GST Council: মুড়ি, আটা, দই, লস্যিতেও কর! আর কী কী পরিবর্তন করল জিএসটি কাউন্সিল

GST Council: মঙ্গলবার (১৮ জুন) বেশ কয়েকটি পণ্য ও পরিষেবার করের হার পরিবর্তন করল জিএসটি কাউন্সিল। পাশাপাশি সোনা এবং মূল্যবান পাথরের আন্তঃ-রাজ্য পরিবহণের জন্য ই-ওয়ে বিল জারি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

GST Council: মুড়ি, আটা, দই, লস্যিতেও কর! আর কী কী পরিবর্তন করল জিএসটি কাউন্সিল
এপ্রিলের রেকর্ডের পর ১৬ শতাংশ কমল সংগ্রহ
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

Jun 28, 2022 | 8:14 PM

নয়া দিল্লি: মঙ্গলবার (১৮ জুন) বেশ কয়েকটি পণ্য ও পরিষেবার করের হার পরিবর্তন করল জিএসটি কাউন্সিল। পাশপাশি সোনা এবং মূল্যবান পাথরের আন্তঃ-রাজ্য চলাচলের জন্য একটি ই-ওয়ে বিল জারি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। করমুক্ত বেশ কয়েকটি পণ্যকে, নতুন করে কর ব্যবস্থার আওতায় আনা হয়েছে। ভোজ্য তেল, কয়লা, এলইডি ল্যাম্প, প্রিন্টিং কালি, ছুরি এবং সোলার ওয়াটার হিটারের মতো বেশ কিছু পণ্যের শুল্ক কাঠামো সংশোধনও করা হয়েছে। সূত্রের খবর, এর পাশাপাশি কর ফাঁকি রোধ করতে করদাতাদের বায়োমেট্রিক প্রমাণীকরণ, বিদ্যুৎ বিল তথ্য অন্তর্ভুক্ত করা, একটি নির্দিষ্ট প্যান কার্ড এবং জিও-ট্যাগিংয়ের প্রেক্ষিতে সমস্ত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের রিয়েল-টাইম বৈধতা যাচাইয়ের মতো ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

কর ও কর কাঠামোর সংশোধনের জন্য কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোমাইয়ের নেতৃত্বে, বিভিন্ন রাজ্যের অর্থমন্ত্রীদের একটি গোষ্ঠীকে একটি প্রতিবেদন পেশ করতে বলা হয়েছিল। মন্ত্রী গোষ্ঠীর দেওয়া এই অন্তর্বর্তী প্রতিবেদন এদিন জিএসটি কাউন্সিলে অনুমোদিত হয়েছে। চামড়াজাত পণ্য, মাটির ইট তৈরির পরিষেবার করের হার ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১২ শতাংশ করা হয়েছে। এলইডি আলো, কালি, ছুরি, ব্লেড, বিদ্যুতচালিত পাম্প, চামচ, কাঁটা চামচ, দুগ্ধ শিল্পে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতির উপর জিএসটির হার ১২ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১৮ শতাংশ করার সুপারিশ করা হয়েছে। মুড়ি, গমের আটা, দই, লস্যির মতো খাদ্যপণ্যগুলিকে প্যাকেট করা খাদ্যপণ্যের আওতায় ফেলা হয়েছে। অর্থাৎ, এই খাদ্য পণ্যগুলির উপর এখন থেকে ৫ শতাংশ হারে কর দিতে হবে।

পাশাপাশি, যেসব হোটেলে থাকার দিন প্রতি খরচ ১০০০ টাকার নিচে, সেই হোটেলগুলির জিএসটি ছাড় প্রত্যাহার করা হয়েছে। এখন থেকে এই হোটেলগুলিতেও থাকতে গেলে ১২ শতাংশ কর দিতে হবে। আইসিইউ বাদে, হাসপাতালের যেসব কক্ষের ভাড়া ৫,০০০ টাকার উপরে, সেগুলির উপরও ৫ শতাংশ জিএসটি ধার্য করা হয়েছে। পোস্টকার্ড, ইনল্যান্ড লেটার, বুক পোস্ট এবং ১০ গ্রামের কম ওজনের খাম বাদ দিয়ে, পোস্ট অফিসের অন্যান্য পরিষেবার উপর কর ধার্য করার সুপারিশ করা হয়েছে। আবাসিক ও বাণিজ্যিক ব্যবহারের বাসস্থান ভাড়া দেওয়ার ক্ষেত্রে কর ছাড়ও প্রত্যাহার করা হয়েছে।

জিএসটি কাউন্সিলের দ্বিতীয় দিনে আলোচনা হবে, রাজ্যগুলিকে সিএসটি ক্ষতিপূরণ দেওয়া এবং ক্যাসিনো, অনলাইন গেম এবং ঘোড়দৌড়ের উপর ২৮ শতাংশ কর ধার্য করার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি নিয়ে। বিশেষ করে অবিজেপি শাসিত রাজ্যগুলি জিএসটি ক্ষতিপূরণ ব্যবস্থার মেয়াদ বাড়ানোর দাবি করেছে। বিকল্প হিসেবে তারা জিএসটি রাজস্বে রাজ্যের প্রাপ্য অংশ ৫০ শতাংশ থেকে বাড়ানোর দাবি করা হয়েছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla