Adar Poonawalla : ‘সবাই জানি কী কী ভুল হয়েছিল…’, পরবর্তী অতিমারি ঠেকাতে ‘বৈশ্বিক চুক্তি’র স্বপ্ন দেখেন পুনাওয়ালা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: অঙ্কিতা পাল

Updated on: May 24, 2022 | 12:28 AM

Adar Poonawalla : সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার আদর পুনাওয়ালা বলেন, ‘আমি আশা করি সব দেশ একটি বৈশ্বিক অতিমারি চুক্তি সই করবে।’ বর্তমানে সুইৎজারল্যান্ডের ড্যাভসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমকি ফোরামে যোগ দিতে গিয়েছেন আদর পুনাওয়ালা। সেই সম্মেলনের ফাঁকেই এক সংবাদমাদমাধ্যমকে আদর পুনাওয়ালা নিজের আশার কথা জানান।

Adar Poonawalla : ‘সবাই জানি কী কী ভুল হয়েছিল...’, পরবর্তী অতিমারি ঠেকাতে ‘বৈশ্বিক চুক্তি’র স্বপ্ন দেখেন পুনাওয়ালা
ছবি সৌজন্যে : PTI

ড্যাভস : বিনা বজ্রাঘাতেই পৃথিবীর উপর আছড়ে পড়েছিল করোনা সংক্রমণের ঢেউ। এই অতিমারিতে বিগত প্রায় আড়াই বছরে কয়েক লক্ষ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। প্রাথমিক ভাবে কোনও অস্ত্র ছাড়াই অসহায় ভাবে আত্মসমর্পণ করতে হয়েছিল এই রোগের কাছে। তবে ধীরে ধীরে মানবজাতী সামলে ওঠে এই সংক্রমণের ধাক্কা। তৈরি হয় ভ্যাক্সিন। দৃঢ় পদক্ষেপে পালটা লড়াই শুরু করে মানুষও। কিন্তু এই করোনার বিরুদ্ধে লড়াইতে প্রথম থেকে তৈরি ছিলাম না আমরা। তবে আগামী অতিমারির সময় কি আমরা তৈরি থাকব? এই প্রশ্নের জবাবে সেরাম ইনস্টিটিউটের সিইও আদর পুনাওয়ালা বললেন, ‘আমি আশা করি সব দেশ একটি বৈশ্বিক অতিমারি চুক্তি সই করবে।’ উল্লেখ্য, বর্তমানে সুইৎজারল্যান্ডের ড্যাভসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমকি ফোরামে যোগ দিতে গিয়েছেন আদর পুনাওয়ালা। সেই সম্মেলনের ফাঁকেই এক সংবাদমাদমাধ্যমকে আদর পুনাওয়ালা নিজের আশার কথা জানান।

আদর এদিন বলেন, ‘আমি এখানে এই প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করে সবার কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে চাই যে একটি বৈশ্বিক মহামারি চুক্তির খসড়া তৈরি করতে হবে যা বিশ্বব্যাপী সংহতিকে একত্রিত করতে সহায়তা করবে। এই চুক্তির খসড়া তৈরি করতে পারেন কোনও বিশ্ব নেতা বা কোনও বহুপাক্ষিক সংস্থার কর্তা। তবে যেই করুক না কেন, এটা খুব জরুরি।’ সেরাম কর্তা এদিন আরও বলেন, ‘আমরা সবাই জানি এই মহামারিতে কী ভুল হয়েছিল এবং কী ঠিক হয়েছিল। কাঁচামাল এবং ভ্যাকসিন ভাগাভাগি, ভ্যাকসিন সার্টিফিকেটের স্বীকৃতি, ক্লিনিকাল ট্রায়াল এবং উত্পাদনের বৈশ্বিক সমন্বয়, বিশ্বব্যাপী আরও ভ্যাকসিন এবং চিকিত্সা সুবিধা পৌঁছে দেওয়া… অনেক ক্ষেত্রেই কিছু কিছু ভুল হয়েছে। এই ধরনের বিষয়গুলি শুধরে নেওয়া হবে বলে আমি আশা করব।’

এদিকে বৈশ্বিক মহামারি চুক্তি প্রসঙ্গে আদর পুনাওয়ালার মত, ‘এটা (চুক্তি) যে মানতেই হবে এমন নয়। কিন্তু একটি কাঠামো তৈরি থাকল।’ আদর পুনাওয়ালার মতে এই চুক্তি চারটি স্তম্ভের উপর দাঁড়িয়ে থাকবে – বিনা বাধায় কাঁচামালের সরবরাহ, বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কোনও উদ্ধাবনী সম্পত্তি ভাগ করে নেওয়া যাতে উদ্ভাবককে পুরস্কৃত করা হবে (অর্থের বিনিময়ে কোনও প্রযুক্তি কিনে নেওয়া), বৈশ্বিক পর্যায়ে স্থির হওয়া নিয়ন্ত্রক মান, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে সর্বজনীন ভ্রমণ ভ্যাকসিন শংসাপত্র। পুনাওয়ালা জানান, তিনি নিজে এই ধরনের চুক্তির একটি খসড়া তৈরি করছেন। কয়েকটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকে তিনি তা বিতরণ করবেন বলেও জানান।

এদিকে কোভিড টিকার ভবিষ্যত নিয়ে বলতে গিয়ে পুনাওয়ালা বলেন, ‘টিকাকরণের ফলে হাসপাতালে ভর্তির হার কমেছে এবং কম সংখ্যক রোগী গুরুতর ভাবে অসুস্থ হচ্ছেন। কিন্তু ভবিষ্যত মিউট্যান্ট ভেরিয়েন্টের সাথে মোকাবিলা করতে এবং যুগান্তকারী সংক্রমণ প্রতিরোধ করার জন্য প্রকৃত গবেষণা এখনও চলছে। তবে এঠা শেষ হতে একটু সময় লাগবে। হয়ত এক বা দুই বছরের মধ্যে আমরা এমন একটি ভ্যাকসিন দেখতে পাব যা সংক্রমণ প্রতিরোধ করে।’

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla