যেই শরীরে দেখা দিয়েছে মেনোপজের উপসর্গ। আবার অনেকের হয়তো ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে ঋতুবন্ধ। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে বেশি মাথা ব্যথা নেই মেনোপজের (Menopause) লক্ষণগুলি নিয়ে। ভাবছেন কোনওভাবে বিষয়টা চালিয়ে নেওয়া যাবে, ঠিক এতদিন যে ভাবে প্রতি মাসে ঋতুস্রাবের সময় নিজেকে সামলে নিয়েছি। তবে এখন আপনার অন্য চিন্তা। এখন আপনাকে বেশি কষ্ট দিচ্ছে গাঁটের ব্যথা (Joint Pain)। উঠতে বসতে শরীরের গাঁটে গাঁটে ব্যথা হচ্ছে। একটু কাজ করলেই শুরু হয়ে যাচ্ছে বাতের যন্ত্রণা। ভাবছেন এত নিয়মের মধ্যে থাকা সত্ত্বেও কীভাবে ক্ষয় ধরল হাড়ে! কিন্তু বাতের ব্যথার নেপথ্যে রয়েছে মেনোপজই।

হ্যাঁ, ঠিকই পড়লেন। অস্টিওপোরোসিস পুরুষ ও মহিলা উভয়ের ক্ষেত্রেই লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু এই ক্ষেত্রে মহিলাদের সংখ্যাটা একটু বেশি। বিশেষত যে সব মহিলার বয়স ৫০ এর বেশি, যাঁরা ইতিমধ্যেই মেনোপজের মত শারীরিক অবস্থায় পৌঁছে গেছেন, তাঁদের মধ্যে বেশি এই রোগ দেখা যায়। অন্যদিকে, পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের হাড়ে কম ঘনত্ব, গঠনের তারতম্যের কারণে এই সমস্যা বেশি লক্ষ্য করা যায়। উপরন্ত, মহিলাদের মধ্যে হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোক এবং স্তন ক্যান্সারের চেয়ে অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি রয়েছে।

অস্টিওপোরোসিস হল এমন একটি শারীরিক অবস্থা যেখানে প্রভাব পড়ে হাড়ের ওপর। এই রোগে আক্রান্ত হলে ক্ষয় হতে শুরু করে হাড়, ভঙ্গুর হয়ে যায় হাড় যার ফলে সহজেই ভেঙে যায় বা ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এই রোগ থেকে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠা সম্ভব হয় না। অন্যদিকে, প্রাথমিক ভাবে মেরুদন্ড বা কব্জির মত জায়গায় ফ্যাকচার হলে তখনই এই রোগ নির্ণয় করা যায়।

কিন্তু মহিলাদের সমস্যা হল অন্য জায়গায়। যতক্ষণ না হাড় ভেঙে যায়, মহিলারা এই রোগ সম্পর্কে অবগত হন না। বিশেষত মেনোপজের সময় হাড়ের এই ক্ষয় বেশি লক্ষ্য করা যায়। হাড়ের ঘনত্ব‌ বেশি থাকলে ক্যান্সারের মত রোগের ঝুঁকিও কমে যায়। তাই এটা ভীষণ জরুরি জানা যে মেনোপজের সময় আপনার শরীরে কী কী পরিবর্তন হচ্ছে এবং এই সময় আপনার হাড় কতটা ভাল আছে।

এখানে বিশেষ ভূমিকা পালন করে ইস্ট্রোজেন হরমোন। এই হরমোন পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের মধ্যে বেশি পরিমাণে থাকে এবং এই ইস্ট্রোজেন হরমোনের কারণে মহিলাদের মধ্যে হাড়ের ঘনত্ব বজায় থাকে। মেনোপজের পর মহিলাদের মধ্যে এই হরমোনের পরিমাণ ব্যাপক ভাবে কমতে শুরু করে। যার ফলে মেনোপজের ১০ বছর পরে হাড়ে চোট পেলে অনায়াসে তা ভেঙে যায়।

এই খবরটিও পড়ুন

মেনোপজকে কোনও ভাবেই আপনি প্রতিরোধ করতে পারবেন না, এটা একটি শারীরিক প্রক্রিয়া। কিন্তু আপনি অস্টিওপোরোসিসকে প্রতিরোধ করতে পারবেন, হাড়কে মজবুত ও শক্তিশালী করতে তুলতে পারবেন। এর জন্য দরকার সঠিক পুষ্টি। এই পুষ্টি আপনাকে খাদ্যের মাধ্যমেই গ্রহণ করতে হবে। আপনি এর জন্য ক্যালসিয়াম যুক্ত খাবার খান। ক্যালসিয়ামের পাশপাশি দরকার ভিটামিন ডি, যেটা আপনি সবচেয়ে বেশি পাবেন সূর্যের আলো থেকে। নিয়মিত যোগব্যায়াম করাও এর সঙ্গে খুব জরুরি।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla