China COVID-19 Rules: করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ, তাও থাকতে হবে নিভৃতবাসে, কেন এই অদ্ভুত নিয়ম?

China COVID-19 Rules: গত এপ্রিল মাসের শেষ ভাগ থেকেই করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে চিনে। ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের প্রভাবে ১৩০০-রও বেশি বাসিন্দা করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে।

China COVID-19 Rules: করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ, তাও থাকতে হবে নিভৃতবাসে, কেন এই অদ্ভুত নিয়ম?
কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে সাধারণ মানুষ। ছবি:PTI
TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

May 21, 2022 | 1:13 PM

বেজিং: করোনা (COVID-19) নিয়ে মাত্রাতিরিক্ত নিয়মের কড়াকড়ি জারি করেছে চিন সরকার (China)। হাজার সমালোচনা সত্ত্বেও সংক্রমণ রুখতে অনুসরণ করা হচ্ছে ‘জিরো কোভিড নীতি’। করোনা আক্রান্তদের বাকিদের থেকে আলাদা করে দেওয়া, তাদের জন্য বিশেষ কোয়ারেন্টাইন সেন্টার (Quarantine Centre) তৈরি থেকে শুরু করে বাড়ির প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেওয়ার মতো একাধিক কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সে দেশের সরকার। যাদের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ(COVID Negative), এ বার তারাও নিস্তার পাচ্ছেন না। বেজিংয়ে নতুন করে বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলতেই করোনা আক্রান্ত নন, এমন কয়েক হাজার বাসিন্দাদের রাতারাতি কোয়ারেন্টাইন হোটেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সাংহাইয়ের মতো বেজিংয়েরও অবস্থা যাতে একই না হয়, সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

গত এপ্রিল মাসের শেষ ভাগ থেকেই করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে চিনে। ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের প্রভাবে ১৩০০-রও বেশি বাসিন্দা করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। এর জেরে শহরের রেস্তরাঁ, স্কুল ও পর্যটন কেন্দ্রগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জিরো কোভিড নীতি অনুযায়ী দেশের সমস্ত সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। চলছে গণ করোনা পরীক্ষা, কোয়ারেন্টাইন ও লকডাউনের ঘোষণা করা হয়েছে।

দক্ষিণ-পূর্ব বেজিংয়ের ন্যানশিনাউয়ান শহরে লকডাউন জারি করা হয়েছে। সেখানের প্রায় ১৩ হাজার মানুষ বর্তমানে গৃহবন্দি রয়েছেন। যারা করোনা আক্রান্ত নন, তাদেরও রাতারাতি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বিগত কয়েকদিনে নতুন করে ২৬ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মেলায়, শুক্রবারই শহরের প্রায় কয়েক হাজার বাসিন্দাকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ন্যানশিনাউয়ানের বাসিন্দাদের ২১ মে থেকে সাতদিনের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকতে বলা হয়েছে। সকলকে সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে।

এই খবরটিও পড়ুন

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ছবিগুলিতে দেখা গিয়েছে, শতাধিক বাসিন্দা মালপত্র নিয়ে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছেন বাস ধরার জন্য। বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ২৩ এপ্রিল থেকে অনেকেই ঘরবন্দি হয়ে রয়েছেন। করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসা সত্ত্বেও প্রায় ২৮ দিন গৃহবন্দি রয়েছেন তাঁরা।  বয়স্ক বা বাচ্চারাও রেহাই পাচ্ছেন না এই কড়াকড়ি থেকে। বাড়ি ছেড়ে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে যাওয়ার পর প্রশাসন বাড়িগুলিও স্যানেটাইজ় করাচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla