গভীর কুয়োয় প্রায় ৮ ঘণ্টা আটকে হস্তি শাবক, অবশেষে উদ্ধার হল বনকর্মীদের তৎপরতায়

জানা গিয়েছে, চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে এই ঘটনা ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের একটি গ্রামে।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 14:04 PM, 5 May 2021
গভীর কুয়োয় প্রায় ৮ ঘণ্টা আটকে হস্তি শাবক, অবশেষে উদ্ধার হল বনকর্মীদের তৎপরতায়
ছবি প্রতীকী

দলছুট হয়ে গিয়েছিল ছোট্ট হাতির ছানা। গ্রামের চারপাশে ঘুরতে ঘুরতেই ঘনিয়ে আসে বিপদ। রাস্তার মধ্যে যে রয়েছে গভীর কুয়ো সেদিকে নজর ছিল না হস্তি শাবকের। অসাবধানতায় সেখানে পড়ে যায় সে। এদিকে ততক্ষণে সন্তানের খোঁজে বেরিয়েছে মা হাতি। লম্বাটে সরু কুয়োর কাছে এসে বুঝতে পারে ওই গর্তেই পড়ে গিয়েছে তার সন্তান। ভয়ে, আতঙ্কে, সন্তানের জন্য চিন্তায় শুঁড় তুলে ডাকতে শুরু করে সে।

হাতির তীব্র আর্তনাদ শুনে ছুটে আসেন আশপাশের গ্রামবাসীরা। কুয়োর কাছাকাছি এসে বুঝতে পারেন অঘটন ঘটেছে। তৎক্ষণাৎ বনবিভাগের কর্মীদের খবর দেন গ্রামবাসীরা। তড়িঘড়ি ছুটে আসেন বনকর্মীরা। অবশেষে দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় ওই হস্তি শাবককে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। সুস্থই রয়েছে সে। মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে সন্তানকে। জানা গিয়েছে, চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে এই ঘটনা ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের একটি গ্রামে।

বনবিভাগের কর্মীরা অত্যন্ত যত্নের সঙ্গে এবং সাবধান হয়েই ওই হস্তি শাবকটিকে উদ্ধার করেছেন। গোটা উদ্ধারকার্যের বিভিন্ন ছবি ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। টুইটারে এইসব ছবি শেয়ার করেছেন ভারতীয় বনবিভাগের আধিকারিক প্রবীণ কাসওয়ান। আইএফএস অফিসারের টুইট দেখে বনকর্মীদের কাজের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন টুইটারিয়ানরা।

সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ওইসব ছবিতে দেখা গিয়েছে জেসিবি মেশিন এনে গর্ত খোঁড়া হয়েছে। যেখানে হাতির ছানাটি পড়ে গিয়েছিল, সেখান থেকে বালি সরিয়ে রাস্তা তৈরি করা হয়েছে। যার ফলে গভীর কুয়ো থেকে ধীরে ধীরে নিজেই উঠে আসতে পেরেছে হাতিটি। আইএফএস অফিসার প্রবীণ কাসওয়ান জানিয়েছেন, দীর্ঘ ৮ ঘণ্টার অভিযানের পর হাতির ছানাটিকে নিরাপদে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।