‘দেশবিরোধী মন্তব্য করলেই এনকাউন্টার’, নানুরে হুমকি বিজেপি নেতার

দেশবিরোধী মন্তব্য করা হলেই এনকাুন্টার করে দেওয়া হবে জানান বিজেপি জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহা।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 11:45 AM, 5 Apr 2021
'দেশবিরোধী মন্তব্য করলেই এনকাউন্টার', নানুরে হুমকি বিজেপি নেতার
ধ্রুব সাহা।

নানুর: “তৃণমূল শাসনে যা খুশি মন্তব্য করা যায়, বিজেপি শাসনে তা হবে না”। দেশবিরোধী মন্তব্য করলেই সরাসরি এনকাউন্টার (Encounter) করা হবে, এমনটাই হুমকি দিলেন বীরভূম(Birbhum)-র বিজেপি জেলা সভাপতি। ইতিমধ্যেই তাঁর এই মন্তব্য ভাইরাল হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে সমালোচনার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বীরভূমের নানুরের বিজেপি প্রার্থী তারক সাহার প্রচারে গিয়েছিলেন বীরভূমের জেলা সভাপতি ধ্রুব সাহা(Dhruba Saha)। সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা(Anupam Hazra)-ও। সেই প্রচারসভাতেই তিনি দেশবিরোধী মন্তব্য করা হলে এনকাউন্টার করে খুন করে দেওয়ার হুমকি দেন।

প্রচার চলাকালীনই সভায় উপস্থিত সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেন, “তৃণমূল শাসনে মানুষ যা খুশি বলেও পার পেয়ে যাওয়া যায়। ওঁরা ভারতকে পাকিস্তান বানানোর কথা বলে, কিন্তু কোনও শাস্তি হয় না। কিন্তু বিজেপি শাসনে তা হবে না। যদি এইধরনের কথা কেউ বলে, তবে সরাসরি এনকাউন্টার করা হবে।” অন্যদিকে, বিজেপি নেতা অনুপম হাজরাও বলেন, “বাসাপাড়ায় বিজেপিকে ভোট করাতে হবে না। তৃণমূল কর্মীরাই বিজেপিকে ভোট দেবে।”

আরও পড়ুন: Corona Cases and Lockdown News Live: এক দিনে ১ লক্ষ, দৈনিক সংক্রমণে সর্বকালের রেকর্ড ভারতে

বিজেপি নেতার এনকাউন্টারের হুমকি ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠে।  তৃণমূলের কর্মাধ্যক্ষ করিম খান বলেন, “উত্তর প্রদেশে যেভাবে এনকাউন্টার হচ্ছে, এটাই বিজেপির সংস্কৃতি। আর যিনি এই কথাটা বলছেন, তিনি তো অনেক কেসের অপরাধী। নিজেই চিটিংবাজ। সিপিএম, কংগ্রেস করে তৃণমূল কংগ্রেসে এসেছিল। এখন বিজেপিতে যোগ দিয়েছে। তাঁকে নিয়ে বিজেপি যদি ভাবে যে বাসাপাড়া দখল করবে, তবে মূর্খের স্বর্গে বাস করছে। আমরা ১০ বছর ধরে কাজ করেছি। অনুব্রত মন্ডলের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ পরিষেবা থেকে শুরু করে রাস্তাঘাট, হাসপাতাল-সবকিছুর উন্নয়ন করা হয়েছে। ও যদি এনকাউন্টারের কথা বলে, তবে বলবো যে এনকাউন্টারের অর্থই জানে না। অশিক্ষিত লোক। মুখ ফসকে বেরিয়ে গেছে।”

অনুপম হাজরার মন্তব্যের প্রেক্ষিতেও তিনি বলেন, “উনি তো মূর্খের স্বর্গে বাস করছেন। ও তো তৃণমূলের সাংসদ ছিল। তৃণমূলের দৌলতে দিল্লি দেখেছে, বিজেপির দৌলতে তো দিল্লি দেখতে পারছে না। বিজেপি একটা বড় পদ দিয়ে দিয়েছে। আর তাতেই যদি বিজেপির নেতারা মনে করেন যে রাজ্যে একজনই বড় নেতা, তিনি হলেন অনুপম হাজরা। কিন্তু তার পিছনে যে কোনও সমর্থন নেই, সেটা তাঁরা জানেন না।”

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ওই অঞ্চলেরই তৃণমূল নেতা শেখ আলম বলেছিলেন, “যদি দেশের ৩০ শতাংশ মুসলিমরা একত্রিত হন, তবে চারটে পাকিস্তান তৈরি হয়ে যাবে।” তৃণমূল নেতার সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পরই নির্বাচন কমিশনের তরফে শোকজ নোটিস দেওয়া হয়। তবে একদিনের মধ্যেই তিনি ক্ষমা চেয়ে নেন। তৃণমূল নেতার পাকিস্তান তৈরির ওই মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই গতকাল বিজেপি নেতা ধ্রুব সাহা এই মন্তব্য করেছেন বলে দাবি দলের একাংশের।

আরও পড়ুন: মাওবাদীদের সঙ্গে ভয়াবহ সংঘর্ষে নিহত ২২ জওয়ান, আজ বিজাপুরে যাচ্ছেন শাহ