Jhalda Municipality: ‘সুপ্রিম’ দুয়ারে ঝালদা পুরসভার চেয়ারম্যান, কী বললেন প্রধান বিচারপতি?

Jhalda: ঝালদা পৌরসভার চেয়ারম্যানের তরফে শীর্ষ আদালতে সওয়াল করেন দুই আইনজীবী আর বসন্ত এবং সুহান মুখোপাধ্যায়। কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁরা শীর্ষ আদালতের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করেন।

Jhalda Municipality: 'সুপ্রিম' দুয়ারে ঝালদা পুরসভার চেয়ারম্যান, কী বললেন প্রধান বিচারপতি?
ফাইল চিত্র
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Nov 21, 2022 | 10:55 PM

সুদেষ্ণা ঘোষাল

ঝালদা পৌরসভার অচলাবস্থা নিয়ে হাইকোর্টের নির্দেশের প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করে সোমবার শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হলেন পৌরসভার চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার আগরওয়াল। সোমবার সুপ্রিম কোর্টে মামলার ডায়েরি নম্বর অনুসারে তা মেনশন করা হয় প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের বেঞ্চে৷ প্রধান বিচারপতি বেঞ্চে শুনানি হয় দুপুর ২টোয়। ঝালদা পৌরসভার চেয়ারম্যানের তরফে শীর্ষ আদালতে সওয়াল করেন দুই আইনজীবী আর বসন্ত এবং সুহান মুখোপাধ্যায়। কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁরা শীর্ষ আদালতের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করেন।

এর পরেই সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের প্রতিলিপি দেখতে চান। দুই আইনজীবী জানান, রায়ের প্রতিলিপি তখনও পর্যন্ত হাইকোর্টের ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়নি। এর পরেই প্রধান বিচারপতি চন্দ্রচূড় জানান, রায়ের প্রতিলিপি ছাড়া তাঁর পক্ষে মামলার শুনানি করা সম্ভব নয়। পৌরসভার চেয়ারম্যানের পক্ষের দুই আইনজীবী আর বসন্ত এবং সুহান মুখোপাধ্যায় জানান যে, ২৩ নভেম্বর কলকাতা হাইকোর্টে ঝালদা সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানি রয়েছে৷

শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি জানান, তিনি আশা করছেন কলকাতা হাইকোর্ট প্রাসঙ্গিক আদেশ দেবে। সঙ্গে প্রধান বিচারপতি তাঁর পর্যবেক্ষণে এও জানান, প্রয়োজনে সেই আদেশকে আইনি পথে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারবেন শীর্ষ আদালতের আবেদনকারী ঝালদা পৌরসভার চেয়ারম্যান।

প্রসঙ্গত, এর আগে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অমৃতা সিনহার একক বেঞ্চের নির্দেশ ছিল ২১ নভেম্বরই আস্থা ভোট হবে ঝালদা পুরসভায়। সেই মতো এদিন ঝালদা পুরসভায় আস্থাভোট হয়েছিল। আর সেখানে ঝালদা পুরসভা হাতছাড়া হয় তৃণমূলের। আস্থা ভোটে তৃণমূলকে ছাপিয়ে পুরসভার দখল নেয় কংগ্রেস। দুই নির্দল কাউন্সিলের সমর্থন যায় কংগ্রেসের সঙ্গে।

উল্লেখ্য, অক্টোবর মাসে ঝালদার পুরসভার চেয়ারম্যান সুরেশ আগরওয়ালের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিলেন বিরোধীরা। পাঁচ কংগ্রেস কাউন্সিলর এবং এক জন নির্দল কাউন্সিলর অর্থাৎ মোট ছ’জন কাউন্সিলর অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিলেন।  এর আগে ঝালদা পুরসভার যখন নির্বাচন হয়েছিল, তখন ফলাফলে ত্রিশঙ্কু হয়েছিল। ঝালদায় মোট ১২ টি আসন। তার মধ্যে তৃণমূল ও কংগ্রেস পেয়েছিল পাঁচটি করে। বাকি দুটি পেয়েছিল নির্দল। ওই সময়ে নির্দলদের সমর্থন ছিল তৃণমূলের সঙ্গে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla