রাজধানীতে রেকর্ড সংক্রমণ! শহরের হাসপাতালের ৮০ শতাংশ আইসিইউ বেড সংরক্ষণের নির্দেশ আদালতের

TV9 বাংলা ডিজিটাল: দৈনিক সংক্রমণ একই দিনে ৮০০০+। দিল্লিতে  (Delhi) রেকর্ড সংক্রমণ করোনা। করোনার (Corona) উর্ধ্বোমুখী গ্রাফচিত্র দেখে দিল্লি সরকারকে আদালতের (Delhi High Court)  পরামর্শ, শহরের বেসরকারি হাসপাতালের ৮০ শতাংশ আইসিইউ (ICU) বেড করোনা আক্রান্ত রোগীর জন্য সংরক্ষিত রাখতে। রাজধানীর প্রতি চার জনের মধ্যে এক জন করে করোনায় আক্রান্ত। রাজধানীর সেরো সার্ভে রিপোর্ট অনুযায়ী, শহরের […]

রাজধানীতে রেকর্ড সংক্রমণ! শহরের হাসপাতালের ৮০ শতাংশ আইসিইউ বেড সংরক্ষণের নির্দেশ আদালতের
ফাইল চিত্র।
শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

| Edited By: সোমনাথ মিত্র

Nov 21, 2020 | 11:55 AM

TV9 বাংলা ডিজিটাল: দৈনিক সংক্রমণ একই দিনে ৮০০০+। দিল্লিতে  (Delhi) রেকর্ড সংক্রমণ করোনা। করোনার (Corona) উর্ধ্বোমুখী গ্রাফচিত্র দেখে দিল্লি সরকারকে আদালতের (Delhi High Court)  পরামর্শ, শহরের বেসরকারি হাসপাতালের ৮০ শতাংশ আইসিইউ (ICU) বেড করোনা আক্রান্ত রোগীর জন্য সংরক্ষিত রাখতে।

রাজধানীর প্রতি চার জনের মধ্যে এক জন করে করোনায় আক্রান্ত। রাজধানীর সেরো সার্ভে রিপোর্ট অনুযায়ী, শহরের প্রায় প্রতিটি বাড়ির কোনও না কোনও সদস্য করোনায় আক্রান্ত। বুধবার এই রিপোর্ট দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি হিমা কোহলি ও সুব্রহ্মমনিয়াম স্বামীর বেঞ্চে পেশ করা হয়।

এই রিপোর্ট দেখার পর আদালতের পর্যবেক্ষণ, শহরের ৩৩ টি বেসরকারি হাসপাতালের ৮০ শতাংশ আইসিইউ বেড সংরক্ষিত করা হোক। শহরের বেসরকারি হাসপাতালগুলির মোট ১২৮৩ টি আইসিইউ বেডের মধ্যে ১১১৯ টি বেড অর্থাত প্রায় ৮৭ শতাংশ ভর্তি। বাকি রয়েছে ১৬৪ টি বেড। এইভাবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা অত্যন্ত কঠিন বলে মন্তব্য করেন বিচারপতি। সরকারি হাসপাতালগুলির ক্ষেত্রে ৮০৯ টি আইসিইউ বেডের মধ্যে মাত্র ৯৯ টি ফাঁকা রয়েছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে একটিও আইসিইউ বেড খালি নেই।

এদিক স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫৯৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮৫ জনের। সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষ ৫৯ হাজার ৯৭৫ জন। গত কয়েকদিনে সংক্রমণের হারে মহারাষ্ট্র ও কেরলকে ছাপিয়ে গিয়েছে দিল্লি। হাইকোর্টে ভর্ত্সনার মুখে পড়তে হয়েছে কেজরিবাল সরকারকে। কেন সরকার লকডাউন শিথিল করল, তা জানতে চায় আদালত। সংক্রমণে লাগাম টানতে রাজ্য সরকার কী কী পদক্ষেপ করেছে, তাও জানতে চায় আদালত।

দিল্লি স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দর জৈন জানিয়েছেন, রাজধানীতে করোনার তৃতীয় ঢেউ চলছে। আগামী কয়েকদিনে সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে বলে আশাবাদী তিনি। কোভিড টেস্ট কেন্দ্রগুলির উদ্দেশে নয়া নির্দেশিকা জারি করেছে দিল্লি সরকার।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla