Gujarat: আকাশ থেকে আচমকা পড়ল রহস্যময় কালো ধাতব বল! ধাঁধায় গুজরাট পুলিশ

Gujarat: আকাশ থেকে আচমকা পড়ল রহস্যময় কালো ধাতব বল! ধাঁধায় গুজরাট পুলিশ
রহস্যময় ধাতব বল নিয়ে তীব্র চাঞ্চল্য

Gujarat: বৃহস্পতিবার বিকালে গুজরাটের আনন্দ জেলার তিন গ্রামে আকাশ থেকে পড়ল রহস্যময় কালো ধাতব বল। সন্দেহ করা হচ্ছে এগুলি কোনও মহাকাশযানের অংশ।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

May 13, 2022 | 2:38 PM

আহমেদাবাদ: আচমকা আকাশ থেকে এসে পড়ল কালো রঙের বড় মাপের রহস্যময় ধাতব বল। এক জায়গায় নয়, ১৫ কিলোমিটার জায়গা জুড়ে ছড়িয়ে থাকা তিন-তিনটি গ্রামে। যা নিয়ে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ালো গুজরাটের আনন্দ জেলায়। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার বিকালে। কোথা থেকে ওই রহস্যময় ধাতব বলগুলি পড়ল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে, সন্দেহ করা হচ্ছে এগুলি কোনও মহাকাশযানের অংশ। গ্রামবাসীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে এলাকায় এসে পৌঁছায় জেলা পুলিশ। তবে, তারাও এই রহস্যময় বস্তুগুলি নিয়ে ধাঁধায় রয়েছে। তদন্তের জন্য খবর দেওয়া হয়েছে ফরেন্সিক সায়েন্স ল্যাবরেটরিতে।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার বিকাল পৌনে পাঁচটা নাগাদ, প্রথম কালো ধাতব বলটি পড়েছিল আনন্দ জেলার ভালেজ গ্রামে। সেটির ওজন ছিল অন্তত ৫ কেজি। গ্রামের মাঠে এসে পড়ে বলটি। গ্রামবাসীদের দাবি, আকাশ থেকেই পড়ছে ওই বলটি। তার কিছু পরই একই ধরনের ধাতব বল পতনের খবর আসে পার্শ্ববর্তী খাম্ভোলাজ এবং রামপুরা গ্রাম থেকেও। তিনটি গ্রামই ১৫ কিলোমিটার দূরত্বের মধ্যেই অবস্থিত। রহস্যময় বলগুলি নিয়ে গ্রামবাসীদের মধ্যে হইচই পড়ে যায়। এরপরই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় পুলিশ।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, আনন্দ জেলা পুলিশের সন্দেহ ওই রহস্যময় বস্তুগুলি কোনও কৃত্রিম উপগ্রহের অংশ। এই ঘটনার বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি ‘নোট কেস’ রুজু করা হয়েছে। সাহায্য চাওয়া হয়েছে ফরেন্সিক সায়েন্স ল্যাবরেটরির বিশেষজ্ঞদের। শুক্রবারই তাঁরা তদন্তের কাজ শুরু করবেন। এফএসএল-এর প্রতিবেদন হাতে আসার পরই পুরো বিষয়টি স্পষ্টতা পাবে বলে মনে করছে পুলিশ।

পুলিশ সুপার অজিত রাজিয়ান জানিয়েছেন, ভালোজে প্রথম বলটি পড়ার খবর আসতে না আসতেই, বাকি দুই জায়গা থেকেও একই ধরণের খবর এসেছিল পুলিশের কাছে। তবে, কোনও ক্ষেত্রেই কারোর হতাহত হওয়ার বা সম্পত্তির ক্ষতি হওয়ার খবর নেই। সৌভাগ্যক্রমে, খাম্ভোলাজে একটি বাড়ির গা ঘেসে পড়ে একটি ধাতব বল। বাকি দুই গ্রামে বলগুলি পড়েছে খোলা জায়গায়, সেখানে কারোর বাড়ি ঘর ছিল না। তিনি আরও জানিয়েছেন, ধাতব বলগুলি ঠিক কী ধরনের মহাজাগতিক বস্তুর ধ্বংসাবশেষ, সেই সম্পর্কে তাঁরা এখনও নিশ্চিত নন। তবে গ্রামবাসীরা প্রত্যেকেই জানিয়েছেন, বলগুলি পড়েছে আকাশ থেকেই। ফরেন্সিক সায়েন্স বিশেষজ্ঞদের পাশাপাশি পুলিশের পক্ষ থেকেও পৃথক তদন্ত করে, বস্তুগুলির উৎস সন্ধান করার চেষ্টা চলচে।

এর আগে এপ্রিল মাসের গোড়াতে মহারাষ্ট্রের এক গ্রামেও, আকাশ থেকে কিছু রহস্যময় বস্তুর পতন নিয়ে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছিল। চন্দ্রপুর জেলার সিন্দেওয়াহি মহকুমায় একটি ধাতব রিং এবং বেলনাকার অর্থাৎ সিলিন্ডারের মতো দেখতে একটি বস্তু খুঁজে পেয়েছিলেন গ্রামবাসীরা। তাঁরা দাবি করেছিলেন, রহস্যময় বস্তুগুলি প্রথমে বেশ উত্তপ্ত ছিল। আগের রাতেই মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায় আকাশে উল্কার মতো কিছু বস্তু পড়তে দেখা গিয়েছিল।

বস্তুগুলি পরীক্ষা করে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিলেন, সেগুলি সম্ভবত কোনও মহাকাশযানের অংশ। কৃত্রিম উপগ্রহকে মহাকাশে পৌঁছে দেওয়ার পর সম্ভবত কোনও রকেট বুস্টার ভেঙে পড়েছিল। মধ্যপ্রদেশের রতলম, বারওয়ানি এবং খান্ডওয়া এলাকাতে থেকেও একই রকম খবর এসেছিল। অনেক মহাকাশ বিজ্ঞানী দাবি করেছিলেন, ওই দিনই পৃথিবীতে ফিরে এসেছিল একটি চিনা রকেট। সম্ভবত, ভেঙে পড়া বস্তুগুলি সেই রকেটেরই যন্ত্রাংশ।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA