Wet Towel In Space: মহাকাশে ভিজে গামছা মুড়লে কী হতে পারে? দেখুন এই অবাক করা ভিডিয়ো

Wet Towel In Space: মহাকাশে ভিজে গামছা মুড়লে কী হতে পারে? দেখুন এই অবাক করা ভিডিয়ো
ভাইরাল ভিডিয়ো থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট।

Latest Science News:মহাকাশে একটি ভিজে তোয়ালে মুড়লে কেমন হতে পারে, কখনও ভেবে দেখেছেন? তাহলে এই ভিডিয়োটা একবার দেখুন।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sayantan Mukherjee

Jun 23, 2022 | 5:36 PM

মহাকাশের (Space) যে কোনও রহস্য মানবজাতিকে সব সময়ই মুগ্ধ করে এসেছে। দিন যতই এগিয়েছে, প্রযুক্তির মাধ্যমে সেই সব রহস্য সাধারণ মানুষের বোধগম্য হচ্ছে আরও সহজ ভাবে। তবে সম্প্রতি কানাডিয়ান স্পেস এজেন্সির নভোচারী ক্রিস হ্যাডফিল্ডের শেয়ার করা একটি ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছে। মূলত, সেটি 2013 সালের ভিডিয়ো, নতুন করে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, মহাকাশে ভিজে তোয়ালে (Wet Towel) মুড়লে ঠিক কী অবস্থায় হয়। ঠিক কী হল, আসুন দেখে নেওয়া যাক।

ট্যুইটারে ওয়ান্ডার অফ সায়েন্স নামক একটি পেজ থেকে ভিডিয়োটি শেয়ার করা হয়েছে। এই ক্লিপে মহাকাশচারী দেখিয়েছেন যে, ভেজা তোয়ালে মহাকাশে মুড়লে ঠিক কী পরিস্থিতি হতে পারে। ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, মিস্টার হ্যাডফিল্ড তোয়ালে মুড়িয়ে দিচ্ছেন। মাধ্যাকর্ষণ শক্তির অভাবে ভেজা তোয়ালে মোড়ানোর পরে জল মাটিতে পড়ার পরিবর্তে তার চারপাশে একটি নলের আকার গঠন করছে। ভিডিয়োর ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “মহাকাশে ভাসমান অবস্থায় একটি ভেজা তোয়ালে মুড়লে এমন অবাক কাণ্ড ঘটে। ক্রেডিট: CSA/NASA।”

দ্বিতীয় আরও একটি ট্যুইট করা হয়েছে যেখানে বলা হচ্ছে, “আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে মহাকাশচারী ক্রিস হ্যাডফিল্ড দ্বারা সঞ্চালিত পরীক্ষাটি নোভা স্কটিয়ার হাই স্কুল ছাত্ররা কর্তৃক ডিজাইন করা হয়েছিল, যাঁরা কানাডিয়ান স্পেস এজেন্সির বিশেষ অনুষ্ঠান জাতীয় বিজ্ঞান প্রতিযোগিতায় জয়লাভ করেছিল।”

কানাডিয়ান স্পেস এজেন্সি দ্বারা শেয়ার করা অফিসিয়াল পোস্টের শিরোনামে লেখা হয়েছে, “আইএসএসে জল বের করা – বিজ্ঞানের জন্য।” পোস্টে আরও যোগ করা হয়েছে, “2013 সালের 16 এপ্রিল CSA মহাকাশচারী ক্রিস হ্যাডফিল্ড গ্রেড 10 লকভিউ হাই স্কুলের দুই ছাত্র লেমকে এবং মেরেডিথ ফকনার দ্বারা ডিজাইন করা একটি সাধারণ বিজ্ঞান পরীক্ষা করেছেন।”

ভিডিয়োটির সঙ্গে সংযুক্ত ট্রান্সক্রিপ্টটি মিস্টার হ্যাডফিল্ডকে উদ্ধৃত করে বলেছে, “মেরিডিথ এবং লেমকে পরামর্শ দিয়েছিলেন যে, আমি একটি ব্যাগে এটি করে দেখেছি। কিন্তু এরকম কোনও প্রতিক্রিয়া হতে দেখেনি। তার পরিবর্তে আমি একটি ব্যাগে জল ভর্তি করেছি। এতে পানীয় জল আছে এবং আমি এই ওয়াশক্লথের মধ্যে কিছুটা জল ছিটিয়ে দেব। তাই এখানে একটি ভেজা ওয়াশক্লথ দিয়েই পরীক্ষা চালাই। আমি মাইক্রোফোনটি নিয়ে আসছি যাতে আপনি আমার কথা শুনতে পান এবং এখন এটি মুছতে শুরু করা যাক। এটা সত্যিই ভেজা।”

এই খবরটিও পড়ুন

আরও ব্যাখ্যা করে মিঃ হ্যাডফিল্ড যোগ করেছেন, “যদি আমি কাপড়টি সাবধানে ছেড়ে দিই, তাহলে জলের ধরন আমার হাতে লেগে থাকে।” জলের গঠনকে “আপনার হাতে জেল” থাকার সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, এটি একটি “বিস্ময়কর ময়শ্চারাইজার”। মহাকাশচারী ক্রিস হ্যাডফিল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশন (ISS)-এর কম্যান্ডার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং মহাকাশে বহির্মুখী কার্যকলাপ সম্পাদনকারী প্রথম কানাডিয়ান হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA