Anubrata Mondal: বাড়ছে কেষ্টর চাপ? এবার দিল্লিতে নিয়ে গিয়ে জেরার তোড়জোড় গোয়েন্দাদের

Anubrata Mondal: দুই কেন্দ্রীয় এজেন্সির সাঁড়াশি চাপে, চরম অস্বস্তিতে অনুব্রত মণ্ডল। এই পরিস্থিতিতে বার সোজা রাজধানীতে নিয়ে গিয়ে কেষ্টকে জেরার তোড়জোড় করছে এজেন্সি।

Anubrata Mondal: বাড়ছে কেষ্টর চাপ? এবার দিল্লিতে নিয়ে গিয়ে জেরার তোড়জোড় গোয়েন্দাদের
অনুব্রত মণ্ডল
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Nov 22, 2022 | 11:34 AM

কলকাতা ও দিল্লি: গরু পাচার কাণ্ডে সিবিআই-র (CBI) জালে একদিকে শ্রীঘরে বীরভূমের বাহুবলী। দোসর ইডি (ED)। এক কথায় দুই কেন্দ্রীয় এজেন্সির সাঁড়াশি চাপে, চরম অস্বস্তিতে অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)। এবার কি তাঁর কষ্ট আরও বাড়তে চলেছে? কারণ, আর বাংলায় নয়, এবার সোজা রাজধানীতে নিয়ে গিয়ে কেষ্টকে জেরার তোড়জোড় করছে এজেন্সি। কোন পথে গড়াবে জল? আজ রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের রায়ে নজর রয়েছে গোটা বাংলার।

শ্রীঘরে কেষ্ট, আরও বাড়ছে চাপ?

গরুপাচার কাণ্ডে ঠাকুরঘর থেকে অনুব্রত মণ্ডলকে কব্জায় নিয়েছিল সিবিআই। ১১ অগাস্ট নিচুপট্টির বাড়ি থেকে গ্রেফতার হন অনুব্রত মণ্ডল। প্রথমে CBI হেফাজত, তারপর আসানসোল জেলে হন বন্দি। গত সাড়ে ৩ মাস ধরে জেল-যাপন করছেন বীরভূমের বাহুবলী। শারীরিক অসুস্থতার কথা বলে বারবার জামিনের আবেদন করেছেন। কিন্তু, এজেন্সির প্রভাবশালী তত্ত্বে, অনুব্রতর সেই আবেদনে সাড়া দেয়নি আদালতে। তবে কেষ্টর চাপ আরও বাড়তে চলেছে বলেই খবর।

এবার রাজধানীতে কেষ্ট?

গত কয়েক মাসে সময় যত গড়িয়েছে, কেষ্ট মণ্ডলের চাপ ক্রমশই বেড়েছে। কারণ, সিবিআই-র পর, গরু পাচারের পাশাপাশি, কেষ্ট মণ্ডলের সম্পত্তির শিকড় খুঁজতে, তেড়েফুঁড়ে ময়দানে নেমেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED)। গরুপাচার মামলায় অনুব্রতকে জেরার আবেদন করে ইডি আদালতের ছাড়পত্র পেয়ে আসানসোল জেলে যান দিল্লির আধিকারিকরা। গত ১৭ নভেম্বর আসানসোল সংশোধনাগারেই কেষ্টকে জেরা করা হয়। তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগে অনুব্রতকে গ্রেফতার করে ইডি। জেরা ও গ্রেফতারির পর এবার কেষ্টকে দিল্লিতে নিয়ে যেতে মরিয়া ইডি। গরুপাচার মামলার তদন্তে রাজধানীতে নিয়ে গিয়ে অনুব্রত মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় কেন্দ্রীয় সংস্থা। কেষ্টর প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট চেয়ে, গত সপ্তাহে দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টে আবেদন জানায় ইডি। আজ সেই মামলার রায়দান। তবে কি এবার হোম গ্রাউন্ড থেকে, সোজা অপরিচিত অ্যাওয়ে উইকেটে কেষ্ট? এই নিয়ে তুঙ্গে জল্পনা।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই গরুপাচার কাণ্ডে বিভিন্ন সূত্র খুঁজে পেতে কেষ্টর দেহরক্ষী সায়গল হোসেনকে একাধিকবার জেরা করেছে ইডি। বাদ যাননি কেষ্ট কন্যা সুকন্যা মণ্ডলও। দিল্লিতে ইডি দফতরে একাধিকবার জেরার মুখোমুখি হয়েছেন সুকন্যা। গত ২, ৩, ৪ নভেম্বর – পরপর ৩ দিন হাজিরা দেন কেষ্ট-কন্যা সুকন্যা। সাধারণ স্কুল শিক্ষিকা হয়ে কীভাবে এহেন সম্পত্তি? সেই নিয়েই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে জানা যায়। শুধু কেষ্ট-কন্যাই নন। অনুব্রতর হিসাবরক্ষক মণীশ কোঠারি ও একাধিক ঘনিষ্ঠকেও জেরা করেছেন গোয়েন্দারা। সূত্রের খবর, তাঁদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে মিলেছে বহু ক্লু। সেই সব তথ্যের ভিত্তিতে এবার দিল্লিতে অনুব্রতকে জেরার তোড়জোড় ইডির।

জেরায় কেষ্টর থেকে পাওয়া তথ্য বয়ান আকারে আদালতে পেশ করেছে ইডি। সেই তথ্যের ভিত্তিতে কেষ্টকে দিল্লিতে নিয়ে গিয়ে জেরার আবেদন করেছে গোয়েন্দারা। আদালত চাইলে ‘প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট’ দিতে পারে অথবা আসানসোল বিশেষ সিবিআই আদালতেই শুনানির নির্দেশ দিতে পারে। দীর্ঘ সাড়ে ৩ মাস গারদ বন্দি। এবার আবার ভিনরাজ্যে চাপের মুখে বীরভূমের বাঘ। কেষ্টকে কি রাজধানীতে কব্জা করতে পারবে ইডি? কী রায় দেবে আদালত? কোন পথে গড়াবে জল? নজর ওয়াকিবহাল মহলের।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla