India vs Pakistan Retro Story: ভারতের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে মুখ থুবড়ে পড়েছিল পাকিস্তান, স্বাধীনতার ৭৫ বছরের প্রাক্কালে শুনুন সেই গল্প

ভারতীয় দলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে খেলেছিলেন দুই বঙ্গ সন্তানও। ওপেনার পঙ্কজ রায় এবং উইকেটকিপার খোকন সেন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক টেস্টে কেমন পারফরম্যান্স ছিল দুই বাঙালির?

India vs Pakistan Retro Story: ভারতের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে মুখ থুবড়ে পড়েছিল পাকিস্তান, স্বাধীনতার ৭৫ বছরের প্রাক্কালে শুনুন সেই গল্প
ক্রিকেটের মহারণ : ফেলে আসা গল্পের খোঁজে TV9 বাংলা
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanghamitra Chakraborty

Aug 14, 2022 | 8:00 PM

রাত পোহালেই ৭৫তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন হবে দেশ জুড়ে। উপমহাদেশ ভেঙে ভারতের জন্ম হয়েছিল ১৯৪৭ সালের ১৫ অগস্ট। ৩০০ বছরেরও বেশি ইংরেজদের দাসত্ব করা নিঃস্ব, রিক্ত একটা দেশ ধীরে ধীরে মাথা তুলে দাঁড়াবে। শিল্প, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান, দর্শন, ব্যবসা— সব মহল্লাতেই ছাপ রাখবে নতুন ভারত। আর খেলাতে? সেখানেও সাফল্য কি কম! পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম টেস্ট ম্যাচ এখনও অনেকের স্মৃতিতে উজ্জ্বল। স্বাধীনতার ৭৫ বছরের প্রাক্কালে সেই গল্প শোনালেন দীপঙ্কর ঘোষাল

ভারত-পাক মহারণের কথা মাথায় রেখে এই দুই দেশের ক্রিকেট ইতিহাস থেকে বাছাই করা কিছু ঘটনা তুলে ধরল TV9 Bangla। আজ তার প্রথম কিস্তি।

অক্টোবরের সকাল। কনকনে ঠান্ডা দিল্লি জুড়ে। সেই সঙ্গে হীমেল বাতাস যেন হাড়ে হাড়ে ঠোকাঠুকি লাগিয়ে দিচ্ছে। নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে শীতের দাপট শুরু হয় রাজধানীতে। এ বার যেন অনেক আগে থেকে ভেল্কি দেখাতে শুরু করেছে! রোদ ওঠায় ঠান্ডার হাত থেকে খানিকটা রেহাই পাওয়া গিয়েছে ঠিকই, কিন্তু শীত সমানে কামড় বসাচ্ছে। সে সব উপেক্ষা করেই ফিরোজশাহ কোটলার গ্যালারিতে সকাল থেকেই ভিড়। বেশির ভাগই তরুণ মুখ। মহিলাও রয়েছেন কিছু। তবে হাতে গোনা। হবে না কেন? ঐতিহাসিক টেস্ট ম্যাচ বলে কথা! ক্রিকেট মাঠে প্রথম বার মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত-পাকিস্তান। দেশ ভাগের পর এই প্রথম ভারত সফরে এসেছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। সাদা জার্সিতে লাল বলের মহাযুদ্ধ। হ্যাঁ, মহাযুদ্ধই বলতে হবে। ওয়াঘার এপার-ওপারে এই ম্যাচ ঘিরে বয়ে যাচ্ছে উত্তেজনার স্রোত। দেশভাগের ক্ষত তখন দগদগে। বছরখানেক আগেই অগণিত মানুষকে আড়াআড়ি ভাগ করে বর্ডার নামক এক আশ্চর্য শব্দ। অজান্তেই যেন কিছু মানুষ, যাদের ঠিকানা নতুন ভারত কিংবা নতুন পাকিস্তান, তারা শত্রু হয়ে গিয়েছে একে অপরের। সেই দুটো দেশ এই প্রথম ক্রিকেট মাঠে মুখোমুখি। ভারত বাইশ গজের পুরনো প্লেয়ার। পাকিস্তান নতুন। সদ্য তাদের পথচলা শুরু হয়েছে ক্রিকেট মাঠে। আর তাই টেনশন রয়েছে। উত্তেজনা বাড়ছে। সেই সঙ্গে তালমিলিয়ে চোখাচোখা স্লোগান। কোনও ড্রেস কোড না থাকলেও, গ্যালারি মূলত সাদা পোষাক পরেই এসেছেন একদঙ্গল তরুণ। হয়তো শান্তির নতুন বার্তা দিতে চাইছেন তাঁরা।

সেই শুরু ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট দ্বৈরথ। শতাব্দী পেরিয়েও যার ক্যারিশমা, আকর্ষণ কমেনি। আজও ক্রিকেটের সেরা লড়াই ভারত-পাক ম্যাচ। ১৯৫২ সালে শুরু হয়েছিল যা। তখন থেকেই সমানে সমানে টক্কর দেওয়ার মরিয়া চেষ্টা। বেশ কিছু প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছিল দুটো টিম। তারপর পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। প্রথম ম্যাচ হয়েছিল দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায়। ম্যাচের প্রথম দিন খেলা শুরুর আগে দু-দেশের ক্রিকেটারদের সঙ্গে মিলিত হন ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি ড. রাজেন্দ্র প্রসাদ। ভারতের বিরুদ্ধে ভারতেরই মাটিতে সিরিজের প্রথম টেস্ট পাকিস্তানের অভিষেক ম্যাচও ছিল। পাকিস্তান শিবিরেও একাদশের ৯ জন ক্রিকেটারের টেস্ট অভিষেক হয় সেই ম্যাচে।

কারা খেলেছিলেন সেই ম্যাচে? লালা অমরনাথ ছিলেন ভারতের ক্যাপ্টেন। বিজয় হাজারে, বিজয় মঞ্জরেকর, বিনু মানকড়, পলি উমড়িগর, হেমু অধিকারি, গুল মহম্মদ, গুলাবরাই রামচাঁদ এবং গুলাম আহমেদ। না, এতেই শেষ নয় টিমের তালিকা। ভারতীয় দলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে খেলেছিলেন দুই বঙ্গ সন্তানও। ওপেনার পঙ্কজ রায় এবং উইকেটকিপার খোকন সেন।

পাকিস্তান টিম নতুন, আনকোরা। হানিফ মহম্মদ, নজর মহম্মদ, ইসরার আলি, ইমতিয়াজ আহমেদ, মকসুদ আহমেদ, আনোয়ার হুসেইন, ওয়াকার হাসান, ফজল মাহমুদ, খান মহম্মদ। আরও দু’জন কারা? আব্দুল কার্দার এবং আমির এলাহি। যাঁরা ভারতের হয়ে আগেই টেস্ট খেলেছিলেন। অভিজ্ঞতা থাকার কারণেই তাদের অভিষেক টেস্টে পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দেন আব্দুল কার্দার।

প্রথম ম্যাচে ভারতেরই দাপট। ইনিংস এবং ৭০ রানের বড় ব্যবধানে জয় ভারতীয় দলের। সরকারি টেস্ট ম্যাচের নিরিখে এটি ছিল ভারতের দ্বিতীয় জয়। লালা অমরনাথের টিমের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ভিনু মানকড় ও পঙ্কজ রায় দুই ওপেনারই মাত্র ২৬ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। ভারতীয় ইনিংসে অনবদ্য অবদান বিজয় হাজারের (৭৬)। দশম উইকেটে নজির গড়েন হিমু অধিকারি এবং গুলাম আহমেদ। দশম উইকেটে ১০৯ রান যোগ করেন তাঁরা। ২০০৪ সাল অবধি এই রেকর্ড অক্ষুণ্ণ ছিল। সচিন তেন্ডুলকর-জাহির খান জুটি (১৩৩) এই রেকর্ড ছাপিয়ে যান। ভারত প্রথম ইনিংসে করে ৩৭২। জবাবে পাকিস্তানকে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৫০ রানে অলআউট হয়ে যায়। ফলোঅন করে কার্দারের পাকিস্তান। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ফের ব্যাটিং বিপর্যয়। এ বার পাকিস্তান শেষ ১৫২ রানে। হানিফ মহম্মদ প্রথম ইনিংসে করেছিলেন সর্বোচ্চ ৫১। পরের ইনিংসে কর্দার সর্বোচ্চ ৪৩ করেন। আক্রমণাত্মক ফিল্ডিং সাজায় ভারত। দুটি চোখ ধাঁধানো ক্যাচ মেলে ক্লোজ ইন ফিল্ডিংয়ে। এর একটি বাংলার পঙ্কজ রায়ের। ভারতের বাঁ হাতি স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার ভিনু মানকড় ম্যাচে সবচেয়ে বেশি নজর কাড়েন। প্রথম ইনিংসে নেন ৮ উইকেট। সব মিলিয়ে ম্যাচে ১৩১ রান দিয়ে ১৩ উইকেট।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে দুই বাঙালির কী অবদান? প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে পঙ্কজ করেছিলেন ৭ রান। আর নিয়েছিলেন দুটো দুরন্ত ক্যাচ। কিপার খোকন ব্যাট হাতে করেছিলেন ২৫ রান। আর বিনু মানকড়ের বলে স্টাম্প করেছিলেন বিপক্ষের খান মহম্মদকে।

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম টেস্ট জয়ের উৎসব চলেছিল বেশ কয়েক দিন ধরে। অকাল দীপাবলি পালন হয়েছিল দেশ জুড়ে। এপারে যখন উৎসব, ওপারে তখন অন্ধকার। আজও অমলীন। সেই প্রতিদ্বন্দ্বিতার ধারা। সামনেই এশিয়া কাপ। ২৮ অগস্ট ফের একবার মুখোমুখি হবে ভারত-পাকিস্তান। রঙিন পোষাকে, টি ২০ ফরম্যাটে। গত টি ২০ বিশ্বকাপের পর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছে দুই দেশ। এখন থেকেই তার উত্তেজনা তুঙ্গে। হবেই তো, ভারত-পাকিস্তান নামছে যে!

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla