Tripura Murder: নৃশংস! শিশুসহ ৫ জনকে বেলচা দিয়ে হত্যা করল অবসাদগ্রস্ত ব্যক্তি

Killing: পুলিশ সূত্রে খবর, পেশায় রাজমিস্ত্রি প্রদীপ দেবরাই দীর্ঘদিন ধরেই অবসাদে ভুগছিলেন। তিনি সকলের সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দেন। শুক্রবার রাতে হঠাৎ করেই তিনি হিংসাত্মক হয়ে ওঠেন এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে পরিবারের লোককে আক্রমণ করেন।

Tripura Murder: নৃশংস! শিশুসহ ৫ জনকে বেলচা দিয়ে হত্যা করল অবসাদগ্রস্ত ব্যক্তি
ছবি- প্রতীকী চিত্র

আগরতলা: মনোবিদরা সচরাচর বলেই থাকেন অবসাদ কখনও কখনও মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে। অবসাদ থেকে কখনও জেগে ওঠে অপরাধের মানসিকতা, কখনও বা অবসাদের কারণেই অনেকেই আত্মহত্যাপ্রবন হয়ে ওঠেন তাই অবসাদগ্রস্ত অবস্থার শুরুতেই মনোবিদের সাহায্য নেওয়া প্রয়োজন। এবার সেই অবসাদের বর্শবর্তী হয়ে ত্রিপুরাতে প্রাণ হারালেন ৫ জন। না তাঁরা কেউই আত্মঘাতী হননি। ওপর আরেকজন অবসাদের শিকার হয়েছেন তাঁরা।

জানা গিয়েছে, ত্রিপুরার খোয়াইতে মানসিক অবসাদগ্রস্ত এক ব্যক্তির অবসাদগ্রস্ত মন শুক্রবার মারত্মক আকার ধারণ করেছিল। সেই অবসাদের রোষেই তিনি একের পর এক ব্যক্তিতে বেলচা দিয়ে আক্রমণ করেন। সেই আক্রমণে প্রাণ হারিয়েছে দুই শিশুসহ মোট ৫ জন ব্যক্তি, এমনটাই জানিয়েছে স্থানীয় থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, পেশায় রাজমিস্ত্রি প্রদীপ দেবরাই দীর্ঘদিন ধরেই অবসাদে ভুগছিলেন। তিনি সকলের সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দেন। শুক্রবার রাতে হঠাৎ করেই তিনি হিংসাত্মক হয়ে ওঠেন এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে পরিবারের লোককে আক্রমণ করেন। নিজের দুই মেয়েকে নৃশংসভাবে হত্যা করার পাশাপাশি, দাদাকেও নির্মমভাবে হত্যা করেন প্রদীপ। প্রদীপের স্ত্রী তাঁর আক্রমণে মারত্মকভাবে আহত হলেও তিনি সেখান থেকে পালাতে সক্ষম হন।

এরপর বাড়ি থেকে বেড়িয়ে প্রতিবেশিদের বাড়িতে হানা দেন প্রদীপ। ভীত সন্ত্রস্ত প্রতিবেশিরা বাড়ির দরজা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। কেউ কেউ সাহস করে বাইরে বেরিয়ে এসে প্রদীপের হাত থেকে বেলচা কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করলেও তাঁরা ব্যর্থ হন। প্রতিবেশিরাই পুলিশকে খবর দিয়েছিলেন। এই সময়ে স্থানীয় রাস্তা দিয়ে আসা একটি অটোর যাত্রীদের ওপর আক্রমণ করেন ওই ব্যক্তি। কৃষ্ণ দাস ও তাঁর পুত্র করণবীর অটোতে ছিলেন। বেলচা দিয়ে পিতাকে ঘটনাস্থলেই হত্যা করা হয়, এবং তাঁর পুত্র গুরুতর জখম হয়েছেন। পুলিশ এসে অভিযুক্তকে নিরস্ত্র করার চেষ্টা করলে খোয়াই থানার সেকেন্ড অফিসার জখম হয়েছেন। অভিযুক্তকে শেষমেশ গ্রেফতার করেছে পুলিশ এখনও তদন্ত চলছে।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে ত্রিপুরা পুলিশেরপ ডিজি জানিয়েছেন, “এক রাজমিস্ত্রির হঠাৎ হিংস্র হয়ে ওঠার ঘটনায় এক পুলিশ আধিকারিকসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই ভয়ঙ্কর হামলার কারণে তাঁর দুই মেয়ে, তাঁর দাদা, একজন পথচারী এবং খোয়াই থানার দ্বিতীয় অফিসার মারা গিয়েছেন।”

আরও পড়ুন Corona Outbreak: ১০ থেকে ৮ হাজারে নামল একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা! সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাও তুলনামূলক বেড়েছে

আরও পড়ুন  BJP-Congress Whip: অধিবেশনের প্রথম দিনেই পেশ হবে কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল, হুইপ জারি বিজেপি-কংগ্রেসের

Published On - 1:53 pm, Sat, 27 November 21

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla