Mahendra Singh Dhoni: ধোনিকে মেন্টরও করতে পারবে না সিএসকে…

ধোনির মতো কোনও ক্রিকেটারকে যদি মেন্টর কিংবা কোচের পদে নিয়োগ করতে চায় কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি? বোর্ড কর্তার পরিষ্কার জবাব

Mahendra Singh Dhoni: ধোনিকে মেন্টরও করতে পারবে না সিএসকে...
Image Credit source: TWITTER
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Dipankar Ghoshal

Aug 14, 2022 | 8:45 AM

নয়াদিল্লি : আরব আমিরশাহি টি ২০ লিগে দল কিনেছে আইপিএলের (IPL) তিনটি ফ্র্যাঞ্চাইজি। আরও দুটি দলে ভারতীয় মালিকানা। তেমনই দক্ষিণ আফ্রিকা টি ২০ লিগেও (CSA T20 League) দল রয়েছে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজির। দুটি লিগই শুরু হচ্ছে নতুন বছরের শুরুতে। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, দিল্লি ক্যাপিটালস, কলকাতা নাইট রাইডার্সের দল রয়েছে আরব আমিরশাহি টি ২০ লিগে। তেমনই দক্ষিণ আফ্রিকা টি ২০ লিগে এই তিনটি ফ্র্যাঞ্চাইজি ছাড়াও লখনউ সুপার জায়ান্টস, সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং চেন্নাই সুপার কিংসের (CSK)। ভারতীয় ফ্র্যাঞ্চাইজিরা দল কিনলেও ভারতীয় ক্রিকেটাররা কোনও ভাবেই যুক্ত থাকতে পারবেন না। বোর্ডের চুক্তিবদ্ধ কিংবা আইপিএলের প্লেয়ার, যেই হোক না কেন। খেলা দূর অস্ত, মেন্টরও হতে পারবেন না। আরও সহজ কথায়, দক্ষিণ আফ্রিকা টি ২০ লিগে চেন্নাই সুপার কিংসের দল থাকলেও, মহেন্দ্র সিং ধোনিকে (Mahendra Sing Dhoni) মেন্টর হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন না তারা।

ভারতীয় বোর্ডের তরফে পরিষ্কার নির্দেশিকা রয়েছে, বোর্ডের চুক্তিবদ্ধ কোনও ক্রিকেটার বিদেশের কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলতে পারবে না। মহিলাদের পূর্ণাঙ্গ আইপিএল না থাকায় তাঁদের অবশ্য এই নিয়মের বাইরে রাখা হয়েছে। বিগ ব্যাশ, কিয়া সুপার লিগ, হান্ড্রেডে খেলার অনুমতি দেওয়া হয় তাদের। ধোনির ক্ষেত্রে যা সম্ভবব নয়। বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, ‘এটা পরিষ্কার, ভারতের কোনও ক্রিকেটার, এমনকি ঘরোয়া ক্রিকেটারও বাইরের লিগে খেলতে পারবে না। সে যদি সমস্ত ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে থাকে, সে ক্ষেত্রে আলাদা ব্যাপার। কোনও ক্রিকেটার যদি এই দুই লিগে খেলতে চায়, বিসিসিআইয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে।’

ধোনির মতো কোনও ক্রিকেটারকে যদি মেন্টর কিংবা কোচের পদে নিয়োগ করতে চায় কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি? বোর্ড কর্তার পরিষ্কার জবাব, ‘তাহলে তাঁকে আইপিএল থেকেও অবসর নিতে হবে।’ ২০১৯ সালে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের ড্রেসিংরুমে বসে ম্যাচ দেখেছিলেন দীনেশ কার্তিক। বোর্ডের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হয়েছিল তাঁকে। বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তি অনুযায়ী, এর জন্য তাঁকে অনুমতি নিতে হত। কার্তিক জানিয়েছিলেন, কেকেআরের নতুন কোচ ব্রেন্ডন ম্যাকালামের অনুরোধেই ত্রিনবাগোর জার্সি পরে খেলা দেখছিলেন।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ক্রিকেটার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট মন্তব্য করেছেন, ‘কোনও সমালোচনায় যাচ্ছি না, তবে ভারতীয় ক্রিকেটাররা কেন বিগ ব্যাশে খেলতে পারবেন না? এর কোনও জবাব আমার কাছে অন্তত নেই। বিশ্বের নানা প্লেয়ার বিভিন্ন লিগে খেলেন। ভারতীয় ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে কেন নয়!’ আইপিএলের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুনীল গাভাসকর অজি ক্রিকেটার গিলক্রিস্টের নাম না করে বলেছেন, ‘কিছু বিদেশি প্রাক্তন ক্রিকেটার মন্তব্য করেছেন, ভারতীয় ক্রিকেটারদের বিগ ব্যাশ কিংবা হান্ড্রেডে খেলতে দেওয়া উচিত। আসলে তারা তাদের লিগে আরও বেশি স্পনসর টানতে চায়। তারা নিজেদের ক্রিকেট নিয়ে ভাবিত, এটা বুঝতে সমস্যা নেই। তেমনই ভারতীয় বোর্ডও যদি চায়, নিজেদের প্লেয়ারদের ফিট রাখতে সেটাও যুক্তিসঙ্গত।’

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla