‘মেয়েদের নিয়ে প্রশ্ন করবেন না’, হাঁটু ঢাকার শর্তে ৪০০ ধরনের খেলায় অনুমতি পেল আফগান পুরুষরা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Updated on: Sep 15, 2021 | 11:43 AM

Taliban Allows 400 Sports for Men: রুস্তমজ়াই বলেন, "আমরা কোনও খেলার উপরই নিষেধাজ্ঞা জারি করব না, যদি না সেই খেলা শরিয়া আইনের বিরুদ্ধে হয়। আপাতত ৪০০ ধরনের ক্রীড়ায় অনুমতি দেওয়া হয়েছে।"

'মেয়েদের নিয়ে প্রশ্ন করবেন না', হাঁটু ঢাকার শর্তে ৪০০ ধরনের খেলায় অনুমতি পেল আফগান পুরুষরা
চলতি বছরে দীর্ঘ কুড়ি বছর পর পুনরায় কাবুলের মসনদে বসার পর থেকে সমগ্র পৃথিবীর নজর এখন তালিবানের দিকে ফাইল চিত্র।

কাবুল: ফুটবল থেকে সাঁতার, ঘোড়া সওয়ারি থেকে দৌড়, সবেতেই ছাড় রয়েছে পুরুষদের। নতুন তালিবানি সরকারে পুরুষদের জন্য ৪০০-রও বেশি খেলাধুলোয় অনুমতি দেওয়া হল। তবে এরমধ্যে একটি ক্রীড়াতেও অংশ নিতে পারবেন না আফগান মহিলারা।

তালিবানের অন্তর্বর্তী সরকারে ক্রীড়া ও শরীর শিক্ষা মন্ত্রকের ডিরেক্টর জেনারেল বানানো হয়েছে আফগানিস্তানের প্রাক্তন কুংফু ও কুস্তি চ্যাম্পিয়ন বসির আহমাদ রুস্তমজ়াইকে। তিনিই পুরুষদের খেলাধুলোয় কোনও ফতেয়া না থাকা সম্পর্কে জানান। কিন্তু মেয়েদেরও খেলাধুলোয় অংশ নিতে দেওয়া হবে কিনা, সেই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “দয়া করে মহিলাদের সম্পর্কে কোনও প্রশ্ন করবেন না।”

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল অবধি তালিবানি শাসনকালে মহিলাদের খেলাধুলোর উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা ছিল, ছেলেদের ক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট কিছু ক্রীড়ারই অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। খেলার স্টেডিয়ামগুলি গণহত্যা বা ফাঁসি দেওয়ার কাজে ব্যবহার করা হত।

২০ বছর বাদে ক্ষমতায় ফিরে তালিবান সরকার ফের একবার আফগান মহিলাদের খেলাধুলোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তবে পুরুষেদের ক্ষেত্রে কোনও বিধিনিষেধ জারি করা হয়নি। এই বিষয়ে রুস্তমজ়াই বলেন, “আমরা কোনও খেলার উপরই নিষেধাজ্ঞা জারি করব না, যদি না সেই খেলা শরিয়া আইনের বিরুদ্ধে হয়। আপাতত ৪০০ ধরনের ক্রীড়ায় অনুমতি দেওয়া হয়েছে।”

তালিবানি সরকারে গুরুত্বপূর্ণ পদ পাওয়ার বিষয়ে তিনি জানান, আগে তালিবানি শাসনকালে তিনি বিদেশী শক্তির সাহায্যপ্রাপ্ত আফগান সরকারকেই সমর্থন করেছিলেন, কিন্তু ব্যপক দুর্নীতির জেরেই তিনি নিজের মত বদল করে নিয়েছেন। তালিবানি শাসন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “ইসলামিক আইন অনুসরণে জীবনযাত্রায় খুব সামান্যই পরিবর্তন আসে, যা মেনে নেওয়া কঠিন নয়।”

নিয়ম পরিবর্তনের উদাহরণ হিসাবে তিনি জানান, আগে ফুটবল খেলায় ছেলেরা যে শর্টস পরত, এ বার থেকে তার দৈর্ঘ্য কিছুটা বাড়িয়ে দেওয়া হবে। অন্তত হাঁটু অবধি ঢাকা প্যান্ট পরতে হবে যে কোনও খেলাধুলোর ক্ষেত্রেই। মহিলাদের খেলাধুলোয় অনুমতি দেওয়ার প্রসঙ্গে রুস্তমজ়াই কিছু বলতে না চাইলেও তাঁর এক সহকারী জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার অনুমতির মতোই মহিলাদের খেলাধুলোর ক্ষেত্রেও চিন্তাভাবনা করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে মহিলাদের জন্য আলাদা জায়গার ব্যবস্থা করতে হবে এবং সম্পূর্ণ লোকচক্ষুর আড়ালেই মহিলারা ক্রীড়ায় অংশ নিতে পারবেন। যদিও তালিব সরকারের তরফে এ বিষয়ে কোনও সিলমোহর দেওয়া হয়নি।

গত সপ্তাহেই তালিবানি সাংস্কৃতিক কমিশনের প্রধান আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক জানিয়েছেন, মেয়েদের খেলাধুলোর কোনও প্রয়োজন নেই। এতে শরীর প্রদর্শন হয়, তাই মহিলাদের সমস্ত খেলার উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে। তবে তালিবানি ফতেয়ার জেরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মহল থেকে চাপ সৃষ্টি হওয়ার পরই আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান আজ়িজুল্লাহ ফজলি বলেন, “আশা করছি খুব শীঘ্রই সুখবর দিতে পারব আমরা।”

তবে রুস্তমজ়াইয়ের সাফ কথা, “অভিভাবকদের (শীর্ষ তালিবান নেতা) মতামত যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। যদি তারা মহিলাদের খেলায় অনুমতি দিতে হবেন, তবেই আমরা অনুমতি দেব।”

আরও পড়ুন: খাবার শেষ, মাথার উপরে ছাদও নেই! স্থানীয়দের সাহায্যেই কেনওমতে বেঁচে রয়েছে তালিবানি যোদ্ধারা

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla