Trinamool MLA: পুলিশের সঙ্গে বচসা তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবিরের, নেপথ্যে কী কারণ?

Trinamool MLA: থানার পড়ে থাকা জায়গা ঘিরতে দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের ব্লক সভাপতির বিরুদ্ধে। বচসায় জড়ালেন বিধায়কও।

Trinamool MLA: পুলিশের সঙ্গে বচসা তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবিরের, নেপথ্যে কী কারণ?
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Sep 17, 2022 | 9:57 PM

মুর্শিদাবাদ: থানার কাছে পড়ে থাকা জায়গা ঘিরতে দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের (Trinamool) ব্লক সভাপতির বিরুদ্ধে। এই নিয়ে বচসা তৃণমূলের ব্লক সভাপতি ও পুলিশের মধ্যে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) ভরতপুর থানার সামনে। সূত্রের খবর, শনিবার ভরতপুর থানার সামনের একটি জায়গা ঘিরছিল ভরতপুর থনার পলিশ। তখনই ভরতপুর ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি নজরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান। অভিযোগ, এরপর তিনি পুলিশের কাজে বাধাও দেন। পুলিশের সঙ্গে তাঁর একপ্রস্থ কথা কাটাকাটিও হয়ে যায়। 

এদিকে ঘটনার খবর পেতেই ঘটনাস্থলে আসেন সালার সার্কেল অফিসার জয়ন্ত শর্মা। অফিসার সাগর রানার নেতৃত্বে আসে বিশাল পুলিশ বাহিনী। তাঁরাও কথা বলতে শুরু করেন নজরুল ইসলামের সঙ্গে। এদিকে ততক্ষণে ঘটনাস্থলে ছুটে এসেছেন এলাকার বিধায়ক হুমায়ুন কবির। তিনিও পুলিশের বিরুদ্ধে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেন। একইসঙ্গে তিনি বলেন, “তৃণমূলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের আমি বিধায়ক হিসাবে বলছি ভরতপুর থানার ওসি যে আচরণ করেছেন, যেভাবে পুলিশের ক্ষমতা দেখাচ্ছেন তা সবাই দেখেছে। ওই জায়গায় আমাদের একটি অস্থায়ী পার্টি অফিস ছিল। আমরা ওখানে স্থায়ীভাবে পার্টি অফিস করতে চেয়েছি। এখন ওসি বলছে এটা নাকি পুলিশের জায়গা।”

এই খবরটিও পড়ুন

এদিকে পুলিশের বিরুদ্ধে বিধায়কের এ বচসা মুর্শিদাবাদ জেলার রাজনৈতিক ময়দানে নজিরবিহীন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এ ঘটনার জেরে চাপা উত্তেজনা তৈরি হয়েছে গোটা এলাকায়। তবে শেষ পাওয়া আপডেটে জানা যাচ্ছে এখনও পর্যন্ত পুলিশ কারও বিরুদ্ধেই স্বতঃপ্রণোদিতভাবে অভিযোগ দায়ের করেনি।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla