Khaleda Jia: বাংলাদেশ জুড়ে খালেদা জিয়ার মৃত্যুর গুজব, কেমন আছেন নেত্রী?

Khaleda Jia: দীর্ঘদিন ধরে গুরুতর অসুস্থ খালেদা জিয়া। তাঁর সিসিইউ-তে চিকিৎসা চলছে। দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত হওয়ায় তাঁকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি।

Khaleda Jia: বাংলাদেশ জুড়ে খালেদা জিয়ার মৃত্যুর গুজব, কেমন আছেন নেত্রী?
গুরুতর অসুস্থ খালেদা জিয়া

ঢাকা: অনেক দিন ধরেই অসুস্থ খালেদা জিয়া। এবার তাঁকে নিয়ে গুজব ছড়াল বাংলাদেশে। যদিও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন সবটাই নিছক গুজব। একেবারে সুস্থ আছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী। বিএনপির তরফ থেকে এক সাংবাদিক সম্মেলনে খালেজা জিয়াকে নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, সুস্থ খালেদা জিয়া। অসৎ উদ্দেশ্যে গুজবগুলো ছড়ানো হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার রাত থেকে হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে অনেক ‘বিভ্রান্তিকর’ তথ্য ছড়াতে থাকে। তবে খালেদা জিয়ার অবস্থা যে এখনও আশঙ্কাজনক, সে কথা জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন। জানানো হয়েছে, চিকিৎসকেরা নজর রাখছেন। তাঁকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চলছে।

সারাদেশে ‘রেড এলার্ট’ জারি হয়েছে বলেও গুজব ছড়ায়। ফখরুল বলেন, “রেড এলার্ট কোথায় পেলেন আপনারা? এখানে সরকার কি কোনও বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে? আমি দেখিনি।”

আরও উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন থাকায় খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন বলে মনে করে তাঁর পরিবার। আর সেদিকে তাকিয়ে সরকারের কাছে কিছুদিন আগেই আবেদন করা হয়েছিল খালেদা জিয়ার পরিবারের তরফে। খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফের চিঠি দিয়েছিলেন। যদিও এখনও সরকারের তরফে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

খালেদা জিয়ার পরিবারের এক সদস্য স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত বিদেশে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দিয়েছেন। সে জন্য তাঁরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে নতুন করে আবেদন করেছেন। এই মুহূর্তে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খালেদা। সিসিইউতে ডাক্তাররা তাঁকে মনিটারিংয়ে রেখেছেন। কিন্তু এই মুহূর্তে খালেদা জিয়া যেভাবে হাসপাতালে ভর্তি তাতে উদ্বেগ রয়েছে। আর সেই কারণে কে বিদেশে উড়িয়ে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করানো উচিৎ বলেও দাবি।

৭৬ বছর বয়সের দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বহু বছর ধরে আর্থ্রারাইটিস, ডায়াবেটিস, কিডনি, ফুসফুস, চোখের সমস্যাসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন। অসুস্থতার জন্য টানা ২৬ দিন ওই হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে হয়েছে। গত ৭ নভেম্বর বাড়িতে ফেরেন তিনি। কিন্তু ফের অসুস্থ হয়ে যাওয়ার কারণে দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। উল্লেখ্য, দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত খালেদা জিয়া। ২০০৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জেলে যেতে হয় তাঁকে। করোনা মহামারির কারনে গত বছরের ২৫ মার্চ সরকার শর্তসাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। তিন দফায় খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয়। তবে বিএনপির নেতারা খালেদা জিয়ার শর্তসাপেক্ষে এ মুক্তিকে ‘গৃহবন্দি’ বলছেন।

আরও পড়ুন : নমুনা পরীক্ষা বাড়তেই ফের ৮০০ পেরোল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla