Neymar: বাবার কথাতেই সই করি, আদালতে বললেন নেইমার

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Sanghamitra Chakraborty

Updated on: Oct 18, 2022 | 7:47 PM

বছর ৩০ এর নেইমার ও তাঁর পাশাপাশি তাঁর বাবা-মা, প্রাক্তন বার্সেলোনা সভাপতি স্যান্দ্রো রসেল ও স্যান্টোসের প্রাক্তন সভাপতি ওদিলো রদ্রিগেজসহ আটজন এই জালিয়াতি ও দুর্নীতির অভিযোগে বিচারাধীন।

Neymar: বাবার কথাতেই সই করি, আদালতে বললেন নেইমার
বাবার কথাতেই সই করি, আদালতে বললেন নেইমার
Image Credit source: Twitter

বার্সেলোনা: বার্সেলোনায় (Barcelona) চলছে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমারের  (Neymar) বিরুদ্ধে জালিয়াতি ও দুর্নীতির অভিযোগের মামলার শুনানি। আজ, মঙ্গলবার বার্সেলোনার কোর্টে পিএসজি তারকা নেইমার জানিয়েছেন, তাঁর বাবা, যিনি তাঁর ম্যানেজার বরাবর তিনিই নেইমারকে যে চুক্তিপত্রে সই করতে বলতেন, তিনি সেখানেই সই করতেন। ২০১৩ সালে স্যান্টোস থেকে বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার সময়ও তিনি তাঁর বাবার কথা শুনেই চুক্তিপত্রে সই করেছিলেন। ওই সময় তিনি কোনও আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন কিনা, এ ব্যাপারে তাঁর পরিষ্কার কিছু মনে নেই, বলে জানিয়েছেন নেইমার। আর কী বললেন নেইমার তুলে ধরা হল TV9Bangla-র এই প্রতিবেদনে।

বছর ৩০ এর নেইমার ও তাঁর পাশাপাশি তাঁর বাবা-মা, প্রাক্তন বার্সেলোনা সভাপতি স্যান্দ্রো রসেল ও স্যান্টোসের প্রাক্তন সভাপতি ওদিলো রদ্রিগেজসহ আটজন এই জালিয়াতি ও দুর্নীতির অভিযোগে বিচারাধীন। এখনও অবধি এই মামলার সঙ্গে যুক্ত কোনও অভিযুক্তই এই জালিয়াতি ও দুর্নীতির মামলায় দায়ী বলে স্বীকার করেননি।

সোমবার, ১৭ অক্টোবর এই মামলার শুনানিতে নেইমার বলেন, “আমি কোনও আলোচনায় অংশগ্রহণ করিনি। আমার বাবা সব সময় এই দিকটি দেখতেন এবং পরেও সব সময় দেখবেন। তিনি আমাকে কোনও চুক্তিতে সই করতে বললে, আমি সেটাতে সই করি। বার্সেলোনার হয়ে খেলা সব সময়ই আমার স্বপ্ন ছিল, ছেলেবেলায় সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছিল।”

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার সময়, নেইমারের আর্থিক চুক্তিতে নাকি অস্বচ্ছতা ছিল। সেই কারণে নেইমারকে নিয়ে জালিয়াতি ও দুর্নীতির অভিযোগে মামলা করেছে ব্রাজিলের এক বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান ডিআইএস। সেই মামলার শুনানিই চলছে বার্সেলোনায়। কাতার বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে এই কাণ্ড রীতিমতো অস্বস্তিতে ফেলেছে ব্রাজিলিয়ান তারকাকে। মামলার ফল নেইমারের বিরুদ্ধে চলে গেলে তিনি তো চাপে পড়বেনই, পাশাপাশি ব্রাজিল দলও বিশ্বকাপে বেশ চাপে পড়বে।

এই খবরটিও পড়ুন

ডিআইএস প্রতিষ্ঠানটি নেইমারের দুই বছর কারাদণ্ডের পাশাপাশি ১ কোটি ইউরো জরিমানার দাবি করেছে। এ ছাড়া বার্সার ওই সময়ের সভাপতি রসেলের বিরুদ্ধে পাঁচ বছরের কারাবাস এবং কাতালান ক্লাবটিকে ৮৪ লাখ ইউরো জরিমানার দাবিও করা হয়েছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla