সোনম-আনন্দের বাড়িতে চুরি গিয়েছে। নগদ আর গয়না মিলিয়ে প্রায় দেড় কোটি টাকার সম্পত্তি চুরি গিয়েছে। বলিউডের বেশ কয়েকজন অভিনেতাও এর আগে চুরির কবলে পড়েছেন।

অমিতাভ বচ্চনের বাড়িতে কড়া নিরাপত্তার কথা সকলের জানা। তার মধ্যে দিয়েও একবার দীপক কারওয়াত নামে এক ব্যক্তি ৮ হাজার টাকা চুরি করে পালানোর চেষ্টা করেছিল।  অবশ্য ধরা পড়ে যায়।

কাজল-অজয় দেবগণ-এর বাড়িতেও একবার চুরি হয়। করওয়া চথের আগে বাড়ির সাহায্যকারী প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ১৭টি বালা চুরি করে। তবে জুহু পুলিশের তৎপরতায় ধরা পড়ে যায়।

২০১৪ সালে সইফ আলি খান খার পুলিশ স্টেশনে মামলা করে অভিযোগ করেন যে  তাঁর প্রযোজনা সংস্থা থেকে একজন ১১টি  এসি চুরি করেছে।

সুস্মিতা সেন ২০১২ সালে এথেন্স, গ্রিস বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখানে জিনিসপত্র, পাসপোর্ট, নগদ টাকা-সব চুরি যায়। পরে নিজের আইনজীবীর সাহায্যে দেশে ফেরত আসেন।

অস্ট্রেলিয়া থেকে 'সিং ইজ কিং' ছবির শুটিং সেরে ফেরার সময় বিমানবন্দর থেকে ৭২ লক্ষ টাকার পোশাক চুরি যায় ক্যাটরিনা কাইফের।