Jhargram: বেহাল রাস্তা দিয়েই দিনের পর দিন যাতায়াত পড়ুয়াদের, কবে হুঁশ ফিরবে প্রশাসনের?

Jhargram: বেলপাহাড়ির ব্লকের ভেলায়ডিহা গ্রামপঞ্চয়েতের অন্তর্গত খয়েরডাঙ্গা থেকে কুষমুরা হয়ে কয়েক কিলোমিটার পর্যন্ত রাস্তার বেহাল অবস্থা।

Jhargram: বেহাল রাস্তা দিয়েই দিনের পর দিন যাতায়াত পড়ুয়াদের, কবে হুঁশ ফিরবে প্রশাসনের?
বেহাল রাস্তা দিয়েই পড়ুয়াদের যাতায়াত (নিজস্ব ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Aug 10, 2022 | 3:57 PM

ঝাড়গ্রাম: গোটা রাস্তা খানা-খন্দে ভরা। অল্প বৃষ্টিতে জল জমে ওঠে। চরম দুর্ভোগে পড়েন পড়ুয়ারা।ঝাড়গ্রামের বেলপাহাড়ির ঘটনা। সেখানে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই যাতায়াত করতে হচ্ছে স্কুল পড়ুয়া থেকে এলাকার বাসিন্দাদের। ফলে ক্ষোভ বাড়ছে গ্রামবাসীদের মধ্যে।

বেলপাহাড়ির ব্লকের ভেলায়ডিহা গ্রামপঞ্চয়েতের অন্তর্গত খয়েরডাঙ্গা থেকে কুষমুরা হয়ে কয়েক কিলোমিটার পর্যন্ত রাস্তার বেহাল অবস্থা। এই রাস্তা দিয়েই দশটি গ্রামের কয়েক হাজার বাসিন্দাকে নিত্য যাতায়াত করতে হচ্ছে। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, একাধিকবার প্রশাসনের কাছে রাস্তা মেরামতের দাবি জানানো হয়েছে। কিন্তু সমস্যার কোনও সমাধান হয়নি।

এরপর আসে খয়েরডাঙার নাম। খয়েরডাঙা থেকে কুষমুরা যাওয়ার রাস্তা সামান্য বৃষ্টিতেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে ওঠে। প্রায় চার কিলোমিটার রাস্তা পুরোপুরি কাদায় ভর্তি। সাইকেল বা মোটরসাইকেল যাওয়া প্রায় অসম্ভব।

এই রাস্তা দিয়েই খেয়েরডাঙা,বলিডাঙা,শালুকডঙা, পড়াসিডাঙা সহ একাধিক গ্রামের বাসিন্দারা এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করেন। এই রাস্তা দিয়েই বেলপাহাড় বাজার, বেলপাহাড়ী গ্রামীণ হাসপাতাল,থানা বিডিও অফিস সহ বিভিন্ন জায়গায় যেতে হয়। সব থেকে বেশি সমস্যাই পড়তে হয় অসুস্থ মানুষজনদের। বেহাল রাস্তার কারণে অ্যাম্বুলেন্স বা গাড়ি ঢুকতে চায় না। যার কারণে দুয়ারে রেশন পরিষেবা নিতে যেতে হয় দু কিলোমিটার দূরে। বর্তমানে সব থেকে বৃষ্টির সময় সমস্যায় পড়তে হচ্ছে স্কুল পড়ুয়াদের। যাতায়াতের অসুবিধার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি রাস্তার মেরামত না করলে স্কুল পড়ুয়ারা আর স্কুল যেতে পারবেন না।

এই খবরটিও পড়ুন

এক গ্রামবাসীর বক্তব্য, ‘আমাদের যে গ্রামগুলো রয়েছে তার অবস্থা বেহাল। দুই দিকে রয়েছে স্কুল। স্কুলের ছেলেগুলো যাতায়াত করে খুব ঝুঁকি নিয়ে। যা পরিস্থিতি তাতে যাতায়াত খুব রিস্কের।’ যদিও, বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের কেউ প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla