Dani Alves: যৌন হেনস্থার অভিযোগে শ্রীঘরে, আলভেসের মামলা লড়বেন মেসির আইনজীবী

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Tithimala Maji

Updated on: Jan 25, 2023 | 5:58 PM

করফাঁকি মামলায় লিওনেল মেসিকে উদ্ধার করেছিলেন যে আইনজীবী, এ বার তাঁরই দ্বারস্থ হলেন যৌন হেনস্থায় জেলে যাওয়া ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার দানি আলভেস।

Dani Alves: যৌন হেনস্থার অভিযোগে শ্রীঘরে, আলভেসের মামলা লড়বেন মেসির আইনজীবী
Image Credit source: Twitter

মাদ্রিদ: জোর বিপদে পড়েছেন ব্রাজিলের তারকা ফুটবলার দানি আলভেস (Dani Alves)। যৌন হেনস্থা মামলায় বর্তমানে বার্সেলোনার জেলে রয়েছেন তিনি। পাচ্ছেন না জামিন। এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে মরিয়া ফুটবলার। তাই আলভেস দ্বারস্থ হয়েছেন স্পেনের খ্যাতনামা আইনজীবী ক্রিস্টোফার মার্তেলের। যৌন হেনস্থার মতো গুরুতর অভিযোগ থেকে মুক্তি পেতে মার্তেলই ভরসা। যাঁর ক্লায়েন্টের তালিকায় রয়েছেন আলভেসের বার্সেলোনার সতীর্থ লিওনেল মেসি (Lionel Messi), স্পেনের বিজনেস টাইকুন জর্ডি পুয়োল ফেরিসোলার মতো মানুষরা। বার্সেলোনার থাকাকালীন কর ফাঁকি মামলায় মেসির হয়ে লড়েছিলেন মার্তেল। তাঁকেই নিয়োগ করেছে ৩৯ বছরের দানি আলভেস। দানির বিরুদ্ধে অভিযোগ, বার্সেলোনার নাইটক্লাবে বিনা অনুমতিতে ২৩ বছরের এক যুবতীর অন্তর্বাসের ভেতর হাত ঢুকিয়েছিলেন তিনি। ওই যুবতী পরে অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতেই শ্রীঘরে জাতীয় দলে নেইমারের সতীর্থ। বিস্তারিত TV9 Bangla-য়।

ওই যুবতীর অভিযোগ, কাতার বিশ্বকাপের পর গতবছরের ৩০ ডিসেম্বর বার্সেলোনার একটি নাইটক্লাবে তাঁকে যৌন হেনস্থা করেন দানি আলভেস। অভিযোগের ভিত্তিতে ফুটবলারকে গ্রেফতার করে কাতালুনিয়া পুলিশ। জবানবন্দিতে আলভেস স্বীকার করেছেন যে অল্প সময়ের জন্য হলেও সেদিন ওই নাইটক্লাবে তিনি উপস্থিত ছিলেন। তবে কারও যৌন হেনস্থা করেননি। তবে হাজতে থাকাকালীন তিন রকমের জবানবন্দীও দিয়েছেন। কখনও বলেছেন, মহিলাকে তিনি চেনেন না। কখনও আবার বলেছেন, ওই মহিলার সঙ্গে দেখা হলেও তাঁদের মধ্যে কিছু ঘটেনি। তৃতীয়বার জবানবন্দীতে আলভেস বলেন, ওই মহিলাই তাঁর গায়ে এসে ঢলে পড়েছিল।

সেই যুবতী আরও বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ্যে এনেছেন। স্প্যানিশ নিউজপেপারে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী,  ওই মহিলাকে বাথরুমে বন্দী করেন দানি আলভেস। সেখানেই যৌন হেনস্থা করেন। বাধা দেওয়ার মরিয়া চেষ্টা করলেও আলভেসের শক্তির সঙ্গে পেরে ওঠেননি, এমনটাই দাবি সেই তরুণীর। স্পেনের আর একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে, বাথরুমে প্রায় ১৫ মিনিট ধরে তরুণীকে শারীরিক নির্যাতন করেন দানি আলভেস। পুলিশের বিবৃতি, সেখানে উপস্থিত অন্য়ান্য়দের বয়ান, অভিযোগের ভিত্তিতে নানা তথ্যই সামনে আসছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla