‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবার জন্য লড়াই করছেন, আপনার জন্যও করবেন’, দিল্লিতে নির্যাতিতার মা’কে আশ্বাস তৃণমূলের

Delhi Rape: ধর্ষণ নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে বলে সরব হয়েছে বিজেপি (BJP)। তৃণমূলের (TMC) আগেই ওই পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান রাহুল গান্ধী ও অরবিন্দ কেজরীবাল।

'মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবার জন্য লড়াই করছেন, আপনার জন্যও করবেন', দিল্লিতে নির্যাতিতার মা'কে আশ্বাস তৃণমূলের
নাবালিকার বাড়িতে তৃণমূল সাংসদ

নয়াদিল্লি: জল আনতে গিয়ে আর ফেরেনি ৯ বছরের মেয়েটি। ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে, জোর করে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে দেহ। আর এই ঘটনার আঁচ পৌঁছে গিয়েছে জাতীয় রাজনীতিতে। শুরু হয়েছে শাসক-বিরোধী তর্জা। ঘটনার দু’দিন পর বুধবার সকালেই ওই নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। এরপরই ধর্ষণ নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে বলে সরব হয় বিজেপি। এ দিন বিকেলেই সংসদ মুলতুবি হয়ে যাওয়ার পর সেই নাবালিকার বাড়িতে গেল তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। নাবালিকার মায়ের মুখে শুধুই শাস্তির দাবি। তাঁকে আশ্বাস দিয়ে তৃণমূল সাংসদ বললেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আপনার জন্যও লড়াই করবেন।’

এ দিন তৃণমূলের তরফে ওই নাবালিকার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন চার সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার, শান্তা ছেত্রী, মৌসম নূর ও প্রতিমা মণ্ডল। তাঁদের কাছে নাবালিকার মা আর্জি জানান,’কিছুই চাই  না শুধু শাস্তি চাই। দোষীদের ফাঁসি চাই। আমি আজ যতটা কষ্ট পাচ্ছি, ওরাও যেন পায়।’ নাবালিকার মা’লে তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার বলেন, ‘জানেন আমরা কোথা থেকে এসেছিল? কলকাতায় মমতা ব্যানার্জী আছেন না? উনি আমাদের পাঠিয়েছেন শুধু আপনাদের জন্য। উনি সবার জন্য লড়াই করছেন। চিন্তা করবেন না, আপনাদের জন্যও লড়াই করবেন।’

বুধবারই দিল্লির ঘটনা নিয়ে টুইটে খোদ অমিত শাহের দিকে আঙুল তোলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘এক ন’বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করে, জোর করে দাহ করে দেওয়া হয়েছে। এ দেশে তফশিলি উপজাতির মেয়েদের যে ধরনের অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়, তাতে বোঝা যায় আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কতটা অসংবেদনশীল। দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভেঙে পড়ার মুখে।’ তিনি প্রশ্ন তোলেন, ‘সম্প্রতি যিনি দিল্লির পুলিশ কমিশনার হয়েছেন, অমিত শাহের ঘনিষ্ঠ সেই রাকেশ আস্থানা কি এর মধ্যেই নিজের কর্তব্য পালনে ব্যর্থ হচ্ছেন? নাকি তাঁকে আদতে অন্য কোনও কাজের দায়িত্ব দিতেই আনা হয়েছে?’

এ দিনই সকালে কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী ওই নাবালিকার পরিবারের সঙ্গে দেখা করার পর বলেন, ‘আমি সবসময় পাশে রয়েছি। ন্যায় বিচার পাইয়ে দিতে লড়াই চালিয়ে যাব।’ গতকালও তিনি টুইট করে ওই নাবালিকাকে ‘দেশের মেয়ে’ বলে উল্লেখ করেন এবং কী ভাবে অলিম্পিকে মেডেল আনলে তবেই মেয়েদের গর্ব হিসাবে বলে করা হচ্ছে, তা নিয়ে সমালোচনা করেন। বিজেপি তরফে সম্বিৎ পাত্র রাহুল গান্ধীর সমালোচনা করে বলেন, ‘ধর্ষণ নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে।’ এই ধরনের রাজনীতি করা অপরাধ বলে মন্তব্য করেন তিনি। আরও পড়ুন: নির্যাতিতা নাবালিকার বাবা-মায়ের ছবি পোস্ট রাহুলের, অবিলম্বে সরানোর নির্দেশ শিশু সুরক্ষা কমিশনের

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla