‘পালাল’ অ্যাম্বুলেন্স চালক, ছেলের দেহ নিয়ে ঠাঁয় ৫ ঘণ্টা রাস্তাতেই বৃদ্ধা! লকডাউনের প্রথম দিনে বেআব্রু মানবিকতা

অতিমারি পরিস্থিতিতে লকডাউনের প্রথম দিনে (West Bengal Lockdown) দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) সাতগাছিয়া বিধানসভা নোদাখালির চকমানিক গ্রামের এই অভিযোগ ফের কাঠগড়ায় দাঁড় করাল মানবিকতাকে।

'পালাল' অ্যাম্বুলেন্স চালক, ছেলের দেহ নিয়ে ঠাঁয় ৫ ঘণ্টা রাস্তাতেই বৃদ্ধা! লকডাউনের প্রথম দিনে বেআব্রু মানবিকতা
ফাইল ছবি

বজবজ: ‘অনেক ভাড়া আছে, এখন আর নিয়ে যাওয়া যাবে না…’ মুখের ওপর সপাটে জবাব দিয়ে রাস্তায় দেহ ফেলে চম্পট দিলেন অ্যাম্বুলেন্স চালক। ৫ ঘণ্টা সেখানেই পড়ে রইল দেহ। অতিমারি পরিস্থিতিতে লকডাউনের প্রথম দিনে (West Bengal Lockdown) দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) সাতগাছিয়া বিধানসভা নোদাখালির চকমানিক গ্রামের এই অভিযোগ ফের কাঠগড়ায় দাঁড় করাল মানবিকতাকে।

চকমানিক গ্রামের বাসিন্দা অভিজিৎ রায় তাঁর মাকে নিয়ে থাকতেন। আগে থেকেই অভিজিতের হৃদরোগের সমস্যা ছিল। রবিবার বিকালে তাঁর আচমকাই বুকে ব্যথা হওয়ায় তাঁর মা ফোন করে অ্যাম্বুলেন্স ডাকেন। বজবজের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। চিকিৎসকরা অভিজিতকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

অভিযোগ, অভিজিতের মৃত্যুর পরই অ্যাম্বুলেন্স চালক বাহানা শুরু করেন। ‘অনেক ভাড়া আছে’ বলে অভিজিত রায় দেহ বাড়ির কাছে রাস্তায় ফেলে দিয়ে চলে যান তিনি। ৫ ঘণ্টা দেহ পড়ে থাকে রাস্তার ওপরেই। কিন্তু পাশে কেউ এগিয়ে আসেননি।

আরও পড়ুন: West Bengal Lockdown: লকডাউনে শ্লথ টিকাকরণের গতি, চোখ রাঙাচ্ছে দৈনিক মৃত্যু

খবর যায় বজবজ ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি কাছে। সভাপতি বেশ কয়েকজনকে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। পিপিই ড্রেস পড়ে শববাহি গাড়িতে দেহ তুলে বজবজ কালিবাড়ি চিত্রগঞ্জ নিয়ে যাওয়া হয়। অভিযুক্ত অ্যাম্বুলেন্স চালকের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla