COVID Vaccination: মেয়েকে কোভিড টিকা দেওয়ার ‘শাস্তি’! স্বাস্থ্যকর্মীকে বেধড়ক পেটালেন বাবা

Haryana: পুলিশে দায়ের করা অভিযোগে ওই স্বাস্থ্যকর্মী জানিয়েছেন, মায়ের সম্মতিতে আশাকর্মীদের উপস্থিতিতেই টিকা দেওয়া হয়েছিল।

COVID Vaccination: মেয়েকে কোভিড টিকা দেওয়ার ‘শাস্তি’! স্বাস্থ্যকর্মীকে বেধড়ক পেটালেন বাবা
প্রতীকী ছবি
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Angshuman Goswami

Aug 04, 2022 | 9:00 AM

হরিয়ানা: দেশের বিভিন্ন রাজ্য করোনাভাইরাসের প্রকোপ ফের মাথাচাড়া দিতেই কোভিড টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ায় গুরুত্ব দিতে রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। সেই মতো বিভিন্ন রাজ্যে চলছে বুস্টার ডোজ দেওয়ার কর্মসূচি। পাশাপাশি যে সমস্ত গ্রামীণ এলাকায় এখনও টিকা নেয়নি অনেকে। তাঁদরকেও টিকা দিচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। এ রকমই এক গ্রামে টিকা প্রদান ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে টিকা দিতে গিয়েছিলেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। সেই টিকা কেন্দ্রে মা তাঁর মেয়েকে নিয়ে এসেছিলেন টিকা দেওয়ানোর জন্য। সেই মতো মেয়েটিকে টিকাও দিয়েছিলেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু তার পরই বিপত্তি। মেয়েকে টিকা নেওয়ার খবর পেয়েই টিকাকেন্দ্রে চলে আসেন মেয়েটির বাবা। এসেই শুরু জুড়ে দেন চিৎকার। স্বাস্থ্যকর্মীকে মারধরের অভিযোগও উঠেছে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ওই স্বাস্থ্যকর্মীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে বুধবার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে হরিয়ানার নিহালগড় গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে, ২৯ জুলাই নিহালগড় গ্রামমে টিকা দেওয়ার কাজ চলছিল। সে সময়ই মেয়েকে টিকা কেন্দ্রে নিয়ে আসেন মা। আশা এবং অঙ্গনওয়ারি কর্মীদের উপস্থিতিতেই মেয়েটিকে টিকা দেন স্বাস্থ্যকর্মী নির্মল যাদব। এর পরই মেয়েটির বাবা হারুন এসে ভাঙচুর চালান টিকাকেন্দ্রে। স্বাস্থ্যকর্মী নির্মলের পাশাপাশি আশাকর্মীদেরও মারধর করেন। পুলিশে দায়ের করা অভিযোগে ওই স্বাস্থ্যকর্মী জানিয়েছেন, মায়ের সম্মতিতে আশাকর্মীদের উপস্থিতিতেই টিকা দেওয়া হয়েছিল। ওই ব্যক্তির তাণ্ডবের সময় কোনও মতে ওই গ্রাম থেকে পালিয়ে প্রাণে বাঁচেন তাঁরা। এর পরই বিষযটি নিয়ে তাউরু থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই স্বাস্থ্যকর্মী।

তাইরু থানার স্টেশন হাউস অফিসার অরবিন্দ কুমার জানিয়েছেন, বুধবার অভিযুক্ত হারুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের সময় নিজের অপরাধ অভিযুক্ত ব্যক্তি স্বীকার করে নিয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। ওই অফিসার জানিয়েছেন, ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৬ (সরকারি কর্মীকে কাজে বাধা), ৩৫৩ (সরকারি কর্মীকে নিগ্রহ), ৩৩২ (সরকারি কর্মীকে মারধর), ৫০৬ (দুষ্কৃতীকারিতা) এবং ২৯৪ (নিগ্রহ) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla