মা ভেবেছিলেন পেটের অসুখ, ১৪ বছর বয়সে সন্তান প্রসব মেয়ের!

Rape: নাবালিকা মেয়েকে দেখে মা ভেবেছিলেন হয়ত পেটের কোনও অসুখ হয়েছে তার। ডাক্তারের কাছে নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু রবিবার সন্ধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি করতেই আকাশ ভেঙে পড়ে তাঁদের মাথায়!

মা ভেবেছিলেন পেটের অসুখ, ১৪ বছর বয়সে সন্তান প্রসব মেয়ের!
প্রতীকী চিত্র

বনগাঁ: ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন প্রতিবেশী নাতনির ওপর যৌন নির্যাতন চালিয়ে গিয়েছে দাদু। যার জেরে গর্ভবতী হয়ে পড়ে নাবালিকা। আর রবিবার বনগাঁ হাসপাতালে সন্তাান প্রসব করে সেই মেয়ে! ঘটনায় গ্রেফতার ৬৭ বছর বয়সী বৃদ্ধ।

প্রতিবেশী ১৪ বছরের নাবালিকা নাতনিকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে সাইফুল্লা মুন্সি মণ্ডল নামে এক বৃদ্ধ। উত্তর ২৪ পরগনার জেলার গোপালনগর থানার ঘটনা। সাইফুল্লার বিরুদ্ধে অভিযোগ, নাবালিকা নাতনিকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে দিনের পর দিন যৌন নির্যাতন করেছে সে। কাউকে বললে ফেললে খুনের হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পরবর্তীতে সেই নাবালিকা সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়ে।

নাবালিকা মেয়েকে দেখে মা ভেবেছিলেন, হয়ত পেটের কোনও অসুখ হয়েছে তার। ডাক্তারের কাছে নিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু রবিবার সন্ধ্যায় বনগাঁ মহাকুমা হাসপাতালে ভর্তি করতেই আকাশ ভেঙে পড়ে তাঁদের মাথায়। চিকিৎসক জানান ওই নাবালিকা গর্ভবতী। আর এদিনই তার ডেলিভারি করতে হবে!

এর পর পুত্র সন্তান প্রসব করে ওই নাবালিকা। ঘটনা জানাজানি হতেই সামনে আসে প্রতিবেশী বৃদ্ধ সাইফুল্লার নাম। গ্রামে শুরু হয় হইচই। এর পর রবিবার রাতে নবালিকার মা গোপালনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়েই সঙ্গে সঙ্গে অভিযুক্ত সাইফুল্লার বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে আনে গোপালনগর থানার পুলিশ। সাইফুল্লার বিরুদ্ধে পকসো ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

ধৃতকে সোমবার সাতদিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয় বনগাঁ মহকুমা আদালতে। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বনগাঁয়। নাবালিকার মায়ের দাবি মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে তাঁর মেয়েকে। প্রতিবেশী দাদু সম্পর্কে সাইফুল্লা যে তাঁদের এতবড় সর্বনাশ করবে তা দুঃস্বপ্নেও ভাবতেও পারেননি। বৃদ্ধের ফাঁসি চেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন ওই মহিলা। আরও পড়ুন: দিনের পর দিন বৃদ্ধ বাবা-মাকে নিপীড়ন! হাইকোর্টের নির্দেশে ঘরছাড়া হল ছেলে-বউমা 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla