বসন্তে রোগ প্রতিরোধে ট্রাই করুন এই দুটি রেসিপি

এই সময়ে বিশেষ কিছু খাবার গ্রহণ করলে শরীরে রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো যায়।যেমন কলমি শাক, ডাঁটা। কলমি শাক বসন্ত রোগের প্রতিষেধক হিসাবে কাজ করে। আপনাদের জন্য রইল তেমনিই দুটি খাবারের রেসিপি।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 12:57 PM, 22 Feb 2021
বসন্তের খাবার

ফুল ফুটুক না ফুটুক আজ বসন্ত’—- বসন্ত বললেই এই প্রবাদটি সবার প্রথম মাথায় আসে। শীতের শেষ, গ্রীষ্মের শুরু। বাতাসের মিষ্টি হাওয়া এক মনোরম পরিবেশ তৈরি করে। কিন্তু এই মরশুমে একটু ঠান্ডা, একটু গরম, এই আবহাওয়ার পরিবর্তন মানুষের শরীরে বেশ প্রভাব ফেলে। তাই এই সময়ে ত্বক থেকে শুরু করে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দেয়। এই সময়ে বিশেষ কিছু খাবার গ্রহণ করলে শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো যায়।যেমন কলমি শাক, ডাঁটা। কলমি শাক বসন্ত রোগের প্রতিষেধক হিসাবে কাজ করে। আপনাদের জন্য রইল তেমনিই দুটি খাবারের রেসিপি।

ডাঁটা শুক্তো:

ডাঁটা শুক্তো

 

উপকরণ

১টি করলা (স্লাইস করে কাটা), ১টি রাঙা আলু, ১ কাপ বেগুন (চৌকো করে কাটা), ১ কাপ কুমড়ো (চৌকো করে কাটা), ১০টি সজনে ডাটা, /২ কাপ কাঁচা পেঁপে, /২ কাপ ঝিঙে, /২ কাপ কাঁচকলা, /২ টেবিল চামচ সর্ষে পেস্ট, ১ টেবিল চামচ পোস্ত পেস্ট, ১ টেবিল চামচ চিনি, /২ কাপ দুধ, ২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ১ চা চামচ মেথি, ১টি গোটা শুকনো লঙ্কা, ১টি তেজ পাতা, ১ টেবিল চামচ আদা পেস্ট, ১ টেবিল চামচ ঘি, সর্ষে তেল (প্রয়োজন অনুযায়ী), নুন (দরকার মত)

প্রণালী

ফ্রাইং প্যানে সর্ষে তেল গরম করুন৷ এবার তেলে বড়ি ছেড়ে সেগুলিকে বাদামি করে ভেজে নিন৷ এবার ওই তেলে করলাগুলিকে ভালো করে ভেজে নিতে হবে৷ পেপার তোয়ালেতে জড়িয়ে বাড়তি তেল ঝড়িয়ে নিয়ে একপাশে রেখে দিন এগুলি৷ ফ্রাইং প্যানে আরও এক চামচ তেল দিয়ে ফের গরম করে নিন৷ এবার ওতে শুকনো লঙ্কা, তেজপাতা আর রাঁধুনি দিয়ে দিন৷ মশলা ফাটতে শুরু করলে সবজিগুলি দিন৷ অল্প ভাজা ভাজা হলে ওর মধ্যে নুন এবং হলুদ গুঁড়ো দিতে হবে৷ অল্প আঁচে ৫ মিনিট মতো রান্না হতে দিন৷ এবার ওতে পোস্ত এবং সর্ষে পেস্ট দিয়ে ৫ মিনিট নাড়াচাড়া করুন৷ জিরে গুঁড়ো এবং চিনি দিন৷ ১ কাপ জল দিয়ে ঢেকে দিন৷ ১৫ মিনিট মত লাগবে সবজি সেদ্ধ হতে৷ হয়ে গেলে বড়ি এবং করলা ভাজা ওতে দিন৷ আদা পেস্ট দিন৷ ৫ মিনিট নাড়াচাড়া করার পর ওর মধ্যে দুধ ও ঘি দিয়ে রান্না হতে দিন৷ ফুটতে শুরু করলে গ্যাস বন্ধ করে দিন৷ ঠান্ডা হলে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন৷

 

কলমি শাকের চচ্চড়ি

কলমি শাকের চচ্চড়ি

 

উপকরণ

১আঁটি কলমি শাক, ১টি মাঝারি মাপের আলু, ১টেবিল চামচ কালো সর্ষে বাটা, ৫টি কাঁচা লঙ্কা বাটা, ১টি শুকনো লঙ্কা(ফোঁড়নের জন্য), /২ চাচামচ পাঁচফোঁড়ন, /২ কাপ সর্ষের তেল, ১০ কোয়া রসুন থেঁতো, /২ চাচামচ হলুদ গুঁড়ো, স্বাদ মতো নুন, অল্প পরিমাণ চিনি(না দিলেও চলে)

প্রণালী

শাক বেচে লম্বা লম্বা করে কেটে নিলাম আলুর খোসা ছাড়িয়ে লম্বা লম্বা করে কেটে নিন। সর্ষে, কাঁচা লঙ্কা বেটে নিন।রসুনের খোসা ছাড়িয়ে রাখুন। কড়াইতে তেল গরম করে পাঁচফোড়ন শুকনো লঙ্কা ও রসুন থেঁতো করে ফোড়ন দিন। ফোড়নের ওপর শাক ও আলু গুলো দিয়ে নেড়ে চেড়ে নুন ও হলুদ দিয়ে নেড়ে ঢাকা দিয়ে দিন। দশ মিনিট পর ঢাকা খুলে দেখুন শাক সিদ্ধ হয়েছে কিনা শাক সিদ্ধ হলে সরষে ও কাঁচা লঙ্কা বাটা ও সামান্য চিনি দিয়ে নেড়ে চেড়ে নিন। ঠান্ডা হলে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন৷