Video: দুটি কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা, ভিডিয়োও পোস্ট তরুণের

Video: গাছ থেকে ঝুলছে কুকুরছানার দেহ, আরেকটি ছুড়ে দেওয়া হল শূন্যে। এরকমই নৃশংসভাবে দুই কুকুরছানাকে হত্যা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিয়ো পোস্ট করেছে হায়দরাবাদের তরুণ। মৃত কুকুরের মরদেহ এবং নিরীহ মুখের ছবিও ভিডিয়ো করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন অভিযুক্ত।

Video: দুটি কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা, ভিডিয়োও পোস্ট তরুণের
ছবি সৌজন্যে : ইনস্টাগ্রাম
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Nov 21, 2022 | 1:30 AM

হায়দরাবাদ: যত দিন যাচ্ছে, সমাজ উন্নত হচ্ছে, ততই যেন জনমানসে নৃশংসতা বেড়ে চলেছে। মানুষের নৃশংসতার হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না নিরীহ পশুরাও। এবার এক কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা করার ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এল। শুধু হত্যা করা নয়, কুকুরছানাকে হত্যা করার পর মৃতদেহেরও ভিডিয়ো করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন অভিযুক্ত তরুণ। শিহরণ জাগানো ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদে।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ওই তরুণ হায়দরাবাদের কাত্তেদান এলাকার বাসিন্দা। ১৯ বছর বয়সি ওই তরুণ দুটি কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, কুকুরছানা দুটি নৃশংসভাবে হত্যা করার ঘটনা এবং হত্যার পর মরদেহের ছবি তিনি নিজেই ভিডিয়ো করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন।

ভিডিয়োগুলিতে ঠিক কী দেখা যাচ্ছে?

প্রথম ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি কুকুরছানার গলায় দড়ি বাঁধা এবং তারপর কুকুরছানাটি একটি গাছ থেকে ঝুলছে। অপর একটি ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, একটি বাড়ির চারতলার বারান্দা থেকে একটি কুকুরছানাকে শূন্যে ছুড়ে দেওয়া হয়েছে। ওই কুকুরছানাটির মুখের ছবিও আলাদা করে ভিডিয়োটিতে দেখানো হয়েছে। তারপর কুকুরছানাটির মরদেহ মাটিতে পড়ে থাকার ঘটনাও আলাদা একটি ভিডিয়ো করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছে।

দুটি কুকুরছানাকে নৃশংসভাবে হত্যা করার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই হায়দরাবাদের দুই পশুপ্রেমী সংগঠন, স্ট্রে ফাউন্ডেশন অফ অ্যানিম্যালস এবং সিটিজেন ফর অ্যানিম্যাল ফাউন্ডেশন মাইলারদেবপল্লি থানায় ওই তরুণের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। নৃশংসভাবে পশু হত্যার জন্য ওই তরুণের ৫ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে বলে জানিয়েছেন সিটিজেন ফর অ্যানিম্যাল ফাউন্ডেশনের প্রধান আদুলাপুরম গৌথাম। তাঁর দাবি, ওই তরুণ মাদক সেবন করত এবং মাদক সেবন করেই এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড করেছে।

পশুপ্রেমী সংগঠনের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ওই তরুণকে গ্রেফতারও করে মাইলারদেবপল্লি থানার পুলিশ। তার বিরুদ্ধে পশুহত্যা এবং পশুদের উপর নৃশংসতা আইনের ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে মাইলারদেবপল্লি থানা সূত্রে খবর। যদিও গ্রেফতার হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই জামিনে মুক্ত হয়ে যায় অভিযুক্ত। মাইলারদেবপল্লি থানার ইন্সপেক্টর পি মধু জানান, অভিযুক্ত ওই তরুণ মানসিক রোগী। তার কাউন্সিলিং চলছে। সে মাদক নিত বলেও প্রমাণিত হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি দিল্লিতে শ্রদ্ধা ওয়াকার হত্যাকাণ্ডে তোলপাড় চলছে দেশজুড়ে। শ্রদ্ধাকে নৃশংসভাবে হত্যা করে দেহ ৩৫ টুকরো করে দীর্ঘদিন ফ্রিজে সংরক্ষণ করে রেখেছিল তাঁর প্রেমিক আফতাব আমিন পুনাওয়ালা। কেউ তার গার্লফ্রেন্ডকে এভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করতে পারে, তা এককথায় অবিশ্বাস্য। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে, আফতাবও মাদক সেবন করত। এই ঘটনার পর পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বারুইপুরেও ছেলের হাতে বাবার নৃশংস হত্যাকাণ্ডের ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। এরা দুজনেই মানসিকভাবে সুস্থ নয় বলে মনোবিদদের দাবি। অর্থাৎ বর্তমানে মানসিক অসুস্থতার হার যে বেড়ে চলেছে, তা পরপর এই ঘটনাতেই স্পষ্ট।

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla