TOKYO OLYMPICS 2020 : সপ্তাহের শুরুতে বাংলার হাতে শুধু ব্যর্থতা

  এখন ভরসা বলতে আগামি ২৯ তারিখ পুরুষদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে নামবেন অতনু। প্রথম প্রতিপক্ষই শক্তিশালী চাইনিজ তাইপের। সেখানে কি নতুন করে ফিরবেন অতনু দাস?

TOKYO OLYMPICS 2020 : সপ্তাহের শুরুতে বাংলার হাতে শুধু ব্যর্থতা

টোকিওঃ রবিবারই অলিম্পিক থেকে বিদায় নিয়েছিলেন প্রণতি নায়েক। আর সোমবার অলিম্পিক থেকে বিদায় নিলেন বাংলার টেবল টেনিস খেলেয়োড় সুতীর্থা মুখোপাধ্যায়। তীরন্দাজিতে পুরুষদের দলগত ইভেন্ট থেকে ছিটকে গেলেন অতনুরা। এখন শুধু শিবরাত্রির সলতের মত জ্বলছে অতনু দাসের ব্যক্তিগত ইভেন্ট।

এদিন দ্বিতীয় রাউন্ডে পর্তুগালের প্রতিপক্ষ ফু ইউয়ের বিরুদ্ধে দাঁড়াতেই পারেননি বাংলার প্যাডলার সুতীর্থা। মাত্র ২৩ মিনিটেই শেষ সুতীর্থার খেলা। প্রথম দুটি গেমে সুতীর্থা হারেন ১১-৩, ১১-৩ ফলে। ফল দেখেই স্পষ্ট কোনও প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেননি সুতীর্থা। তৃতীয় ও চতুর্থ গেমেও একই অবস্থা। তবে একটু উন্নতি করেন সুতীর্থা। ১১-৫, ১১-৫ ফলে তৃতীয় ও চতুর্থ গেমে হেরে যান বাংলার সুতীর্থা। ৪-০ ফলে হেরে এবারের মত অলিম্পিকের দৌড়ে ইতি টানলেন সুতীর্থা।

অন্যদিকে তীরন্দাজিতে পুরুষদের দলগত বিভাগেও মুখ থুবড়ে পড়ল ভারতের তিরন্দাজি দল। যেই দলে ছিলেন বাংলার অতনু দাস। প্রতিপক্ষ ছিল বিশ্ব তীরন্দাজির ১ নম্বর দল দক্ষিণ কোরিয়া। ৬-০ ফলে হারল ভারত। অতনুর পারফরম্যান্স একেবারেই আশাপ্রদ নয়। দঃ কোরিয়া ১৮টি তিরের মধ্যে মাত্র ৫টি মেরেছেন ১০য়ের কমে। সেখানে অতনুরা ১৮টি তিরের মধ্যে ১১টাতেই ১০য়ের কমে স্কোর করেছে। ফলে যা হওয়ার তাই হয়েছে। অলিম্পিক থেকে পুরুষদের দলগত বিভাগ থেকে বিদায় অতনু দাসদের।

এখন ভরসা বলতে আগামি ২৯ তারিখ পুরুষদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে নামবেন অতনু। প্রথম প্রতিপক্ষই শক্তিশালী চাইনিজ তাইপের। সেখানে কি নতুন করে ফিরবেন অতনু দাস? আশা খুব একটা দেখছেনা ভারতীয় তিরন্দাজি মহল।

 

অলিম্পিকের আরও খবরের জন্য ক্লিক করুনঃ টোকিও অলিম্পিক ২০২০

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla