পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী বৈদ্যুতিক গাড়ি কোন দেশে আছে?

আপনি কি জানেন এই মহামারির মধ্যে দাঁড়িয়েও ২০২০ সালেও বেশ কিছু দেশের মোটরগাড়ি বিক্রির হার বেশ উর্ধ্বগামী?

  • Publish Date - 7:12 pm, Tue, 18 May 21
পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী বৈদ্যুতিক গাড়ি কোন দেশে আছে?

কোভিড পরিস্থিতিতে মোটরগাড়ি শিল্প বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিশ্বজুড়ে। কিন্তু আপনি কি জানেন এই মহামারির মধ্যে দাঁড়িয়েও ২০২০ সালেও বেশ কিছু দেশের মোটরগাড়ি বিক্রির হার বেশ উর্ধ্বগামী? হ্যাঁ ঠিকই শুনছেন, ২০২০-এর হিসেব বলে সারা বিশ্বে ব্যক্তিগত গাড়ি যা বিক্রি হয়েছে, তার ৪.২ শতাংশই হল প্লাগ ইন ইলেক্ট্রিক ভেইক্যাল (PEV)। এই পরিমাণটা ২০১৯ সালের ব্যবসার থেকে ২.৫ শতাংশ বেশি।


প্যান্ডেমিকের কোপে সারা দেশের মোটরগাড়ি ব্যবসা যখন ধুঁকছে, ঠিক সেই সময় দাঁড়িয়ে বিশ্বের ১৩টি দেশ নতুন গাড়ি বিক্রি করার কথা ভাবছে। তবে হালকা গাড়ির মধ্যে প্লাগ ইন ইলেক্ট্রিক ভেইক্যাল সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে। এই গাড়িগুলি আসলে বৈদ্যুতিক গাড়ি, তাই এতে রয়েছে ব্যাটারির সাপোর্ট, অতএব এই ধরণের গাড়িগুলি অনেক বেশি সাশ্রয়ী।

আরও পড়ুন: অজানা বাঁধ-পাহাড়-জঙ্গল-জলপ্রপাতে ঘেরা এক রহস্যময় অচেনা ওড়িশা!


২০২০ সালে সবচেয়ে বেশি ইলেকট্রিক গাড়ির ব্যবসা করে নরওয়ে। বিশ্বের ইলেকট্রিক গাড়ির বাজারে ৭৫শতাংশ শেয়ার ছিল এই দেশের। এরপরেই বিশ্বের প্রথম সারির পাঁচটি ইলেকট্রিক গাড়ি শিল্পে উন্নত দেশের মধ্যে নাম আসে আইসল্যান্ড, সুইডেন, ফিনল্যান্ডের। এই নর্ডিক দেশগুলি ছাড়াও ইলেকট্রিক গাড়ি শিল্প এগিয়ে রয়েছে চীন। চীনে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মোটরগাড়ির বাজার রয়েছে। কোভিড পরিস্থিতিতেও সেখানে ৬.২ শতাংশ প্যাসেঞ্জার গাড়ির বিক্রি হয়েছে। এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে ইউনাইটেড স্টেটের গাড়ির শেয়ার মাত্র ২.৩ শতাংশ।

নরওয়ের ব্যবসার পলিসি অনুযায়ী ইলেকট্রিক গাড়ির প্রমোশনে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়। নরওয়ে গাড়ির মডেল সচরাচর অন্য দেশে স্থানান্তরিত হয় না। এই দেশের গাড়ি কিনতে হলে আমদানি শুল্ক অনেকটা বেশি দিতে হয় অন্য দেশকে। তাই আমেরিকা ব্যবসায় নরওয়ে থেকে অনেকটা পিছিয়ে পড়ে সবসময়। নরওয়ে এমনিতেও ধনী দেশ, তার উপরে নরওয়ে নিজের দেশে গাড়ি তৈরী করে। ইউনাইটেড স্টেট বিশ্বের বাজারে তাই নরওয়েকে পাল্লা দিয়ে এগোতে পারেনি এখনও। প্লাগ ইন ইলেক্ট্রিক ভেইক্যালের বাজারে বিশ্বের বাজারে পরপর যে নামগুলি আসে তা হল, নরওয়ে (৭৪.৮%), আইসল্যান্ড(৪৫%), সুইডেন(৩২.২%), নেদারল্যান্ড (২৪.৭%), ফিনল্যান্ড(১৮.১%), ডেনমার্ক(১৬.৪%), সুইজারল্যান্ড(১৪.৩%), পোর্তুগাল(১৩.৫%), জার্মানি(১৩.৫%), লাক্সেমবার্গ (১১.৪%), ফ্রান্স (১১.৩%), বেলজিয়াম (১০.৭%), ইউনাইটেড কিংডম(১০.৭%), অস্ট্রেলিয়া (৯.৫%), আয়ারল্যান্ড(৭.৪%), চীন(৬.২%), ইউনাইটেড স্টেট(২.৩%)। বিশ্বের ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারের শেয়ারে চীন, ইউনাটেড স্টেট বেশ পিছিয়ে রয়েছে প্রতিযোগীতায়।