Maharashtra Arms Recovered: ব্যারিকেড ভেঙে পালাচ্ছিল SUV গাড়ি, দরজা খুলতেই চোখ কপালে উঠল পুলিশের….

Maharashtra Arms Recovered: ব্যারিকেড ভেঙে পালাচ্ছিল SUV গাড়ি, দরজা খুলতেই চোখ কপালে উঠল পুলিশের....
উদ্ধার হওয়া অস্ত্র সহ ধৃত ব্যক্তিরা। ছবি:ANI

Maharashtra Arms Recovered: ধুলে জেলার শিরপুর এলাকা থেকে ওই গাড়িটিকে আটক করা হয়েছে। গাড়িটি ধুলের উদ্দেশে যাচ্ছিল বলেই জানা গিয়েছে। গাড়ির ভিতর থেকে মোট ৮৯টি তলোয়ার ও একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Apr 28, 2022 | 2:37 PM

মুম্বই: নিয়ম মাফিকই শহরের প্রবেশপথে চলছিল নাকা চেকিং। আচমকাই একটি গাড়ি  ব্যারিকেড ভেঙে পালায়। সঙ্গে সঙ্গে ধাওয়া করে পুলিশ। প্রায় মাইল খানেক ধরে ইঁদুর দৌড় করানোর পর অবশেষে পুলিশের জালে ধরা পড়ে গাড়িটি। গাড়ির পিছনের দরজা খুলতেই চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের। দেখা গেল থরে থরে সাজানো রয়েছে তলোয়ার। এদিন সকালে মহারাষ্ট্র পুলিশ মুম্বই থেকে ৩০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ধুলে জেলা থেকে ওই গাড়িটিকে আটক করে। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্যে। বিজেপি বিধায়ক রাম কদমের দাবি, কংগ্রেস শাসিত রাজস্থান থেকেই রাজ্যে এই অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আসা হচ্ছিল। রাজ্যে কোনও অশান্তি ছড়ানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল বলেও দাবি করেন তিনি।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধুলে জেলার শিরপুর এলাকা থেকে ওই গাড়িটিকে আটক করা হয়েছে। গাড়িটি ধুলের উদ্দেশে যাচ্ছিল বলেই জানা গিয়েছে। গাড়ির ভিতর থেকে মোট ৮৯টি তলোয়ার ও একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে। নগদ ৭ লক্ষেরও বেশি টাকাগাড়িতে যে চারজন ছিলেন, তাদেরও গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃত ব্যক্তিদের নাম মহম্মদ শরিফ মহম্মদ শাফিক (৩৫), শেখ ইলিয়াস শেখ লতিফ (৩২), সায়দ নাইম সায়েদ রহিম (২৯) ও কপিল দাভাড়ে (৩৫)। তারা সকলেই জালনা জেলার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সোনগির পুলিশ স্টেশনে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। অস্ত্র আইন ও মোটর ভেহিকেলস আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মহারাষ্ট্র পুলিশের সুপারিন্টেন্ডেন্ট প্রবীণ কুমার পাটিল জানান, রাজস্থানের চিত্তোরগড় থেকে এসইউভি গাড়িটি আসছিল। ধুলে জেলাতেই যাওয়ার কথা ছিল ওই গাড়িটির। গোপন সূত্রে আগে থেকেই খবর পেয়ে পুলিশ নাকা চেকিং শুরু করে। সোনগির গ্রামের কাছে গাড়িটিকে ধাওয়া করে আটক করা হয়।

এই ঘটনাটি সামনে আসার পরই রাজ্যের বিজেপি বিধায়ক রাম কদম দাবি করেন, কংগ্রেস শাসিত রাজস্থান থেকে অস্ত্রগুলি আনা হয়েছে। বড় কোনও অশান্তির ছক কষা হচ্ছিল নিশ্চয়ই, সেই কারণেই এত সংখ্য়ক অস্ত্র মজুত করা হচ্ছিল রাজ্যে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণেরও দাবি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের কাছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA