Sanjay Raut On Hindi : হিন্দিই হোক দেশের ভাষা! বিজেপির সুরেই সুর মেলাল শিবসেনা

Sanjay Raut On Hindi : হিন্দিই হোক দেশের ভাষা! বিজেপির সুরেই সুর মেলাল শিবসেনা
ফাইল ছবি

Sanjay Raut on Hindi : এতদিন বিজেপি হিন্দিকে রাষ্ট্র ভাষা হিসেবে কার্যকর করার ক্ষেত্রে একাধিকবার সওয়াল করেছে। এবার তাদের সুরে সুর মিলিয়েই এক দেশ, এক ভাষার পক্ষে সওয়াল করলেন শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

May 14, 2022 | 4:34 PM

মুম্বই : হিন্দিকে রাষ্ট্রীয় ভাষা আখ্য়া দেওয়া নিয়ে রাজনৈতিক তরজা বহুদিনের। এই নিয়ে শাসক ও বিরোধী দলের মধ্যে রেষারেষি লেগেই রয়েছে। পাশাপাশি দক্ষিণী রাজ্যগুলি থেকে এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে জারি রয়েছে প্রতিরোধ। সম্প্রতি বলিউড স্টার অজয় দেবগণের হিন্দিকে রাষ্ট্রীয় ভাষা আখ্যা দেওয়া নিয়ে ফের একবার বিতর্ক দানা বেঁধেছিল। এক্ষেত্রে উল্লেখ্য, বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর থেকেই হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষা করার পক্ষে সওয়াল করে এসেছে। এই নিয়ে মোদী-শাহের কণ্ঠে বহুবার বাণীও শোনা গিয়েছিল। এবার এক দেশ, এক ভাষার পক্ষে সওয়াল করে হিন্দিকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন শিব সেনা নেতা সঞ্জয় রাউত। এই চ্যালেঞ্জ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দিকে।

শনিবার বিজেপির সুরে সুর মিলিয়েই শিবসেনা সাংসদ ‘এক দেশ, এক ভাষা’ -র পক্ষেই সওয়াল করলেন। তিনি এদিন বলেছেন, ভারতের অনেকটা জায়গা জুড়ে হিন্দিভাষীরা বসবাস করেন। ভারত জুড়ে এর গ্রহণযোগ্যতাও রয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি এদিন জানিয়েছেন যে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এক দেশ, এক ভাষা বাস্তবায়িত করার এই চ্যালেঞ্জ নেওয়া উচিত। হিন্দি ভাষা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেছেন, “কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের উচিত দেশের প্রতিটি রাজ্যে একটি ভাষা কার্যকর করার চ্যালেঞ্জ নেওয়া। এক দেশ, এক সংবিধান, এক প্রতীক এবং এক ভাষা থাকা উচিত।” রাজনৈতিক দিক থেকে বিরোধীদলের হলেও এই এক ইস্যুতে বিজেপির পাশেই রয়েছে শিবসেনা। সঞ্জয় রাউত বলেছেন, দল সবসময় হিন্দিকে সম্মান জানিয়েছে। তিনি বলেছেন, “সংসদে আমি যখনই সুযোগ পাই হিন্দিতে কথা বলি। কারণ দেশের শোনা উচিত আমি কী বলতে চাই। এটি দেশের একটি ভাষা। হিন্দি হল একমাত্র ভাষা যা সমগ্র দেশ জুড়ে বলা হয় এবং এর গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।” তিনি নিজের দাবি সমর্থন করে আরও বলেছেন যে, সমগ্র দেশ ও বিশ্বে হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি খুব প্রভাবশালী।

এই খবরটিও পড়ুন

প্রসঙ্গত, বিজেপি ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই সমগ্র দেশ জুড়ে হিন্দিকে কার্যকর পরিকল্পনা করে এসেছে। কিন্তু দক্ষিণের রাজ্য় থেকে এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ দেখা গিয়েছে। কিছুদিন আগেই অমিত শাহ বলেছিলেন ইংরেজির বিকল্প হিসেবে হিন্দিকে গ্রহণ করা উচিত। দক্ষিণী রাজ্যের একাধিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এই অমিত শাহের এই মন্তব্যের বিরোধিতা করেছিলেন। এবং আঞ্চলিক

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA