Uttar Pradesh: রবিবারেই বড় চমক যোগীরাজ্যে, বিকেলেই মন্ত্রিসভায় যোগ হতে পারে ৭ নতুন মুখ

Uttar Pradesh Cabinet Expansion: গত সপ্তাহেই মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছিলেন, বিপুল ভোটে জিতেই পুনরায় উত্তর প্রদেশে ক্ষমতায় ফিরবে বিজেপি। ৪০৩টি আসনের মধ্যে কমপক্ষে ৩৫০ আসনে বিজেপি জিতবে বলেই গ্যারান্টি দিয়েছেন তিনি।

Uttar Pradesh: রবিবারেই বড় চমক যোগীরাজ্যে, বিকেলেই মন্ত্রিসভায় যোগ হতে পারে ৭ নতুন মুখ
বড় চমক দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। ফাইল চিত্র

লখনউ: পঞ্জাবের নতুন মন্ত্রিসভা গড়ার কথা রবিবার। সকলের নজরও তাই সেদিকেই ছিল। এরইমাঝে সকলকে চমকে দিলেন উত্তর প্রদেশে (Uttar Pradesh) বিজেপি(BJP)-র তুরুপের তাস যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। সূত্রের খবর, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে আজই মন্ত্রিসভায় ৬ থেকে ৭ জন নতুন মন্ত্রী যোগ হতে পারেন (Cabinet Expansion)।

দলীয় সূত্রে খবর, আজই যোগী আদিত্যনাথের মন্ত্রিসভায় কমপক্ষে ৭জন নতুন মন্ত্রী যোগ হতে পারেন। বিকেল সাড়ে ৫টায় শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান রাখা হয়েছে। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। নতুন মন্ত্রী হিসাবে জায়গা পেতে পারেন কংগ্রেসে থেকে আসা জীতীন প্রসাদ। এছাড়াও ছত্রপল গাঙ্গওয়ার, দিনেশ খাতিক ও কৃষ্ণ পাসওয়ানের নাম উঠে আসছে নতুন মন্ত্রী হিসাবে।

সূত্রের দাবি, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই উত্তর প্রদেশের বিভিন্ন পিছিয়ে পড়া শ্রেণির প্রতিনিধিদেরই মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হবে। অন্যদিকে উত্তর প্রদেশের একটি বড় অংশের জনসংখ্যা ব্রাহ্মণ, সেই ভোটকেও বিজেপির ঝুলিতে ভরতে মন্ত্রী করা হতে পারে জীতীন প্রসাদকে।

লোকসভার ও রাজ্যসভা মিলিয়ে মোট ১৪ জন সাংসদ রয়েছেন উত্তর প্রদেশের মন্ত্রিসভায়। কেন্দ্রেও ৮৪ জন সাংসদই উত্তর প্রদেশের। এদের মধ্যে ৬২ জন লোকসভা ও ২২ জন রাজ্যসভার সাংসদ। স্বাভাবিকভাবেই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনেও বিজেপির মোট ভোটের একটি বড় অংশই আসবে উত্তর প্রদেশ থেকে। আর সেই ভোট জিততেই হিসাবে যাতে কোনও গরমিল না থাকে, তার জন্য এই মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ।

কারা কারা থাকতে পারেন মন্ত্রিসভায়?

উত্তর প্রদেশের মোট ভোটারের মধ্যে ১৩ শতাংশই ব্রাহ্মণ ভোট। এই পুরো ভোটটাই বিজেপির ঝুলিতে ভরতে ময়দানে নামানো হচ্ছে একদা রাহুল গান্ধীর ঘনিষ্ট জীতীন প্রসাদকে। জুন মাসে কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই উত্তর প্রদেশের ঠাকুর সম্প্রদায়ের উপর বিশেষ নজর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এ বার সেই কাজকেই আরও পাকাপোক্ত করতে মন্ত্রিসভাতে জীতীন প্রসাদকে জায়গা দেওয়া হবে।

এছাড়াও নিশাদ দলের সঞ্জয় নিশাদের নামও উঠে এসেছে নয়া মন্ত্রী হিসাবে। কয়েক মাস আগেই ওবিসি জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধি নিশাদ ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তাঁর ছেলে তথা সাংসদ প্রবীণ নিশাদকে মন্ত্রিসভায় জায়গা না দেওয়ায়। “এর ফল নির্বাচনে পাবে” এই কথা বলেই তিনি সেই সময় সতর্ক করেছিলেন। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই তাই নিশাদকেও মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হতে পারে।

গত সপ্তাহেই মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছিলেন, বিপুল ভোটে জিতেই পুনরায় উত্তর প্রদেশে ক্ষমতায় ফিরবে বিজেপি। ৪০৩টি আসনের মধ্যে কমপক্ষে ৩৫০ আসনে বিজেপি জিতবে বলেই গ্যারান্টি দিয়েছেন তিনি। এর আগে ২০১৭ সালের নির্বাচনে ৩২৫ টি আসনে জিতেছিল বিজেপি, সমাজবাদী পার্টি ও তাদের জোটসঙ্গীরা পেয়েছিল ৫৪টি আসন এবং বহুজন সমাজ পার্টি পেয়েছিল ১৯টি আসন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় কিছু সমালোচনার মুখে পড়লেও প্রধানমন্ত্রী তথা বারাণসীর সাংসদ নরেন্দ্র মোদীর মুখে বারবারই যোগী আদিত্যনাথের প্রশংসাই শোনা গিয়েছে। দেশের মধ্যে সবথেকে বেশি উন্নয়নের দাবিদার যোগী সরকারকেই বারংবৈর ডবল ইঞ্জিন সরকারের উপকারিতা হিসাবে তুলে ধরেছেন প্রধানমন্ত্রী।

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla