Asansole: ‘কেন পচা জল খেতে হবে আমাদের?’ প্রশ্ন করতেই গ্রামবাসীর মাথায় বোতল ঠুকলেন উপপ্রধান!

Asansole: 'কেন পচা জল খেতে হবে আমাদের?' প্রশ্ন করতেই গ্রামবাসীর মাথায় বোতল ঠুকলেন উপপ্রধান!
গ্রামবাসীর সঙ্গে উপপ্রধানের ঝামেলার সেই দৃশ্য। (নিজস্ব চিত্র)

Drinking Water Problem: পানীয় জলের (drinking water) সঙ্কট চলছে এলাকায়। জলের দাবিতে পথ অবরোধ করেছেন বাসিন্দারা। আর সেই অবরোধ তুলতে এসে মেজাজে হারিয়ে বিক্ষোভকারীদের ওপরেই হামলা চালানোর অভিযোগ পঞ্চায়েতের উপপ্রধানের বিরুদ্ধে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সৈকত দাস

Oct 21, 2021 | 9:40 AM

আসানসোল: পানীয় জলের (drinking water) সঙ্কট চলছে এলাকায়। কলে জল নেই। অন্যদিকে পঞ্চায়েত যে জল দিচ্ছে সেও পানের অযোগ্য। তাই ভাল জলের দাবিতে পথ অবরোধ করেছেন বাসিন্দারা। আর সেই অবরোধ তুলতে এসে মেজাজে হারিয়ে বিক্ষোভকারীদের ওপরেই হামলা চালানোর অভিযোগ পঞ্চায়েতের উপপ্রধানের বিরুদ্ধে। জলের বোতল হাতে বিক্ষোভকারীদের মারতে উদ্যত হন তিনি। উল্টে বিক্ষোভকারীরাও মারমুখী হন। বুধবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ল আসানসোলের (Asansole) রানিগঞ্জ (Raniganj) এলাকায়।

রানিগঞ্জের বল্লভপুর পঞ্চায়েতের নুপুর গ্রাম। বল্লভপুর পঞ্চায়েত এলাকার এই বাসিন্দারা পানীয় জলের সমস্যায় জেরবার। সেই দুর্গাপুজোর সময় থেকেই চলছে সমস্যা। প্রত্যেক দিনেই পানীয় জলের দাবিতে বিক্ষোভ ও পথ অবরোধ করছেন এলাকার মানুষজন। বুধবার লক্ষ্মীপুজোর দিন পানীয় জলের দাবিতে বল্লভপুর পঞ্চায়েতের নুপুর গ্রামে পথ অবরোধ করেন এলাকার বাসিন্দারা।

এদিকে পথ অবরোধের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান বল্লভপুর পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সিধান মণ্ডল। উপপ্রধানকে দেখতে পেয়েই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন এলাকার মানুষজন। বিক্ষোভকারীদের দাবি, একে পানীয় জলের সমস্যা, তার ওপর ট্যাঙ্কারে করে যে জল দিয়েছে পঞ্চায়েত সেটাও পানের অযোগ্য। পচা, নোংরা ও আবর্জনাময় জল কেন তাঁদের দেওয়া হচ্ছে, এই অভিযোগ করে সরব হন তাঁরা।

বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে এই তর্ক-বিতর্ক গড়ায় বচসায়। তার পর মেজাজস হারিয়ে বসেন পঞ্চায়েতের উপপ্রধান। অভিযোগ, এর পর উপপ্রধান তাঁর হাতে থাকা পানীয় জলের বোতল দিয়ে এলাকার বাসিন্দাদের মারধর শুরু করে দেন। আবার গোটা ঘটনাটি ঘটে পুলিশের চোখের সামনে। গ্রামবাসীরা পাল্টা প্রতিরোধ শুরু করলে ক্ষোভ প্রশমনে নামে পুলিশ। উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় উপপ্রধানকে। শেষ পর্যন্ত রানীগঞ্জ থানার পুলিশ দুই পক্ষকেই হঠিয়ে দেয়।

আরও পড়ুন: Dilip Ghosh: ‘এর পরেও রাজ্য সরকার বলে ভ্যাকসিন পায়নি!’ ১০০ কোটি টিকাকরণের দোরগোড়ায় পৌঁছে ‘অবাক’ দিলীপ

জানা গিয়েছে দুর্গাপুজোর আগে অতি বৃষ্টির জেরে নুনিয়া নদীর জলস্তর বেড়ে যায়। নুনিয়া নদীর জল বেড়ে যাওয়ায় জলের স্রোতে পানীয় জলের পাইপ লাইনও ভেঙে পড়ে। তার ফলে জল সঙ্কট শুরু হয়ে বিস্তীর্ণ এলাকায়। দুর্গাপুজোয় পাইপলাইনের মেরামতির কাজ বন্ধ থাকার ফলে সমস্যা আরও বাড়ে। এলাকার মানুষজন পানীয় জলের দাবিতে প্রত্যেক দিনেই বিক্ষোভে সামিল হচ্ছেন বলে অভিযোগ। অন্যদিকে উপপ্রধান সিধান মণ্ডল গোটা অভিযোগ উড়িয়ে দেয় বলেন সামান্য তর্কাতর্কি হয়েছিল তা মিটে গিয়েছে। তাঁর দাবি, বিক্ষোভকারীরা অযথা ঝামেলা করার চেষ্টা করছিল। এদিকে উপপ্রধানের এমন ব্যবহারে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন: Khardah: আশীর্বাদ চেয়ে অপরাধ! জয় সাহার বিরুদ্ধে এফআইআর কাজল সিনহার স্ত্রীয়ের

আরও পড়ুন: Weather Update: এ বৃষ্টি যেন নাছোড়! কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA