Recruitment Scam: প্রাথমিকের জন্য ‘ঘুষ’ ৯ লক্ষ টাকা! আজ তৃণমূল নেতার পায়ে পড়ে যুবকের আর্জি, ‘বাবা অসুস্থ, টাকাটা দিন না’

Recruitment Scam: প্রাথমিকের জন্য 'ঘুষ' ৯ লক্ষ টাকা! আজ তৃণমূল নেতার পায়ে পড়ে যুবকের আর্জি, ‘বাবা অসুস্থ, টাকাটা দিন না’
বাইকে তৃণমূল নেতা। পথেই ধরলেন অভিযোগকারী। নিজস্ব চিত্র।

Birbhum: বীরভূমের ইলামবাজারের ইসলামপুরের তৃণমূল নেতা রতন মণ্ডল। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন জয়দেবের অসীম সিংহ।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

Jun 24, 2022 | 7:58 PM

বীরভূম: ফের চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল। সেই ঘটনায় নাম জড়িয়েছে এক তৃণমূল নেতার। অভিযোগকারী জানান, তিনি চাকরিও পাননি, এখন পুরো টাকাও ফেরত পাচ্ছেন না। এদিকে তাঁর বাবা খুবই অসুস্থ। এই টাকা তাঁর প্রয়োজন। টাকা ফেরত পেতে মরিয়া জয়দেবের ওই বাসিন্দা এখন হাতে পায়ে ধরছেন অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা রতন মণ্ডলের। যদিও রতন মণ্ডলের দাবি, তিনি কাউকেই চাকরি দেবেন বলে টাকা নেননি। যা নিয়েছিলেন, তা ধার হিসাবে। সে টাকার সিংহভাগই মেটানো হয়ে গিয়েছে। সবটাই তাঁকে ফাঁসানোর কল।

বীরভূমের ইলামবাজারের ইসলামপুরের তৃণমূল নেতা রতন মণ্ডল। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন জয়দেবের অসীম সিংহ। অসীম সিংহ জানান, ২০১২ সালে প্রাথমিক স্কুলে চাকরি দেওয়ার নামে তাঁর কাছ থেকে ৯ লক্ষ টাকা নেন রতন। কিন্তু সে চাকরি তিনি পাননি। কিছু টাকা ফেরান ঠিকই। অসীমের অভিযোগ, “সংসারে অভাব, তারই মধ্যে অসুস্থ বাবা। বাবার চিকিৎসার জন্য তাঁর দেওয়া টাকা থেকেই রতন মণ্ডলের কাছে টাকা চাই। কিন্তু ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকার জন্য হন্যে হয়ে ঘুরলেও তা পাচ্ছি না। বাবার চিকিৎসা করাব। হাতে পায়ে ধরছি। তাও দিচ্ছে না।”

অভিযোগকারীর এক বন্ধু শ্যামল সাহা বলেন, “আমার বন্ধু আশিস সিংহ ইসলামপুরের অঞ্চল সভাপতি রতন মণ্ডলকে ২০১২ সালের প্রাইমারি চাকরি করিয়ে দেওয়ার জন্য ৯ লক্ষ টাকা দিয়েছিল। অথচ চাকরি পায়নি। এদিকে আমার বন্ধু জমিজমা বিক্রি করে সেই টাকা দিয়েছিল। এরমধ্যে ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকার জন্য দু’মাস ধরে ঘোরাচ্ছেন।”

এই খবরটিও পড়ুন

যদিও অভিযুক্ত রতন মণ্ডল বলেন, “আমি প্রাইমারি চাকরির জন্য কোনওরকম টাকা নিইনি। আমি ওর কাছে ৯ লক্ষ টাকা ব্যবসা করার জন্য ধার নিয়েছিলাম। প্রাথমিকে চাকরি দেওয়ার জন্য টাকা নেওয়ার অভিযোগ একেবারেই মিথ্যা। আমাকে ফাঁসানোর জন্য করছে। আমি সাড়ে ৭ লক্ষ টাকা দিয়ে দিয়েছি। বাকি টাকা দেওয়ার জন্য সময় চেয়েছিলাম। সেই সময় পেরিয়ে গিয়েছে মানছি। তাই এসব মিথ্যা গল্প দিয়ে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA