AIFF: ফিফার কড়া শাস্তিতে ‘শুদ্ধিকরণের’ সম্ভাবনা দেখছেন বাইচুং

মাঝ রাতে ভারতীয় ফুটবলের জন্য অন্ধকার বার্তা।

AIFF: ফিফার কড়া শাস্তিতে 'শুদ্ধিকরণের' সম্ভাবনা দেখছেন বাইচুং
Image Credit source: TWITTER
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Abhishek Sengupta

Aug 16, 2022 | 1:08 PM

নয়াদিল্লি : স্বাধীনতার ৭৫ বছরের উৎসবের রেশ শেষ হতে না হতে ভারতীয় ফুটবলের অন্ধকার। ফিফার বার্তায় বেসামাল সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থা। তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপের জন্য এআইএফএফকে (AIFF) নির্বাসিত করেছে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা (FIFA)। ফিফার এই সিদ্ধান্তকে খুবই কড়া বলে বর্ণনা করেছেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা ভারতীয় ফুটবলের কিংবদন্তি বাইচুং ভুটিয়া (Bhaichung Bhutia)। অক্টোবরে ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল অনূর্ধ্ব ১৭ মেয়েদের বিশ্বকাপ। ফিফার নির্বাসনের ফলে তা বিশ বাঁও জলে। এক দিকে যেমন ফিফার সিদ্ধান্তকে খুবই কড় শাস্তি বলছেন। তেমনই এর মধ্যে ভারতীয় ফুটবলের শুদ্ধিকরণের একটি সম্ভাবনাও দেখছেন বাইচুং।

দেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার প্রাক্তন অধিনায়ক বাইচুং বলছেন, ‘ফিফা ভারতীয় ফুটবলকে নির্বাসিত করেছে। খুবই দুর্ভাগ্যজনক। একই সময়, আমার মনে হয় ফিফা অত্যন্ত কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’ এরপরই বাইচুং যোগ করেন, ‘ কিন্তু আমি এর মধ্যে আরও একটা সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি। আমার মনে হয়, এর ফলে সুযোগ রয়েছে আমাদের ফুটবলকে সঠিক রাস্তায় ফেরানোর। ভারতীয় ফুটবলের সঙ্গে যুক্ত সকলের কাছে এই সময়টা খুবি গুরুত্বপূর্ণ। ফেডারেশন, রাজ্য ফুটবল সংস্থা সকলে মিলে ভারতীয় ফুটবলের স্বার্থে, দেশের ফুটবলের উন্নতিতে যা প্রয়োজন সেটা করুক। সকলে এক জোট হয়ে ভারতীয় ফুটবলকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনুক।’

ভারতীয় সময় রাত ২টোর পর ফিফা এক ই-মেলে প্রেস বিবৃতি জানায়, তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপের কারণে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনে নির্বাসিত করার বিষয়ে। ৮৫ বছরের ইতিহাসে প্রথম ফিফার নির্বাসনের মুখে পড়ল সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থা। ফেডারেশনের এই পরিস্থিতির কারণ প্রাক্তন সভাপতি প্রফুল প্যাটেল। বছরের পর বছর সভাপতির পদ আঁকড়ে বসেছিলেন। শেষ অবধি এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে হয় দেশের শীর্ষ আদালতকে। সুপ্রিম কোর্টের তরফে প্রশাসকদের একটি কমিটি গঠন করা হয়। সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের দায়িত্বে এখন প্রশাসকদের কমিটির হাতে। নির্বাচনের মাধ্যমে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের যতক্ষণ না নতুন এক্সিকিউটিভ কমিটি গঠিত হচ্ছে এবং সমস্ত নিয়ন্ত্রণ ফিরে আসছে, ফিফার এই নির্বাসন বহাল থাকবে। বিরাট ক্ষতিগ্রস্থ হবে ভারতীয় ফুটবল। ফিফা এবং এএফসি-র একটি দল গত মাসে ভারতে এসেছিল। এআইএফএফ-র জন্য একটি নির্দেশিকাও দিয়েছিল তারা। ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে সেই নির্দেশিকা পূরণের সময়সীমা দেওয়া হয়েছিল। সেটা করে উঠতে পারেনি সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla