থার্ড ওয়েভে রেহাই মিলবে না শিশুদের! ‘পেডিয়াট্রিক কোভিড ওয়ার্ড’ তৈরি করে শুরু প্রস্তুতি

করোনার (COVID 19) দুই ধাক্কায় বেসামাল ভারত। তাই থার্ড ওয়েভ (third wave) নিয়ে আর কোনও গাফিলতি নয়। শুরু হল শিশুদের বিশেষ ওয়ার্ড তৈরির কাজ।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 14:59 PM, 4 May 2021
থার্ড ওয়েভে রেহাই মিলবে না শিশুদের! 'পেডিয়াট্রিক কোভিড ওয়ার্ড' তৈরি করে শুরু প্রস্তুতি
শিশুদের নিয়ে বাড়ছে ভয়

মুম্বই: কোভিডের (COVID 19) প্রথম ঢেউ নাড়িয়ে দিয়েছিল গোটা দেশকে। অসুস্থতা কিংবা মৃত্যুর পাশাপাশি ধাক্কা খেয়েছিল অর্থনীতিও। আর এবার দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল গোটা দেশ। আর প্রত্যেকবারই প্রথম ধাক্কা সামলাতে হয় বাণিজ নগরী মুম্বইকে (Mumbai)। গত বছরেও সংক্রমণ আর মৃত্যুর সংখ্যায় সবার আগে ছিল মহারাষ্ট্র, এবারও মুম্বইতেই আঘাত সবথেকে বেশি। তাই তৃতীয় ঢেউয়ের (third wave) আশঙ্কায় এবার শুরু হল প্রস্তুতি। বিশেষজ্ঞদের ইঙ্গিত, এবার রেহাই পাবেন না শিশুরা। তাই সেই কথা মাথায় রেখেই প্রস্তুতি শুরু করেছে মুম্বই।

মুম্বইয়ের বৃহন্মুমুম্বই কর্পোরেশন শিশুদের জন্য তৈর করছে পেডিয়াট্রিক কোভিড কেয়ার ফেসিলিটি। সেই সঙ্গে যে সব শিশুদের বাবা-মায়েরা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের জন্য বিশেষ ক্রেশ তৈরি করা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, আগামী জুলাই মাসেই আসছে থার্ড ওয়েভ। আর তাতে শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে বেশি।

আগামী দু’মাসের মধ্যে মুম্বইতে ‘নেসকো জাম্বো কোভিড সেন্টার’-এ তৈরি করা হবে পেডিয়াট্রিক ওয়ার্ড। ১২ বছরের কম বয়স শিশুদের চিকিৎসার ব্যবস্থা থাকবে সেখানে। ইস্ট গুরগাঁওতে তৈরি হবে সেই চিকিৎসা কেন্দ্র। সেখানে থাকবে ৭০০ বেড। এ ছাড়া শিশুদের জন্য ‘নিওনেটাল ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট’ ও ‘পেডিয়াট্রিক ইনসটেনসিভ কেয়ার ইউনিট’ তৈরি করা হবে, প্রত্যেকটিতে থাকবে ২৫টি করে বেড।

আরও পড়ুন: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতে চাকরি ভেসে গেল আরও ৭০ লক্ষের

সোমবার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক করেন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আদত্য ঠাকরে ও অ্যাডিশনাল মিউনিসিপ্যাল কমিশনার সঞ্জিব জয়সওয়াল। বিএমসি-র আধিকারিকরাও ছিলেন সেই বৈঠকে। আর সেখানেই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিশুরোগ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে এই প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। গত সপ্তাহেই শিশুদের জন্য বিশেষ ওয়ার্ড তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রথম ঢেউয়ের পর সেকেন্ড ওয়েভে কিছুটা চেহারা পাল্টেছে করোনার। আক্রান্ত হয়েছেন মধ্যবয়সীরা। আর এবার যে ধাক্কা আসবে তাতে, শিশুরা আগের তুলনায় বেশি আক্রান্ত হবে। তাই এবার আর কোনও খামতি রাখতে চাইছে না মুম্বই।