Coal India: নন-পাওয়ার সেক্টরে সাময়িক ভাবে কয়লা সরবরাহ বন্ধের সিদ্ধান্ত কোল ইন্ডিয়ার

Coal Shortage: একের পর এক রাজ্য অভিযোগ তুলছিল কয়লা ও বিদ্যুৎ সঙ্কটের।

Coal India: নন-পাওয়ার সেক্টরে সাময়িক ভাবে কয়লা সরবরাহ বন্ধের সিদ্ধান্ত কোল ইন্ডিয়ার
কিছুদিন আগেই কোল ইন্ডিয়া জানিয়েছিল দেশে কয়লার কোনও সঙ্কট নেই। প্রতীকী ছবি।

নয়া দিল্লি: কয়লা সঙ্কট ((Coal India)) নিয়ে যখন বিভিন্ন রাজ্য নানা দাবি-অভিযোগ তুলে ধরছে, তারই মধ্যে সামনে এল নয়া খবর। সূত্রের খবর, সাময়িক ভাবে নন-পাওয়ার সেক্টরে কয়লা সরবরাহ বন্ধ করল কোল ইন্ডিয়া। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের খবর অনুযায়ী, ১৪ অক্টোবর সংস্থার তরফে একটি বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ওই সংবাদ সংস্থার দাবি, কোল ইন্ডিয়ার এই পরিকল্পনা একেবারেই সাময়িক। উদ্ভূত সমস্যার সমাধান হলেই আবার পুরনো অবস্থা ফিরবে। যদিও এ নিয়ে সরকারি ভাবে কোন মন্তব্য এখনও করা হয়নি। যদিও বুধবারই কেন্দ্রীয় কয়লা, খনি ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী দেশের বিভিন্ন কয়লা খনি থেকে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে কয়লা সরবরাহের বৃদ্ধির বিষয় নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

টুইটে প্রহ্লাদ জোশী লিখেছেন, কোল ইন্ডিয়া লিমিটেড-সহ অন্যান্য কয়লা সরবরাহকারী সংস্থাগুলি থেকে একদিনে ২০ লক্ষ টনেরও বেশি কয়লা সরবরাহ করা হয়েছে। বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলিতে কয়লার পর্যাপ্ত মজুত সুনিশ্চিত করতে আরও বেশি পরিমাণে কয়লা সরবরাহ করা হবে।

বেশ কিছু কয়লা খাদান বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে এবং বেশ কিছু খাদানে প্রবল বর্ষণের জেরে সাময়িক সমস্যা তৈরি হলেও এ নিয়ে উদ্বেগের কোনও কারণ নেই বলে ইতিমধ্যেই জানিয়েছে কেন্দ্র। ধীরে ধীরে পরিস্থিতির যে বদল হচ্ছে কয়লা মন্ত্রীর দাবিতেও সে ইঙ্গিতই প্রচ্ছন্ন।

সূত্রের খবর, গত কয়েকদিন ধরে কেন্দ্রের মজুত করা কয়লার পরিমাণ আরও বাড়ানো শুরু হয়েছে। রাজ্যগুলির থেকে যেমন চাহিদা আসছে, তা পূরণ করে দিচ্ছে কেন্দ্র। বিশাল অঙ্কের টাকা বকেয়া থাকা সত্ত্বেও কোনও রাজ্যের কয়লার জোগান আটকে নেই। রাজ্যগুলি থেকে সবমিলিয়ে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে কোল ইন্ডিয়ার। এক মাসের মধ্যেই পরিস্থিতি আবার আগের মতো হয়ে যাবে। বিদ্যুৎ বা কয়লা সরবরাহের ক্ষেত্রে যে সঙ্কটের আশঙ্কা করা হচ্ছিল, তেমন কোনও সঙ্কটের পরিস্থিতি নেই বলেই সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানিয়েছে ওই সূত্র।

ওই সূত্র আরও জানিয়েছে, কয়লা মন্ত্রক জানুয়ারি মাস থেকে কোল ইন্ডিয়া থেকে স্টক সংগ্রহের জন্য রাজ্যগুলিকে লিখছে, কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও সাড়া পায়নি। কোল ইন্ডিয়া শুধুমাত্র একটি সীমা পর্যন্ত স্টক করতে পারে। কারণ, অতিরিক্ত মজুত করলে তা উল্টে সমস্যা করতে পারে। ঝাড়খণ্ড, রাজস্থান এবং পশ্চিমবঙ্গে কয়লার খনি রয়েছে, কিন্তু সেখানে কয়লা উত্তোলনে তেমন গতি ছিল না।

কেন্দ্রের ওই সূত্র জানিয়েছে, রাজ্যগুলি নিজেরা তেমনভাবে কয়লা উত্তোলন করছিল না। আর কোল ইন্ডিয়া বারবার বলা সত্ত্বেও রাজ্যগুলি কয়লার স্টক নিচ্ছিল না। আর এটা আজকের এই পরিস্থিতির একটা বড় কারণ।

আরও পড়ুন: Fire: আবাসিক ভবনে ভয়াবহ আগুন! মৃত্যু ৪৬ জনের, বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla