WBCS: জীবনের দুর্বিপাকে জেলবন্দি, কিন্তু তারপরেও সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা দিলেন মুর্শিদাবাদের ইউনিস

WBCS: জীবনের দুর্বিপাকে জেলবন্দি, কিন্তু তারপরেও সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা দিলেন মুর্শিদাবাদের ইউনিস

WBCS:পুলিশি ঘেরোটোপেই এলেন পরীক্ষা হলে, জেলবন্দি থেকেও সিভিল সার্ভিসের পরীক্ষায় বসলেন ইউনিস।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Jun 20, 2022 | 9:45 AM

মুর্শিদাবাদ: জীবনের ভুলে উঠেছেন কাঠগড়ায়। নাম উঠেছে পুলিশের খাতায়। হাজির দিতে হয়েছে আদালতে (Court)। জীবন কাটছে জেলের গহীন অন্ধকারে। কিন্তু তারপরেও থেমে থাকেনি পড়াশোনা করার অদম্য জেদ। এর আগে জেলে বসে মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক দেওয়ার অনেক নজির দেখেছে বাংলা। এবার বিচারাধীন বন্দি দিলেন একেবারে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা। সূত্রের খবর, রবিবার মুর্শিদাবাদের রানীনগর হাইস্কুলে নদীয়া থেকে এক বিচারাধীন বন্দি ডাব্লুবিসিএস পরীক্ষা দিতে আসেন। ওই বন্দীর নাম ইউনিস মল্লিক।

জানা যায় ইউনিস মল্লিক কৃষ্ণনগর সংশোধনাগারে বন্দি রয়েছেন। ম্যাজিস্ট্রেটের সহায়তায় তিনি এদিন মুর্শিদাবাদের রাণীনগর হাইস্কুলে এসে পরীক্ষা দেন। এই খবর সাড়া ফেলেছে জেলার নাগরিক মহলে। পরীক্ষা দিতে ইউনিস জানান, ”সিভিল সার্ভিসে বসার জন্য আমার আগে থেকেই প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু জীবনের দুর্বিপাকে আমি সংশোধনাগারে এসে পৌঁছাই। এখন এখান থেকেই দিচ্ছি পরীক্ষা”। এদিকে ইউনিসের এই জের মুগ্ধ করেছে পুলিশ কর্মীদেরও। জেল বন্দি থাকা অবস্থাতেও কেউ এত বড় পরীক্ষা দেওয়ার স্বপ্ন কী করে দেখতে পারে তা ভাবাচ্ছে সকলকে। কিন্তু, ঘটনাবহুল জীবনের গোলধাঁধায় হারিয়ে যেতে যেতে নিজের লক্ষ্য থেকে দূরে সরে যাননি ইউনিস। 

এই খবরটিও পড়ুন

রবিবার রাণীনগরে কড়া পুলিশি নিরাপত্তায় পরীক্ষা দেন তিনি। এদিকে এদিনের এই নজিরবিহীন ঘটনা প্রসঙ্গে রাণীনগর হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আবু হেনা মোস্তাফা কালাম বলেন, “এই ধরনের পরীক্ষা এখানে হওয়ায় আমাদের এখানে হওয়ায় ভালো লাগছে। সাধারণত গ্রামাঞ্চলে এই ধরনের প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা হয় না। তা এখন এখানে হওয়াতে আমাদের এখানকার পড়ুয়াদের মধ্যেও উৎসাহ জাগবে। ইউনিসের এখানে পরীক্ষা দেওয়ার ঘটনাও বেশ উৎসাহজনক।”  

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA