‘একটা ক্লিপ খুলে গিয়েছিল…’রোগীর মৃত্যুতে বিক্ষোভ পরিবারের

যদিও, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, চিকিত্‍সায় কোনও গাফিলতি হয়নি। নিয়ম মেনেই চিকিত্‍সা হয়েছে।

'একটা ক্লিপ খুলে গিয়েছিল...'রোগীর মৃত্যুতে বিক্ষোভ পরিবারের
বাঁদিকে মৃত রোগী, ডানদিকে স্বজনহারা। নিজস্ব চিত্র।

পশ্চিম বর্ধমান: চিকিত্‍সার গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগে হাসপাতালের সামনেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন রোগীর পরিজন। বৃহস্পতিবার, রোগীর পরিবারের বিক্ষোভের জেরে দুর্গাপুর নিউটাউনশিপ হাসপাতালের সামনে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় পুলিশ।

রোগীর পরিবারের অভিযোগ, গত ২৬ জুলাই আমরাইয়ের বাসিন্দা শেখ রমজান আলি পিত্তে অস্ত্রোপচারের জন্য এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর থেকেই বছর পঁয়তাল্লিশের রমজান আলির শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। বুধবার রাতে ফের তাঁর অস্ত্রোপচার হয়। এরপর বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালের তরফে খবর দেওয়া হয় রোগীর মৃত্যু হয়েছে। আর এতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন রোগীর পরিবার।

মৃতের এক পরিজনা এদিন বলেন, “রমজানের গলব্লাডার স্টোনের অপারেশন হয়েছিল। সেই ২৬ তারিখ থেকে ভর্তি ছিল। আমরা জানতাম ও ঠিক হয়ে যাবে। অন্তত, ডাক্তার তাই বলেছিল। পরে শুনলাম, অপারেশনের পর ওর নাকি পেটে লাগানো একটি ক্লিপ খুলে যায়। সেখান থেকে প্রচুর রক্ত বেরতে শুরু করে। অত্যধিক রক্তক্ষরণে ওর মৃত্য়ু হয়েছে। এক চিকিত্‍সক সে কথা স্বীকার করেছেন। আমরা এর ক্ষতিপূরণ চাই।”

যদিও, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, চিকিত্‍সায় কোনও গাফিলতি হয়নি। নিয়ম মেনেই চিকিত্‍সা হয়েছে। তবে, সত্যিই কোনও গাফিলতি ছিল কি না তা বিভাগীয় তদন্ত করে দেখা হবে। আরও পড়ুন: বড় খবর, চলতি সপ্তাহেই শিয়ালদহ মেট্রোর ট্রায়াল রান শুরু!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla