Suvendu Adhikari On Mahua Moitra: কালী বিতর্কে মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে ১০ দিনের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে হবে পুলিশকে, হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর

Suvendu Adhikari On Mahua Moitra: মহুয়ার মন্তব্যের প্রেক্ষিতে রাজ্য জুড়ে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা পথে নেমেছে। সম্প্রতি ভারতীয় পরিচালক লীনা মানিমেকালাইয়ের তথ্যচিত্রের একটি পোস্টারে দেবী কালী রূপে এক মহিলাকে ধূমপান করতে দেখা গিয়েছে।

Suvendu Adhikari On Mahua Moitra: কালী বিতর্কে মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে ১০ দিনের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে হবে পুলিশকে, হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর
কালী বিতর্কে মহুয়ার বিরুদ্ধে শুভেন্দু
TV9 Bangla Digital

| Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

Jul 06, 2022 | 2:14 PM

কলকাতা: কালী নিয়ে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের মন্তব্যে জোর জলঘোলা। মহুয়ার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতে পুলিশকে ১০ দিন সময় বেঁধে দিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর প্রশ্ন, এক যাত্রায় পৃথক ফল কেন? নূপুরের নামে কলকাতা পুলিশ লুকআউট নোটিস জারি করেছে। নারকেলডাঙা থানা থেকে সেই নোটিস জারি করা হয়। তাহলে প্রশ্ন, কালী নিয়ে মন্তব্যের জেরে কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না? প্রশ্ন তুললেন শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর বক্তব্য, কালীকে অপমান করা হয়েছে। প্রতিবাদ মিছিল বার করেছে বিজেপি।

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, “বাংলার একজন কুলাঙ্গার সাংসদ। এই কথাটা আপনারা যেভাবে খুশি ব্যাখ্যা করতে পারেন। যেভাবে ব্যক্ত করেছেন, তাতে তাঁর রাজনৈতিক দল কী ভাবল, আমার কিছু যায় আসে না। বাংলার পুলিশের যদি সত্যি অশোকস্তম্ভের প্রতি শ্রদ্ধা থাকে, তাহলে পদক্ষেপ করতে হবে। নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে যেভাবে নোটিস জারি করছে রাজ্য, তার বিরুদ্ধে যেভাবে আইনগত পদক্ষেপ করছে, তেমনি মহুয়ার বিরুদ্ধেও করতে হবে।” তিনি দাবি তুলেছেন, মহুয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হচ্ছে। সেই এফআইআর-গুলো কার্যকর করতে হবে। এরপরই তাঁর হুঁশিয়ারি, “এফআইআর যদি কার্যকর না হয়, তাহলে আমি পুলিশকে ১০ দিন সময় দিলাম। আমি ১১ দিনের দিন পুলিশের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলে হাইকোর্টে যাব।”

রাজ্যপাল বলেছেন, “গণতন্ত্রের পক্ষে লজ্জাজনক ঘটনা। এটা কখনই কাম্য নয়। এই ধরনের সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক মন্তব্য কখনই মেনে নেওয়া যায় না। ভারতীয় দণ্ডবিধিতে একই অপরাধের জন্য একই শান্তি হওয়া প্রয়োজন।” এরপরই রাজ্যপাল বলেন, “বিচার সবার জন্য একই হওয়া প্রয়োজন। তার জন্যই কেন্দ্রীয় সরকার বলে সবকা সাথ, সবকা বিকাশ, সবকা প্রয়াস।”

মহুয়ার মন্তব্যের প্রেক্ষিতে রাজ্য জুড়ে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা পথে নেমেছে। সম্প্রতি ভারতীয় পরিচালক লীনা মানিমেকালাইয়ের তথ্যচিত্রের একটি পোস্টারে দেবী কালী রূপে এক মহিলাকে ধূমপান করতে দেখা গিয়েছে। একটি অনুষ্ঠানে এই পোস্টার নিয়ে মহুয়া মৈত্রকে প্রশ্ন করা হয়। তার প্রেক্ষিতে একটি মন্তব্য করেন মহুয়া মৈত্র। তা নিয়েই বিতর্ক ছড়ায়। তারপর নিজের টুইটার একটি পোস্টও করেন তিনি। তাতে বিতর্ক বাড়ে দ্বিগুণ।

এরপর ময়দানে নামে তৃণমূল। একটি টুইট করে দলের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, “তৃণমূল ওই মন্তব্য সমর্থন করে না বা মান্যতা দেয় না। সর্বভারতীয় তৃণমূল এই ধরনের মন্তব্যের নিন্দা করছে।” বুধবার সকালে দেখা যায়, তৃণমূলকেই টুইটারে আনফলো করে দিয়েছেন মহুয়া মৈত্র।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla