Eknath Shinde: পাকিস্তানকে হারানো দল আমার পাশে আছে: একনাথের বিস্ফোরণ

Eknath Shinde: পাকিস্তানকে হারানো দল আমার পাশে আছে: একনাথের বিস্ফোরণ
দাবার চাল সাজাতেই ব্যস্ত একনাথ শিন্ডে। ছবি:PTI

Maharashtra Political Crisis: মহারাষ্ট্র ছেড়ে প্রথমে গুজরাটের সুরাটে এবং পরে সেখান থেকে অসমের গুয়াহাটিতে গিয়েছেন বিক্ষুব্ধ বিধায়করা। এই দুই রাজ্যই বিজেপি শাসিত।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Jun 24, 2022 | 11:49 AM

মুম্বই: একা নয়, বিদ্রোহী একনাথের পাশে রয়েছে একটি জাতীয় দল। তিন রাজনৈতিক দলের জোটেই তৈরি হয়েছিল মহা বিকাশ আগাড়ি সরকার (Maha Vikas Aghadi Government)। কিন্তু শিবসেনার (Shiv Sena) অন্তর্দ্বন্দ্বেই বর্তমানে সেই জোট ভাঙতে বসেছে। রাজ্য থেকে কয়েক হাজার কিলোমিটার দূরে অসমের পাঁচতারা হোটেলে বসেই পরবর্তী চালের ঘুঁটি সাজাচ্ছেন মহারাষ্ট্রের নগরোন্নয়ন মন্ত্রী একনাথ শিন্ডে (Eknath Shinde)। বৃহস্পতিবার তিনি জানান যে, একটি “জাতীয় দল” তাঁর এই বিদ্রোহকে ঐতিহাসিক বলে অ্যাখ্যা দিয়েছে এবং যাবতীয় সাহায্যের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে।

গতকালই প্রকাশ্যে আসে একটি ভিডিয়ো। সেই ভিডিয়োয় দেখা যায় বিক্ষুব্ধ শিবসেনা নেতাদের সঙ্গে কথা বলছেন একনাথ শিন্ডে। বিধায়কদের হয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত একনাথ শিন্ডে নেবেন, এই প্রস্তাবেও সম্মতি জানাচ্ছেন তাঁরা। বিক্ষুব্ধদের নির্বাচিত দলনেতা শিন্ডেকে বলতে শোনা যায়, “আমাদের চিন্তা ও খুশি একই। আমরা সবাই একসঙ্গে রয়েছি। জয় আমাদেরই হবে। একটা জাতীয় দল রয়েছে, মহাশক্তি….আপনারা জানেন তারা পাকিস্তানকেও হারিয়েছে। সেই দলই জানিয়েছে যে আমরা ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি এবং আমাদের যাবতীয় সাহায্যের আশ্বাসও দেওয়া হয়েছে।”

কমপক্ষে ৩৭ জন বিধায়ক নিয়ে অসমে আশ্রয় নেওয়া একনাথ শিন্ডে সরাসরি কোনও রাজনৈতিক দলের নাম না নিলেও, সেই জাতীয় দল যে বিজেপি, তা বলা বাহুল্য। মহারাষ্ট্র ছেড়ে প্রথমে গুজরাটের সুরাটে এবং পরে সেখান থেকে অসমের গুয়াহাটিতে গিয়েছেন বিক্ষুব্ধ বিধায়করা। এই দুই রাজ্যই বিজেপি শাসিত। পাশাপাশি তাদের গুয়াহাটি বিমানবন্দরেও স্বাগত জানাতে এসেছিলেন অসমের দুই বিজেপি বিধায়ক। হোটেলে তদারকি করতে দেখা গিয়েছিল খোদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মাকে। ফলে দুইয়ে দুইয়ে চার করতে কোনও সমস্যাই হওয়ার কথা নয়।

এই খবরটিও পড়ুন

এদিকে, গতকাল অসমের ওই হোটেলের বাইরে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকরা। সেখানে তারা দাবি করেন যে, বিজেপিই মহারাষ্ট্র সরকারের পতনের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির দিকে নজর না দিয়ে, মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা মহারাষ্ট্রের মহা বিকাশ আগাড়ি সরকারকে কীভাবে ভাঙা যায়, তা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করতেই ব্যস্ত।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA