Paschim Medinipur:রাত হলেই মাতাল স্বামীদের অত্যাচার, রাগে একের পর এক চোলাই মদের ভাটি গুঁড়োলেন মহিলারা

Hooch Case: রাত বাড়লেই টলমল পায়ে বাড়ি ফেরেন বাড়ির কর্তারা। তার পর শুরু সংসারে অশান্তিু। ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা ওঠে ডগে। স্ত্রীদের উপর চলে মারধর। সৌজন্যে এলাকার সস্তার চোলাই মদের ভাটি।

Paschim Medinipur:রাত হলেই মাতাল স্বামীদের অত্যাচার, রাগে একের পর এক চোলাই মদের ভাটি গুঁড়োলেন মহিলারা
চোলাই ঠেক ভাঙতে অভিযানে মহিলারা। নিজস্ব চিত্র।

পশ্চিম মেদিনীপুর: রাত বাড়লেই টলমল পায়ে বাড়ি ফেরেন বাড়ির কর্তারা। তার পর শুরু সংসারে অশান্তিু। ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা ওঠে ডগে। স্ত্রীদের উপর চলে মারধর। সৌজন্যে এলাকার সস্তার চোলাই মদের ভাটি। গ্রামের মধ্যে এই চোলাই মদের উৎপাত ঠেকাতে তাই আসরে নামলেন মহিলারাই। লাঠিসোঁটা নিয়ে একের পর এক চোলাই মদের ভাটি ভাঙলেন তাঁরা। সোমবার সেই অভিযান চলল পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনার খামারবেড়া গ্রামে। চোলাই বন্ধের হুঁশিয়ারি দিয়ে জায়গায় জায়গায় দেওয়া হল পোস্টারও। নিজেরাই সেই পোস্টার দেওয়ালে দেওয়ালে সাঁটলেন মহিলারা।

সোমবার বিকাল তখন। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা ১ ব্লকের মনোহরপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের খামারবেড়া গ্রামের প্রায় শতাধিক মহিলা লাঠি উঁচিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন। তাঁরা থামলেন গ্রামের একটি চোলাই ঠেকে। খদ্দেররা তখন আসতে শুরু করেছে। দোকানী পসার জমিয়েছেন। লাঠি হাতে মহিলাদের রণমূর্তি দেখে ছুট লাগান কেউ কেউ। এদিকে একের পর এক চোলাই মদ রাখার সরঞ্জাম তখন ভেঙে গুঁড়িয়ে দিচ্ছেন মহিলারা। এই ভাবে একদিনে গ্রামের হঠাৎ গজিয়ে ওঠা একের পর এক চোলাই ঠেকে হানা দেন তাঁরা। একই স্টাইলে অভিযানে নষ্ট করেন কয়েকশো লিটার চোলাই মদ।

এখানেই অভিযান শেষ হল না। গ্রামে চোলাই মদ বন্ধে রীতিমতো পোস্টারিং করেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় চোলাই কারবারিদের।পোস্টারে চোলাই কারবারিদের মহিলারা বার্তা এরকম- ‘মদ হঠাও, গ্রাম বাঁচাও’, ‘মদ বিক্রি করলে ধোলাই হবে, পেটাই হবে’, ‘চোলাই মদের ঠেক ভাঙছি, ভাঙব’,’সব মহিলারা দিচ্ছে ডাক, মদ বিক্রেতারা নিপাত যাক’। এমনই সব অভিনব লেখা সম্বলিত পোস্টার এখন খামারবেড়া গ্রামের জায়গার নানা প্রান্তে দৃশ্যমান।

চোলাই মদ কারাবার ঠেকাতে গ্রামের মহিলাদের এমন স্বতঃস্ফূর্ত একজোট হওয়া নিয়ে হতচকিত কারবারি থেকে রোজের খদ্দেররা। কিন্তু হঠাৎ কেন এমন অভিযানে নামলেন তাঁরা?

জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরে গ্রামে গজিয়ে উঠেছে একাধিক চোলাই মদের ঠেক। এই কারবারের সঙ্গে বেআইনি ভাবে বিভিন্ন দোকানে অবৈধ ভাবে মদ বিক্রির কারবারে অতিষ্ঠ গ্রামবাসীরা। মদের জন্য লাগাতার সংসারে অশান্তি হচ্ছে। সংসার থেকে গ্রামের সুন্দর পরিবেশ, সব দূষিত হচ্ছে। তাই চোলাই মদের ভাটি ভাঙতে ঐক্যবদ্ধ হন গ্রামের মহিলারা। সবাই একত্রিত হয়ে চোলাই ভাটি ভাঙার সঙ্গে সঙ্গে পোস্টারিংয়ের মতো অভিনব পন্থা অবলম্বন করেছেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে ঘাটাল এলাকার একটি গ্রামে চোলাই মদের ভাটি ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন মহিলারা। কিন্তু পরে তাঁরা হুমকির সম্মুখীন হন বলে অভিযোগ করেছেন। পরে তাঁদের পাশে দাঁড়া ন স্থানীয় পঞ্চায়েত নেতারা। এর পর পুলিশও পদক্ষেপ করছে।

আরও পড়ুন: Post Poll Violence: ফের কাঁকুড়গাছিতে অভিজিত্‍-হত্যা মামলায় তল্লাশি সিবিআইয়ের, পলাতক ৪ অভিযুক্ত 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla