Kunal Ghosh: ‘দেখে নেব’, পার্থকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন ধনখড়! বিস্ফোরক দাবি কুণালের

Jago Bangla: বুধবার, তৃণমূল মুখপত্র জাগো বাংলায় প্রকাশিত ঠিক এমনই একটি সংবাদ উস্কে দিচ্ছে পার্থর সঙ্গে তৃণমূলের দূরত্বের জল্পনা। ওয়াকিবহাল মহলের মতানুযায়ী, তাহলে কি পার্থর সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে চাইছে দল?

Kunal Ghosh: ‘দেখে নেব’, পার্থকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন ধনখড়! বিস্ফোরক দাবি কুণালের
কুণালের প্রতিবেদনে নয়া জল্পনার ইঙ্গিত
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Jul 27, 2022 | 12:36 PM

কলকাতা: ফের আরও একবার বিস্ফোরক কুণাল ঘোষ। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পিছনে রাজ্যপালের হাত থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করলেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। মঙ্গলবার এক সংবাদ মাধ্যমে এমনই অভিযোগ করেছিলেন কুণাল। বুধবার তৃণমূলের মুখপত্র ‘জাগো বাংলায়’-তেও সেই খবর প্রকাশিত হয়। পার্থর গ্রেফতারে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ে নাম জড়িয়ে কুণাল বিতর্কের নয়া মোড় ঘোরালেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

‘জাগো বাংলায়’ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রাক্তন রাজ্যপালের সঙ্গে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল দেখা করতে গিয়েছিল রাজভবনে। সে সময় জগদীপ ধনখড় জানিয়েছিলেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে তিনি ছাড়বেন না। কারণ হিসাবে তৃণমূলের ওই প্রতিনিধি দলকে ধনখড় জানান, পার্থ চট্টোপাধ্যায় তাঁর স্ত্রীকে আক্রমণ করেছিলেন, যিনি কোনও সময় রাজনীতির মধ্যে থাকেননি। কুণালের দাবি, পার্থকে দেখে নেবেন বলে হুঁশিয়ারিও দিয়েছিলেন রাজ্যপাল। যদিও শশী পাঁজা, ব্রাত্য বসু, কুণালের নেতৃত্বাধীন তৃণমূলের প্রতিনিধি দলের তরফে বোঝানোর চেষ্টা করা হয়েছিল রাজ্যপালকে। কিন্তু রাজ্যপাল তাঁর অবস্থানে অনড় ছিলেন বলে কুণাল দাবি করেন। তাঁর আশঙ্কা, পার্থ গ্রেফতারির পিছনে রাজ্যপালের কোনও ইন্ধন থাকতে পারে। তবে নিশ্চিত করে যে বলা যাচ্ছে না, সেটাও দাবি করেছেন কুণাল।

উল্লেখ্য বিভিন্ন সময়ে দেখা গিয়েছে, নানা ইস্যুতে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সংঘাতে জড়িয়েছেন তৎকালীন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। নিত্যদিন টুইট করে শাসক দল ও সরকার বিরুদ্ধে সমালোচনায় সরব হয়েছেন ধনখড়। তবে, রাজ্যপালকে নিয়ে কুণালের এই দাবি চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। বর্তমানে এসেছেন নতুন রাজ্যপাল। এই মুহূর্তে জগদীপ ধনখড় এনডিএ-এর উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী। পার্থ কাণ্ডে তাঁর নাম জড়িয়ে আগামী উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তৃণমূল কৌশলী অবস্থান নিতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

এই খবরটিও পড়ুন

উল্লেখ্য, স্কুল শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থের বাড়ি-সহ একাধিক জায়গায় ইডি হানা দেয়। পার্থর ঘনিষ্ট অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে প্রায় ২২ কোটি টাকা উদ্ধার হয়। এর পর যত দিন যেতে থেকে পার্থর নামে-বেনামে একাধিক সম্পত্তির খোঁজ পায় ইডি। পার্থ ও অর্পিতাকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দল। যেখানে পার্থর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠে আসছে, সেখানে প্রাক্তন রাজ্যপালের প্রতিহিংসামূলক আচরণ ছিল কিনা মানতে নারাজ রাজনৈতিক মহলের একাংশ। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, পার্থর বিরুদ্ধে যদি কোনও প্রমাণ মেলে, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করবে দল ও সরকার। এর মধ্যে কুণালের বিস্ফোরক দাবি পার্থ বিতর্কে নয়া মাত্রা পেল মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla